youth dies while taking selfie

ওয়েবডেস্ক: সুপ্রিম কোর্ট থেকে পরিষ্কার নির্দেশ দেওয়া রয়েছে যে বিয়ে বা অন্য কোনো অনুষ্ঠানে আনন্দে উদযাপনে কোনো ভাবেই গুলি চালানো যাবে না। তবুও কে শোনে কার কথা। এ রকমই দু’টি ঘটনা ঘটল উত্তরপ্রদেশে। একটিতে প্রাণ গেল বরের, অপরটিতে কনের ভাইয়ের।

প্রথম ঘটনাটি ঘটেছে লখিমপুর খেরিতে। বরযাত্রীদের একজনের বন্দুক থেকে ছোড়া গুলিতে মৃত্যু হয়েছে বরের।

বর সুনীল বর্মার বুকে গুলি লাগতেই আনন্দের আসরে নেমে আসে শোকের ছায়া। দ্রুত স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয় তাঁকে। হাসপাতালে পৌঁছোতেই তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। গোটা ঘটনাটাই সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে গুলি চালাচ্ছেন এক ব্যক্তি।

এই ফুটেজ থেকে অভিযুক্ত রামচন্দ্রকে শনাক্ত করা গিয়েছে। দেখা যাচ্ছে তাঁর ‘লাইসেন্সড’ বন্দুক থেকে দু’টি গুলি করলেন রামচন্দ্র। একটি সুনীলকে এড়িয়ে গেলেও দ্বিতীয়টি তাঁর বুকে লাগে।

জানা গিয়েছে সুনীলের খুব ঘনিষ্ঠ বন্ধু রামচন্দ্র। তাঁর বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। তবে তিনি এখন পলাতক। তাঁর সন্ধানে নেমেছে পুলিশ।

অন্য ঘটনাটি ঘটেছে ইলাহাবাদে। সেখানে ঠিক এ রকমই বিয়ের আসরে চলা গুলিতে প্রাণ হারিয়েছে কনের ভাই। এই ঘটনায় অভিযুক্ত বরের আত্মীয় গঙ্গাপ্রসাদ পাণ্ডে। এখানেও অভিযুক্ত পলাতক।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here