Connect with us

দেশ

কানহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে জমা করা চার্জশিটে বড়োসড়ো গলদ, পুলিশকে ভর্ৎসনা আদালতের

Kanhaiya Kumar

ওয়েবডেস্ক: সিপিআই নেতা কানহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা করেছিল দিল্লি পুলিশ। সেখানে বড়োসড়ো গলদ থাকায় শনিবার পুলিশকে ভর্ৎসনা করে চার্জশিট প্রত্যাহার করল দিল্লির নিম্ন আদালত।

আদালত পুলিশের উদ্দেশে বলেন, “আপনারা যে চার্জশিট জমা করেছেন সেখানে রাজ্য সরকারে আইন বিভাগের কোনো স্বীকৃতি নেই। অর্থাৎ, রাজ্য সরকারের অনুমোদন ছাড়াই ওই চার্জশিট জমা করা হয়েছে”।

এমন আইনি জটিলতা মুখে পড়ে ম্রিয়মাণ হয়ে পড়েন সরকারি আইনজীবী। তিনি আদালতের কাছে আবেদন করেন, “১০ দিন সময় দেওয়া হোক, অনুমোদন-সহ চার্জশিট পুনরায় জমা করা হবে”।

উল্লেখ্য, গত সোমবার দিল্লি পুলিশের তরফে ১,২০০ পাতার ওই চার্জশিট জমা করা হয়। যেখানে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র সংসদ নেতা দেশদ্রোহিতামূলক কাজের সঙ্গে যুক্ত।

২০১৬ সালে জেএনইউতে রাষ্ট্রদোহী কার্যকলাপ করেছিলেন তাঁরা। এমনই অভিযোগ এনে সিপিআই নেতা তথা জেএনইউ ছাত্র সংসদের প্রাক্তন সভাপতি কানহাইয়া কুমার, উমর খালিদ, অনির্বাণ ভট্টাচার্য এবং কাশ্মীরের আরও সাত পড়ুয়ার বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দিয়েছে দিল্লি পুলিশ। ওই সভা আয়োজনের পরেই গ্রেফতার করা হয়েছিল কানহাইয়াদের। তবে বেশি দিন হাজতবাস করতে হয়নি তাঁদের। জামিনে মুক্ত হয়ে যান তাঁরা।

[ আরও পড়ুন: মমতার ব্রিগেড দেখেই ‘প্ল্যান বি’ তৈরির প্রস্তুতি সিপিএমের ]

চার্জশিট জমা পড়ার পরই কানহাইয়া এর নেপথ্য রাজনৈতিক অভিসন্ধির অভিযোগ তুলেছিলেন। তাঁর দাবি ছিল, ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্তের পরেও দেশদ্রোহিতার সঙ্গে যুক্ত কোনো ছাত্রের হদিশ পাওয়া যায়নি। তবুও লোকসভা ভোটের মুখে প্রায় তিন বছর পরে ফের সেই চার্জশিট জমা করায় বিজেপির রাজনৈতিক চক্রান্তই স্পষ্ট হয়ে ধরা পড়ছে।

দেশ

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় আমরা উদ্বিগ্ন নই: কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Harsh Vardhan

নয়াদিল্লি: দেশে করোনাভাইরাস (Coronavirus) আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমাগত বাড়তে থাকলেও তা উদ্বেগজনক নয় বলে শুক্রবার জানালেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. হর্ষ বর্ধন (Harsh Vardhan)।

টেকনোলজি ইনফরমেশন, ফোরকাস্টিং অ্যান্ড অ্যাসেসমেন্ট কাউন্সিল বা টিএফএসি (TIFAC)-র অনলাইন উদ্বোধনে মন্ত্রী এ দিন বলেন, ভারতে এখন কোভিড-১৯ (Covid-19) রোগীর সুস্থতার হার প্রায় ৬৩ শতাংশ, মৃত্যুর হার কমে হয়েছে ২.৭২ শতাংশ। পাশাপাশি এ দেশ এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণের পর্যায়ে পৌঁছোয়নি।

সংবাদ সংস্থা এনআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মন্ত্রী বলেন, “কোভিড-১৯ রোগীর সুস্থতার হার এখন প্রায় ৬৩ শতাংশ, মৃত্যুর হার মাত্র ২.৭২ শতাংশ। আমরা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন নই। আমরা নমুনা পরীক্ষা ক্রমাগত বাড়িয়ে চলেছি, যাতে সন্দেহজনকদের দ্রুত চিহ্নিত এবং আক্রান্তদের যতটা তাড়াতাড়ি সম্ভব চিকিৎসা করা যায়”।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, এখন প্রতিদিন গড়ে ২.৭ লক্ষ নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে সারা দেশ মিলিয়ে। তিনি বলেন, “এত বড়ো দেশ হয়েও আমরা এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণের পর্যায়ে পৌঁছোইনি। তবে দেশের কিছু কিছু জায়গায় স্থানীয় স্তরের সংক্রমণ ছড়িয়েছে”।

এ দিন সকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশে বর্তমানে সুস্থতার হার আরও কিছুটা বেড়ে ৬২.৪২ শতাংশ হয়েছে। দেশের ১৮টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে সুস্থতার হার এই জাতীয় হারের থেকে বেশি।

কোন কোন রাজ্যে?

পশ্চিমবঙ্গ- ৬৪.৯৪ শতাংশ

উত্তরপ্রদেশ- ৬৫.২৮ শতাংশ

ওড়িশা- ৬৬.১৩ শতাংশ

ঝাড়খণ্ড- ৬৮.০২ শতাংশ

পঞ্জাব- ৬৯.২৬ শতাংশ

বিহার- ৭০.৪০ শতাংশ

গুজরাত- ৭০.৭২ শতাংশ

মধ্যপ্রদেশ- ৭৪.৮৫ শতাংশ

হরিয়ানা- ৭৪.৯১ শতাংশ

রাজস্থান- ৭৫.৬৫ শতাংশ

দিল্লি- ৭৬.৮১ শতাংশ

এ দিন স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানায়, মৃত্যুহার আরও কিছুটা কমে ২.৭২ শতাংশে এসেছে। ৩০টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে মৃত্যুর হার জাতীয় হারের থেকে কম।

কোন রাজ্যে কত?

কেরল- .৪১ শতাংশ

ঝাড়খণ্ড- .৭১ শতাংশ

বিহার- .৮২ শতাংশ

তেলঙ্গানা- ১.০৭ শতাংশ

তামিলনাড়ু- ১.৩৯ শতাংশ

হরিয়ানা- ১.৪৮ শতাংশ

রাজস্থান- ২.১৮ শতাংশ

পঞ্জাব- ২.৫৬ শতাংশ

উত্তরপ্রদেশ-২.৬৬ শতাংশ।

এ ছাড়া মণিপুর, নাগাল্যান্ড, দাদরা এবং নগরহাভেলি, দমন এবং দিউ, মিজোরাম, আন্দামান এবং নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ ও সিকিমে মৃতের সংখ্যা ‘শূন্য’।

Continue Reading

দেশ

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বাতিল করুক ইউজিসি, দাবি রাহুল গান্ধীর

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বাতিল করে পড়ুয়াদের অতীত দক্ষতার ভিত্তিতে তাঁদের পরের পর্যায়ে উত্তীর্ণ করা হোক।

ওয়েবডেস্ক: কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বাতিল করার দাবি তুললেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। শুক্রবার রাহুল বলেন, করোনাভাইরাস মহামারির (Coronavirus pandemic) বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বাতিল করে পড়ুয়াদের অতীত দক্ষতার ভিত্তিতে তাঁদের পরের পর্যায়ে উত্তীর্ণ করা হোক।

রাহুলের অভিযোগ, ইউনিভার্সিটি গ্রান্টস কমিশন (UGC) চূড়ান্ত সিমেস্টার এবং চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা বাধ্যতামূলক বলে জানিয়ে দেওয়ার পর বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। কোভিড-১৯ (Covid-19) পরিস্থিতিতে পরীক্ষা নেওয়া মোটেই বাঞ্ছনীয় নয়। ইউজিসির উচিত পড়ুয়াদের কথা শোনা।

রাহুলের কথায়, কোভিড-১৯ প্রচুর মানুষকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। স্কুল-কলেজের পড়ুয়ারাও যন্ত্রণার মধ্যে রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে যখন আইআইটি এবং কলেজগুলি পরীক্ষা বাতিল করছে, তখন ইউজিসি বিভ্রান্তি তৈরি করছে। ইউজিসির উচিত পরীক্ষা বাতিল করে পড়ুয়াদের অতীতের দক্ষতার ভিত্তিতে তাদের পরবর্তী পর্যায়ে উত্তীর্ণ করা।

রাহুল কংগ্রেস একটি দলীয় অনুষ্ঠান স্পিকআপ ফর স্টুডেন্ট-এ যোগ দিয়ে এই মন্তব্য করেন। টুইটারে ওই ভিডিয়োটি পোস্ট করা হয়।

ইউজিসি যা বলছে

কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চূড়ান্ত সিমেস্টার এবং চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা বাধ্যতামূলক বলে জানিয়ে দিয়েছে ইউজিসি। এর পরই করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কী ভাবে পরীক্ষা নিতে হবে, এ বার সেই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়গুলির কাছে নির্দেশ পাঠিয়েছে ইউজিসি।

কী ভাবে পরীক্ষা নেওয়া হবে, সে বিষয়ে ৩০ দফার একটি ‘স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিয়োর’ পাঠিয়েছে ইউজিসি। সেখানে মাস্ক পরা, শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা-সহ একাধিক ব্যবস্থার উল্লেখ করা হয়েছে। এমনকী, পরীক্ষার্থীদের কারও জ্বর রয়েছে কি না, তা শনাক্ত করতে পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশের আগে থার্মোগান রাখার কথাও বলা হয়েছে।

Continue Reading

দেশ

কোভিড-১৯ রোগীর নাম কেন প্রকাশ করা হবে? সরকারের কাছে জবাব চাইল হাইকোর্ট

যখন কোনো ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হন, তখন সরকারের তরফে সেই অঞ্চল অথবা বিল্ডিংকে কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত করা হয়।

মুম্বই: কোভিড-১৯ (Covid-19) আক্রান্ত রোগীর নাম কেন প্রকাশ করা উচিত, শুক্রবার সেই প্রশ্নের উত্তরই সরকারের কাছে জানতে চাইল বোম্বে হাইকোর্ট (Bombay High Court)। উচ্চ আদালত বলে, এই সমস্যাটিতে এ জাতীয় রোগীদের গোপনীয়তা বজার রাখার অধিকারের প্রসঙ্গটি জড়িত রয়েছে।

করোনাভাইরাস (Coronavirus) আক্রান্তদের চিহ্নিত করার সুবিধার জন্য এবং অন্যদের সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচানোর স্বার্থে রোগীর নাম প্রকাশের আর্জি জানিয়ে হাইকোর্টে আবেদন জমা করেন দুই ব্যক্তি। সেই আবেদনের উপর শুনানিতেই হাইকোর্ট মারণ ভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের নাম প্রকাশের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে সরকারের কাছে জবাব চায়।

জনস্বার্থ মামলা

জনস্বার্থ মামলাটি (PIL) দায়ের করেন বৈষ্ণবী ঘোলাবে নামে এক আইন পড়ুয়া এবং মহারাষ্ট্রের সোলাপুরের এক কৃষক মহেশ গড়েকর।

জনস্বার্থ মামলাটিতে বলে হয়, “যখন জীবনের মৌলিক অধিকার এবং স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের অধিকারের সঙ্গে গোপনীয়তার মৌলিক অধিকারের সংঘাত বাঁধে, তখন আদালতকে দেখতে হবে যে এই অধিকারগুলির মধ্যে কোনটি জনসাধারণের নৈতিকতা এবং স্বার্থকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে”।

আদালতের প্রশ্ন

আদালত জানিয়ে দেয়, “যে ব্যক্তি কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছেন, তাঁর পরিচয় প্রকাশ করতে কতদূর যেতে হতে পারে? এর সঙ্গে গোপনীয়তার অধিকার জড়িত রয়েছে।”

বিচারপতি সৈয়দ বলেন, যখন কোনো ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হন, তখন সরকারের তরফে সেই অঞ্চল অথবা বিল্ডিংকে কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত করা হয়। তিনি প্রশ্ন তোলেন, “এটা কি যথেষ্ট নয়? কোন ব্যক্তি করোনা পজিটিভ হয়েছেন, তাঁর নাম আপনি কেন জানতে চান”?

সরকারি আইনজীবীর বক্তব্য

কেন্দ্রীয় সরকারের হয়ে প্রতিনিধিত্বকারী আইনজীবী আদিত্য ঠক্কর আদালতকে বলেন, ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চের

(ICMR) নির্দেশিকা অনুযায়ী কোভিড-১৯ রোগীর নাম প্রকাশ করা হয় না। রোগীকে যাতে সামাজিক ভাবে কোনো রকমের অনভিপ্রেত ঘটনার মুখোমুখি হতে হয়, সে দিকে তাকিয়েই এই সিদ্ধান্ত।

তবে মামলাকারীদের আইনজীবী এই মন্তব্যের বিরোধিতা করেন। তিনি বলেন, আইসিএমআরের নির্দেশিকা শুধুমাত্র মৃত কোভিড-১৯ রোগীদের জন্যই প্রযোজ্য।

উভয়পক্ষের মন্তব্য শোনার পর উচ্চআদালত দু’সপ্তাহের জন্য মামলাটির শুনানি স্থগিত করে। এই সময়ের মধ্যে সরকারকে জবাব দিতে বলে।

Continue Reading
Advertisement
প্রযুক্তি7 mins ago

৫৯টি নিষিদ্ধ চিনা অ্যাপকে কেন্দ্রের ৭৯টি প্রশ্ন! উত্তর দিতে না পারলে…

ফুটবল12 mins ago

এটিকে-মোহনবাগানের নতুন লোগো প্রকাশিত, জার্সির রঙ সবুজমেরুনই

Harsh Vardhan
দেশ50 mins ago

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় আমরা উদ্বিগ্ন নই: কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী

শিল্প-বাণিজ্য1 hour ago

এইচডিএফসির অংশীদারিত্ব বিক্রি করছে চিনের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক

শিক্ষা ও কেরিয়ার2 hours ago

প্রকাশিত হল আইসিএসই এবং আইএসসি ফলাফল, মিলল না মেধা তালিকা!

দেশ2 hours ago

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বাতিল করুক ইউজিসি, দাবি রাহুল গান্ধীর

দেশ3 hours ago

কোভিড-১৯ রোগীর নাম কেন প্রকাশ করা হবে? সরকারের কাছে জবাব চাইল হাইকোর্ট

দেশ4 hours ago

পশ্চিম চম্পারণে বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে হত ৪ মাওবাদী

দেশ9 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৬৫০৬, সুস্থ ১৯১৩৪

কলকাতা2 days ago

কলকাতায় লকডাউনের আওতায় পড়া এলাকাগুলির পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশিত

ক্রিকেট2 days ago

১১৬ দিন পর শুরু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, হাঁটু গেড়ে বসে জর্জ ফ্লয়েডকে স্মরণ ক্রিকেটারদের

কেনাকাটা3 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

রাজ্য3 days ago

বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটা থেকে রাজ্যের কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে কড়া লকডাউন

দেশ1 day ago

সক্রিয় করোনা রোগীর ৯০ শতাংশই আটটি রাজ্যে!

রাজ্য1 day ago

ঘুমের মধ্যেই চলে গেলেন মহীনের অন্যতম ‘ঘোড়া’ রঞ্জন ঘোষাল

LPG
দেশ2 days ago

উজ্জ্বলা যোজনায় বিনামূল্যের এলপিজি সিলিন্ডার পাওয়ার মেয়াদ বাড়ল আরও তিন মাস

কেনাকাটা

কেনাকাটা20 hours ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা3 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা4 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা5 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

নজরে