নয়াদিল্লি : ভোট যত এগিয়ে তত ‘দরাজ দিল’ হচ্ছে কেন্দ্র। এবার উচ্চশ্রেণিকে সংরক্ষণের আওতায় আনতে চলেছে মোদী সরকার। সোমবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ নিয়ে ছাড়পত্র মিলেছে।
উচ্চশ্রেণির জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ দেওয়া হবে বলে মন্ত্রিসভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে। উচ্চশ্রেণির মধ্যে যারা আর্থিকভাবে দুর্বল তাদের এই সংরক্ষণের আওতায় আনা হবে।

এর মাপকাঠি কী?

যাদের বার্ষিক রোজগার ৮লক্ষ টাকার কম তারা এই সংরক্ষণের আওতায় আসবেন। এছাড়া যাদের ৫হেক্টরের কম জমি রয়েছে তাদেরও এই সংরক্ষণের আওতায় আনা হয়েছে। এর বাইরে বেশ কিছু শর্ত রাখা হয়েছে এই সংরক্ষণে। কোনো উচ্চশ্রেণির ব্যক্তির বাড়ি এক হাজার স্কোয়ার ফিটের বেশি হলে চলবে না। পুরসভা এলাকায় বাড়ি থাকলে তা ১০৯ গজের কম হতে হবে। পুর এলাকার বাইরে যারা থাকেন তাঁদের বাড়ির আয়তন ২০৯ গজ এলাকার বেশি হবে না।

[আরও পড়ুন :কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে গিয়ে অধ্যাপকদের অবসরের বয়সসীমা বৃদ্ধির ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

মঙ্গলবার অর্থাৎ আগামিকাল শেষ হচ্ছে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। কাল একে বিল আকারে সংসদে আনা হতে পারে বলে সূত্রে জানা গিয়েছে। যদি লনা পেশ করা যায় তবে বিলটি বাজেট অধিবেশনে পেশ করবে সরকার।
তিন রাজ্য ভোটে ধাক্কার পর নড়েচড়ে বসেছে মোদী সরকার। উচ্চশ্রেণির ভোটারাও যে বিজেপির থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে সেই বার্তা রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ এবং ছত্তিশগড়ে ভোটের ফলে আরও স্পষ্ট হয়েছে। তাই তড়িগড়ি উচ্চশ্রেণিদের সংরক্ষণে এই উদ্যোগ মোদী সরকারের।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন