২০১৩-এর মতো দুর্যোগের আশংকা উত্তরাখণ্ডে, সাময়িক ভাবে বন্ধ হল চারধাম যাত্রা

0

দেহরাদুন: পশ্চিমী ঝঞ্ঝা এবং নিম্নচাপের সৌজন্যে পুবালি হাওয়ার সংঘর্ষের ফলে ২০১৩-এর মতো পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। এমনই আশংকায় চারধাম যাত্রা সাময়িক ভাবে বন্ধ করল উত্তরাখণ্ড সরকার। তীর্থযাত্রী এবং পর্যটকদেরও নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

রবিবার থেকে ব্যাপক বৃষ্টি শুরু হয়েছে উত্তরাখণ্ডে। আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের মতে, এ বার বর্ষাতেও এমন দুর্যোগ দেখেনি উত্তরাখণ্ড যা বর্ষা বিদায়ের পর শুরু হয়েছে। রবিবার কুমায়ুনে বৃষ্টির দাপট অনেক বেশি ছিল। চম্পাবতে ১৬০ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে। নৈনিতালে বৃষ্টি হয়েছে ১০০ মিলিমিটার।

তবে সোমবার সকালের পর বৃষ্টির দাপট আরও বেড়ে গিয়েছে রাজ্যের বেশ কিছু জায়গায়। এখন পর্যটকে ভরা মরশুম। ফলে বাড়তি সতর্কতা নিতে হয়েছে উত্তরাখণ্ড সরকারকে।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে খবর, কেদারনাথগামী তীর্থযাত্রীদের উখিমঠ এবং গুপ্তকাশীতে আটকে দেওয়া হয়েছে। যাঁরা কেদারনাথে ছিলেন, তাঁদেরও নিরাপদে উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়েছে। বদরীনাথগামী তীর্থযাত্রীদের চামোলি এবং জোশীমঠ, গঙ্গোত্রীগামী তীর্থযাত্রীদের হরশিল এবং যমুনোত্রীগামী তীর্থযাত্রীদের জানকীচটিতে আটকে দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়ার উন্নতি না হলে যাত্রা পুনরায় শুরু হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে প্রশাসন। এ দিকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় আরও বেশি দুর্যোগের আশংকা করা হচ্ছে রাজ্যে। ভারী থেকে অতি ভারী তো বটেই, কোথাও কোথাও চরম অতি ভারী বৃষ্টিও হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের জুনেও এমনই পশ্চিমী ঝঞ্ঝা এবং নিম্নচাপের প্রভাবে পুবালি হাওয়ার সংঘর্ষ হয়েছিল উত্তরাখণ্ডের বায়ুমণ্ডলে। সে কারণেই বিধ্বংসী দুর্যোগ নেমে আসে রাজ্যে। মেঘভাঙা বৃষ্টিতে কার্যত ধ্বংস হয়ে যায় কেদারনাথ। সেই ঘটনায় কত জনের মৃত্যু হয়েছিল, আজও তার সঠিক হিসেব নেই।

সেই ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়েই এ বার আগেভাগে সতর্ক প্রশাসন। সে কারণেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে তীর্থযাত্রা।

চলছে তুষারপাতও

এ দিকে ভারী বৃষ্টির পাশাপাশি চলছে তুষারপাতও। রবিবার বরফ পড়েছিল কেদারনাথ এবং বদরীনাথে। সোমবার গঙ্গোত্রীও মরশুমের প্রথম তুষারপাত পেয়েছে। আবহাওয়া যা আচরণ করছে, তাতে আগামী ২৪ ঘণ্টায় আরও তুষারপাত হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

বুধবার থেকে উন্নতি হবে আবহাওয়ার। মেঘের আস্তরণ সরিয়ে দেখা মিলবে সূর্যের। তবে তার আগে সময়টা খুব গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যের কাছে। জায়গায় জায়গায় ধস নামার পাশাপাশি, হড়পা বানেরও আশংকা রয়েছে।

আজকের আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়ুন এখানে:

লখিমপুর কাণ্ডের প্রতিবাদে কৃষকদের ‘রেল রোকো’ কর্মসূচি, উত্তর ভারতে ট্রেন চলাচল ব্যহত

দক্ষিণবঙ্গের ওপরে নিম্নচাপ, বৃষ্টি চলবে আরও ৪৮ ঘণ্টা, মঙ্গলবার উত্তরে ভয়াবহ বৃষ্টির আশংকা

আফগানিস্তান নিয়ে বৈঠকে পাকিস্তানকে আমন্ত্রণ জানাল ভারত

স্বস্তি! ভারতে দৈনিক সংক্রমণ নামল সাড়ে ১৩ হাজারের ঘরে

ফুলেফেঁপে ওঠা নদীতে ভেসে গেল আস্ত দু’তলা বাড়ি, কেরলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৪

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন