m nageswara rao
এম নাগেশ্বর রাও

ওয়েবডেস্ক: স্ত্রী বিরুদ্ধে ওঠা “সন্দেহজনক আর্থিক লেনদেন” সংক্রান্ত অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন সিবিআইয়ের সদ্য নিযুক্ত অধিকর্তা এম নাগেশ্বর রাও। মঙ্গলবার তিনি লিখিত বিবৃতি দিয়ে জানান, ওই সংক্রান্ত লেনদেন সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। উল্লেখ্য, সল্টলেকের অ্যাঞ্জেলা মার্কেনটাইল প্রাইভেট লিমিটেড নামের একটি সংস্থার কাছ থেকে কয়েকটি ধাপে বড়ো অঙ্কের আর্থিক লেনদেনের অভিযোগ উঠেছে।

গত রবিবারই একটি সংবাদ মাধ্যমের তরফে বিষয়টি প্রকাশ্যে নিয়ে আসা হয়। যেখানে বলা হয়, তিনটি ধাপে মোট ১.১৪ কোটি টাকা ওই সংস্থার তরফে জমা করা হয়েছে রাওয়ের স্ত্রী এম সন্ধ্যার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে। পূর্ণ বিবরণ-সহ দেখানো হয়, গত ২০১২-১৪ সালে ৩৫.৫৬ লক্ষ, ৩৮.২৭ লক্ষ এবং ৪০.২৯ লক্ষ টাকা জমা পড়েছে সন্ধ্যার অ্যাকাউন্টে।

আরও পড়ুন: অমিত শাহ প্রার্থী হচ্ছেন বাংলা থেকেই! জল্পনায় বদল হল আসন

এ দিন রাও বলেন, “২০১০ সালে আমার স্ত্রী অ্যাঞ্জেলা মার্কেনটাইল প্রাইভেট লিমিটেডের কাছে থেকে ২৫ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। ওই সংস্থার কর্ণধার প্রবীণ আগরওয়াল আমার পরিবারিক বন্ধু। ওই টাকায় মিলিত ভাবে অন্ধ্রপ্রদেশের গন্টুরে একটি জমি কেনা হয়। এর পর ২০১১ সালে সন্ধ্যা ৫৮.৬২ লক্ষ টাকায় চাষযোগ্য পৈত্রিক জমি কেনেন। যা ওই সংস্থার নামে ট্রান্সফার করা হয়। সেখান থেকেই ওই ২৫ লক্ষ টাকার ঋণ পরিশোধ করা হয়। ওই টাকারই সুদ বাবদ ২০১৪ সালের জুলাই মাসে ৪১,৩৩, ১৬৫ টাকা ফেরত দেয় ওই সংস্থা। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে”।

CBI

নিজের এবং পরিবারের আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত বিশদ বিবরণ পেশ করার পরেও রাও জানিয়েছেন, “এখানে কোনো রকমেরই সন্দেহজনক লেনদেনের প্রশ্ন ওঠে না”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here