বিচারকের ‘রুটিন বদলি’ নিয়ে বিরোধীদের আক্রমণের মধ্যে সাফাই দিল কেন্দ্র

0

নয়াদিল্লি: দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি এস মুরলীধরের বদলি নিয়ে বিরোধীদের আক্রমণের মধ্যেই নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করল কেন্দ্র। তাদের দাবি, যথাযথ নিয়ম মেনেই বদলি করা হয়েছে বিচারপতিকে। এ ব্যাপারে তিনিও সম্মতি দিয়েছেন।

মুরলীধরের ‘রুটিন বদলি’ নিয়ে কংগ্রেস রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ করে বৃহস্পতিবার একের পর এক টুইট করেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ। তিনি বলেন, “১২.০২.২০২০ তারিখ প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়ামের প্রস্তাবের ভিত্তিতেই সম্মাননীয় বিচারক মুরলীধরের বদলি হয়েছে। বদলির সময় বিচারপতির সম্মতিও গ্রহণ করা হয়েছে। যথাযথ নিয়ম মেনেই এই বদলি হয়েছে।”

প্রসাদ আরও বলেন, “একটা রুটিন বদলি নিয়ে রাজনীতি করে কংগ্রেস আবারও প্রমাণ করে দিল যে বিচারব্যবস্থার প্রতি তাদের কদর কতটা কম। দেশের মানুষ কংগ্রেসকে প্রত্যাখ্যান করেছে।”

উল্লেখ্য, গত ১২ ফেব্রুয়ারি মুরলীধরকে বদলি করার সুপারিশ করেছিল সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়াম। সেই সুপারিশেই শিলমোহর দেয় কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রক। আইনমন্ত্রকের বিবৃতিতে বলা হয়, কলেজিয়ামের সুপারিশ অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি এস মুরলীধরকে পঞ্জাব-হরিয়ানা হাইকোর্টে বদলি করেছেন।

আরও পড়ুন আরবিআইয়ের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পর কতটা স্বস্তি বন্ধন ব্যাঙ্কের?

উল্লেখ্য, বুধবারই দিল্লি হাইকোর্টের শুনানিতে বিচারপতি মুরলীধর ও বিচারপতি তালবন্ত সিংহর ডিভিশন বেঞ্চ উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে হিংসার ঘটনায় পুলিশের ভূমিকায় তীব্র ক্ষোভপ্রকাশ করে। দিল্লির বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র, কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর, বিজেপি সাংসদ প্রবেশ বর্মা ও বিজেপি বিধায়ক অভয় বর্মার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দেয় ডিভিশন বেঞ্চ।

গত সপ্তাহেই বিচারপতি এস মুরলীধরের বদলির নিন্দা করেছিল দিল্লি হাইকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন। এই পদক্ষেপ প্রত্যাহারের জন্য সুপ্রিম কোর্টের কলিজিয়ামের কাছে দাবি জানিয়েছিল তারা। কিন্তু সেই আপত্তি শেষ পর্যন্ত ধোপে টিকল না।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.