প্রতীক হাজেলা। ছবি: পিটিআই

গুয়াহাটি: কেন্দ্রের তরফ থেকে ১,২০০ কোটি টাকা খরচ করে এবং অসমের সরকারের তরফে  ৫২ হাজার রাজ্য সরকারি কর্মী তিন বছর ধরে কাজ করার পরে সোমবার প্রকাশিত হয়েছে অসমের বহু চর্চিত নাগরিকপঞ্জির খসড়া। তালিকা থেকে বাদ পড়েছে ৪০ লক্ষ মানুষের নাম। এই নিয়ে যথেষ্ট বিতর্কও তৈরি হয়েছে। তবে ঠিক কী কারণে এই ৪০ লক্ষের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে সেটা প্রকাশ্যে আনা যাবে না বলে জানিয়েছেন নাগরিকপঞ্জির সমন্বয়ক প্রতীক হাজেলা।

আরও পড়ুন ‘নাম না থাকলেও আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই’, আশ্বাস অসমের মুখ্যমন্ত্রীর

লাইভ মিন্টকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “কেন এই ৪০ লক্ষের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে, গোপনীয়তা রক্ষার জন্য সেটা বলা যাবে না। আগে পুরো তালিকা তৈরি হোক, তার পরে সব কিছু খোলসা করা যাবে।”

আরও পড়ুন ৪০ লক্ষ মানুষ কোথায় যাবেন? বাঙালি খেদাও হচ্ছে না তো? এনআরসি তালিকা নিয়ে উদ্বেগ মমতার

এই তালিকা যে এখনও চূড়ান্ত তালিকা নয় সে কথাও বলেছেন হাজেলা। তাই এখন যাঁদের নাম তালিকায় নেই তাঁরা পুনরায় আবেদন করতে পারেন, এমন আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হয়ে যাওয়ার পরেও ফরেনার্স ট্রাইব্যুনালেও মানুষ আবেদন করতে পারেন বলে জানিয়েছেন হাজেলা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here