আজম খান এবং জয়া প্রদা।

ওয়েবডেস্ক: বিজেপি প্রার্থী তথা প্রাক্তন সপা সাংসদ জয়া প্রদাকে নিয়ে অত্যন্ত কুরুচিকর মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন সমাজবাদী পার্টি নেতা আজম খান। তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। অন্য দিকে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন আজম খানও।

রবিবার দলের এক জনসভা থেকে সেই বাকযুদ্ধ জারি রাখতে বিতর্ক বাঁধিয়ে বসলেন আজম খান। সেখানে জয়া প্রদার অন্তর্বাস নিয়ে অশালীন মন্তব্য করেন তিনি। উপস্থিত জনতার উদ্দেশে তাঁর বক্তব্য, “জয়া প্রদাকে রামপুরের সঙ্গে আমিই পরিচিত করিয়ে ছিলাম। ১৭ বছর পর এখন ওঁর আসল পরিচয় বোঝা যাচ্ছে। তবে আমি ১৭ দিনের বুঝে গিয়েছিলাম যে ওর অন্তর্বাসের রং খাকি।”

আরও পড়ুন ভাবমূর্তি বদলাতে মরিয়া বিজেপি, নববর্ষে জনসংযোগে বিশেষ উদ্যোগ

এই মন্তব্যের পরেই প্রবল বিতর্ক দানা বাঁধে। এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে আজমের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে আজম বলেন, “আমি দায়িত্ব নিয়েই বলছি, আমি কাউকে উদ্দেশ্য করে কোনো অশালীন মন্তব্য করিনি। আমার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ যদি প্রমাণিত হয়, তা হলে আমি ভোটে দাঁড়াব না।”

উল্লেখ্য, দু’জনেই সপাতে থাকলেও, এর আগেও একাধিকবার ঝামেলা লেগেছে আজম খান এবং জয় প্রদার বিরুদ্ধে। এমনকি আজমের বিরুদ্ধে তাঁর আপত্তিকর ছবি ছড়ানোর অভিযোগও তুলেছিলেন এই বর্ষীয়ান অভিনেত্রী। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, আজম খানের সঙ্গে ঝামেলার জন্যই সপা ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন জয়া প্রদা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here