নয়াদিল্লি : ভারতে আসতে চলেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডেউ। ফেব্রুয়ারি মাসের ১৭ থেকে ২৩ তারিখ পর্যন্ত ভারতেই থাকবেন ট্রুডেউ। এই সফরকালে তিনি ঘুরে দেখবেন দেশের নানান প্রসিদ্ধ এলাকা। নয়াদিল্লি ছাড়াও আগ্রা, আহমেদাবাদ, অমৃতসর, মুম্বই ঘুরে দেখবেন তিনি। তাঁর সফর তালিকায় রয়েছে অমৃতসরের স্বর্ণমন্দির, গুজরাতের স্বামীনারায়ণ অক্ষরধাম মন্দির, আগ্রার তাজমহলও। সফরে আলোচনার মূল বিষয়ই হল উচ্চশিক্ষা, মধ্যবিত্তের জন্য কাজের সংস্থান, বিনিয়োগ, শিল্পবাণিজ্য-সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে দু’দেশের সহযোগিতায় উন্নতিসাধন। এর মধ্যে দিয়ে দু’দেশের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক আরও দৃঢ় করাই হল দুই প্রধানমন্ত্রীর মূললক্ষ্য।

কানাডার প্রধানমন্ত্রীর সফরের অন্যতম বিষয় হল দু’দেশের সহায়তায় নিরাপত্তা ও সুরক্ষাব্যবস্থা জোরদার করা এবং সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে হাতে হাত মিলিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ। তা ছাড়াও থাকবে শক্তি উৎপাদন, বিজ্ঞান ও আবিষ্কার। সঙ্গে মহাকাশ গবেষণা ও প্রশিক্ষণের বিষয়গুলিও উঠে আসবে আলোচনায়।

কানাডার সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী সে দেশের ছাত্র-ছাত্রীদেরও তাজমহল, অক্ষরধাম, স্বর্ণমন্দির ইত্যাদি ঘুরে দেখার জন্য বলবেন।

প্রধানমন্ত্রী ট্রুডেউ বলেন, প্রায় ১০ লক্ষ কানাডিয়ানই হল ভারতীয় বংশোদ্ভূত। সেই অর্থে ভারতের সঙ্গে কানাডার সম্পর্ক খুবই গভীর। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করার আরও একটা বিশেষ কারণই হল ভারত-কানাডার এই সম্পর্ক আরও মজবুত করা।

কানাডা সরকারের দেওয়া একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দু’দেশের প্রধানমন্ত্রী এক যোগে মধ্যবিত্তদের জন্য উপযুক্ত কর্মসংস্থান গড়ে তোলার বিষয়ে আলোচনা করবেন।

তাছাড়াও ট্রুডেউ বেশ কয়েকটি বাণিজ্যসম্মেলনেও উপস্থিত থাকবেন।

উল্লেখ্য ট্রুডেউ আরও মোদীর এটি চতুর্থ সাক্ষাৎ হতে চলেছে। এর আগে ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে ফিলিপিন্সের মালিনায় পূর্ব এশিয়া সম্মেলনে, ২০১৭ সালের জুলাই মাসে জার্মানির হামবুর্গে জি২০ সম্মেলনে, ওয়াশিংটনে নিউক্লিয়ার সিকিউরিটি সামিটে ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে তাঁদের সাক্ষাৎ হয়েছিল। এ ছাড়াও ২০১৫ সালেও টরেন্টোয় তাঁদের সাক্ষাৎ হয়েছিল।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here