পৃথিবীর কক্ষপথ ছেড়ে চাঁদের কক্ষপথে পাড়ি দিল চন্দ্রযান-২

0
chandrayaan 2
চন্দ্রযান-২

নয়াদিল্লি : মঙ্গলবার মধ্যরাত্রেই পৃথিবীর কক্ষপথ পরিত্যাগ করে চাঁদের দিকে পাড়ি দিয়েছে চন্দ্রযান-২। এর পরই ২০ তারিখে চাঁদের কক্ষপথে পৌঁছবে ভারতের পাঠানো চন্দ্রযান-২। তখন এর ‘লিকুইড ইঞ্জিন’টি আবার ছুড়ে দেওয়া হবে চাঁদের কক্ষপথের দিকে। এই প্রকল্পের সাফল্য এলে তা ভারতের মাথায় আরও একটি সাফল্যের পালক সংযোজন করবে। ভারত হয়ে উঠবে চাঁদের মাটিতে নামা চতুর্থ দেশ।

উল্লেখ্য, এর আগে রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চিন চাঁদের মাটি স্পর্শ করতে পেরেছিল।

ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো জানিয়েছে, ট্রান্স লুনার ইনসার্শন পদ্ধতি অনুযায়ী রাত্রি ২টো ২১ মিনিটে এই সফল কক্ষ পরিবর্তন সম্পন্ন হয়েছে। এই সময়ই এর মধ্যে থাকা ‘লিকুইড ইঞ্জিন’টি ১২০৩ সেকেন্ডে মহাকাশে নিক্ষিপ্ত হয়েছিল। এই কক্ষপথ পরিবর্তনের অর্থ হল চাঁদের কক্ষপথে একটি উপগ্রহ স্থাপন করার পদ্ধতি। ঘুরন্ত অবস্থাতেই এই পদ্ধতিটি সম্পন্ন করা হয়।

প্রসঙ্গত, অন্যান্য দেশের এই ধরনের প্রকল্পের ক্ষেত্রে যা ব্যয় হয় তার থেকে অনেক কমে এই কাজ করা হচ্ছে। এই অভিযানের জন্য ব্যয় করা হয়েছে এক হাজার কোটি টাকা।  

পড়ুন – প্রাচীনকালে মঙ্গলে বিশালাকার সুনামি হয়েছিল, বলছে নতুন গবেষণা

২২ জুলাই অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটার লঞ্চ প্যাড থেকে এই চন্দ্রযান-২ এর অভিযান শুরু হয়। এর পর ২৩ জুলাই থেকে ৬ আগস্টের মধ্যে এর গতি ক্রমশ বাড়িয়ে পাঁচগুণ করা হয়। তবে প্রযুক্তিগত ত্রুটির জন্য উদ্বোধন শুরুর এক ঘণ্টার মধ্যে এটি বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। অবশেষে তার এক সপ্তাহ পরে এর সফল উৎক্ষেপণ হয়। ভারতের দ্বিতীয় চন্দ্র অভিযান শুরু হওয়ার পরে ২৩ জুলাই থেকে ৬ আগস্টের মধ্যে এই মহাকাশযানের কক্ষপথ ক্রমশ বৃদ্ধি করা হয়েছিল। চাঁদে অবতরণের পরে, রোভারটি এক চন্দ্র দিবস অর্থাৎ ১৪ দিন চাঁদের পৃষ্ঠে পর্যবেক্ষণ পরীক্ষা চালাবে। এক চন্দ্র দিবসের হিসেবানুসারেই এই ল্যান্ডারের মিশন লাইফটি বানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here