পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ প্রাক্তন বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে

0
Rape Symbolic Photo
প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: শনিবার দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, বিজেপির প্রাক্তন বিধায়ক মনোজ শোকিনের বিরুদ্ধে তাঁর পুত্রবধূ ধর্ষণ এবং প্রাণে মেরে দেওয়ার হুমকির অভিযোগ দায়ের করেছেন। নির্যাতিতার দাবি, বন্দুকের নলের সামনে দাঁড় করিয়ে তাঁকে ধর্ষণ ও তাঁর প্রাণনাশের হুমকি দেন তাঁর শ্বশুর। গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর এবং এই বছরের ১ জানুয়ারির মাঝের রাতে ঘটে ওই ঘটনা।

পুলিশ এ দিন জানায়, বৃহস্পতিবার নিগৃহীতা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। তার পরেই নাঙ্গলই বিধানসভা আসনের প্রাক্তন দু’বারের বিধায়ক মনোজ শোকিনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, নিগৃহীতা তাঁর অভিযোগে জানিয়েছেন, ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর তিনি তাঁর স্বামী, ভাই এবং এক ভাইপোর সঙ্গে নিজের বাপেরবাড়ি থেকে শ্বশুরবাড়িতে যাচ্ছিলেন। তাঁর শ্বশুরবাড়ি মীরাবাগ এলাকায়।

কিন্তু শ্বশুরবাড়িতে নিয়ে যাওয়ার পরিবর্তে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় পশ্চিম বিহার এলাকার একটি হোটেলে।

মহিলার অভিযোগ, “আমি যখন হোটেলে পৌঁছাই, দেখি সেখানে আগে থেকেই রয়েছেন আমার পরিবারের আরও বেশ কয়েক জন সদস্য। সেখানে তাঁরা বর্ষবরণ উদ্‌যাপন করছিলেন। সেখানে পার্টি শেষ হওয়ার পর রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ আমরা মীরাবাগের বাড়িতে যাই। আমি যখন ঘুমিয়ে পড়ি, তখন আমার স্বামী তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে বাইরে চলে যান”।

এফআইআর অনুযায়ী মহিলা জানিয়েছেন, “রাত দেড়টা নাগাদ আমার শ্বশুরমশায় আমাকে দরজা খুলতে বলেন। তিনি বলেন, আমার সঙ্গে তাঁর জরুরি কথা রয়েছে। ঘরে ঢোকার পরই তিনি আমাকে অসংলগ্নভাবে ছুঁতে শুরু করেন। তিনি মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন, আমি তাঁকে নিজের ঘরে গিয়ে শুতে বলি। তখন তিনি বন্দুক বের করে আমার ভাইকে মেরে ফেলার হুমকি দেন। আমাকে সেখানেই ধর্ষণ করা হয়”।

এত দিন কেন অভিযোগ করেননি?

নিজের সম্মান এবং সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে। পাশাপাশি ভাইয়ের প্রাণ বাঁচানোর জন্যই তিনি এত দিন নীরব ছিলেন বলে জানিয়েছেন। তবে গত বছরের ডিসেম্বরে বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে হেনস্থার অভিযোগ একটি মামলা তিনি দায়ের করেন। ক্রাইম এগেনস্ট উইমেন (সিএডব্লিউ) সেলের সাকেত আদালতে তাঁর বাবা-মাকে গত ৭ জুলাই হেনস্থা করা হয় বলেও অভিযোগ করেছেন নির্যাতিতা।

পুলিশের বক্তব্য অনুযায়ী, প্রাক্তন বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ এবং ৫০৬ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.