Connect with us

দেশ

জলসংকটে চেন্নাই, বিক্ষোভ প্রদর্শনের অনুমতি দিল না পুলিশ

চেন্নাই: এক দিকে তীব্র জলসংকটে জেরবার চেন্নাইয়ের সাধারণ মানুষ। অন্য দিকে এই কারণে কেউ বিক্ষোভ দেখাতে চাইলে তার অনুমতিও দিচ্ছে না পুলিশ। সব মিলিয়ে গোটা জলসংকট পরিস্থিতিকে আরও ঘোরালো করে তোলার বিতর্কে তামিলনাড়ু সরকার।

জলসংকটের বিরুদ্ধে প্রতিবাদসভার আয়োজন করার পরিকল্পনা করেছিল তামিলনাড়ুর একটি এনজিও। শুধু চেন্নাই নয়, তামিলনাড়ুর অন্য অঞ্চলেও বিক্ষোভ দেখানোর কথা ছিল তাদের। কিন্তু চেন্নাইয়ের বিক্ষোভের ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে পুলিশ। গত রবিবার এই বিক্ষোভ দেখানোর কথা থাকলেও তাতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে চেন্নাই পুলিশের বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে মাদ্রাজ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে তারা।

আরও পড়ুন বিশেষ পদক্ষেপ আন্টিগার, মেহুল চোক্সিকে নিয়ে হঠাৎ আশার আলো

তবে পুলিশের বাধাবিপত্তি তোয়াক্কা না করেই পালানিস্বামী সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ আরও বাড়িয়েছে বিরোধী ডিএমকে। উল্লেখ্য, জলসংকট থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য চেন্নাইয়ের বিভিন্ন জায়গায় যজ্ঞের আয়োজন করেছে এআইএডিএমকে। এই যজ্ঞকে এক হাত নিয়ে ডিএমকে নেতা স্টালিন বলেন, “জলের জন্য নয়, সরকার বাঁচিয়ে রাখার জন্যই এই যজ্ঞ করছে সরকার।”

মজার ব্যাপার, চেন্নাই তীব্র জলসংকটে ভুগলেও মুখ্যমন্ত্রী পালানিস্বামী কিন্তু বলে আসছেন, যে জলের অবস্থা আদৌ ততটা করুণ নয়। এর পেছনে সংবাদমাধ্যম এবং বিরোধীদের চক্রান্তই দেখছেন তিনি।

দেশ

দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড, তবে মৃত্যুহারে উল্লেখযোগ্য পতন

স্বস্তি দিচ্ছে মৃত্যুহারের বড়োরকমের পতন। বর্তমানে সেই হার নেমে এসেছে ২.৬৩ শতাংশে।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এক দিনে সংক্রমিত হলেন ২৮,৭০১ জন। অর্থাৎ আক্রান্তের সংখ্যায় দৈনিক রেকর্ড হল সোমবার। যদিও মৃত্যুহার উল্লেখযোগ্য ভাবে কমে গিয়েছে। পাশাপাশি স্বস্তি দিচ্ছে সুস্থতার হারও।

দেশের করোনা-তথ্য

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) সোমবারের হিসেব বলছে, এই মুহূর্তে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮ লক্ষ ৭৮ হাজার ২৫২। এর মধ্যে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৩ লক্ষ ১ হাজার ৬০৯। সুস্থ হয়েছেন ৫ লক্ষ ৫৩ হাজার ৪৭০ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৩,১৭৪ জনের।

অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংক্রমণের পাশাপাশি সুস্থ হয়েছেন ১৮,৮৪৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫০০ জনের।

বর্তমানে ভারতে সুস্থতার হার রয়েছে ৬৩.০১ শতাংশে। তবে স্বস্তি দিচ্ছে মৃত্যুহারের বড়ো রকমের পতন। বর্তমানে সেই হার নেমে এসেছে ২.৬৩ শতাংশে।

দিল্লিতে কমছে সংক্রমণ, বাড়ছে সুস্থতা

গোটা দেশের কাছেই এখন মডেল হয়ে উঠেছে দিল্লি (Delhi)। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা লক্ষাধিক হলেও দিন দিন রাজধানীতে কমছে নতুন সংক্রমণ। একই সঙ্গে বাড়ছে সুস্থতা। দিল্লিতে এই মুহূর্তে সুস্থতার হার ৭৯.৯৭ শতাংশ হয়ে গিয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা আশা করছেন, দিল্লির বর্তমান প্রবণতা যদি আরও দেড় থেকে দুই সপ্তাহ চলে, তা হলে কোভিড কার্ভ সমান তথা ‘ফ্ল্যাটেন’ হয়ে যাবে সেখানে।

যে রাজ্যগুলি এখন মূল চিন্তার কারণ

বর্তমানে, মহারাষ্ট্র, দিল্লি বা তামিলনাড়ুর থেকেও বেশি চিন্তা রয়েছে বেশ কয়েকটি রাজ্যকে নিয়ে। তাদের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গও পড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এ রাজ্যে ১৫৬০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, যা খুবই উদ্বেগজনক।

পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও তেলঙ্গানা, কর্নাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, অসম, বিহার চিন্তা বাড়াচ্ছে। এই পাঁচ রাজ্যেই গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। কর্নাটকে তো আড়াই হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন।

তবে উত্তরপ্রদেশে রোগী-বৃদ্ধির হার কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

নমুনা-পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ১ লক্ষ ১৯ হাজার ১০৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মত এক কোটি ১৮ লক্ষ ৬ হাজার ২৫৬টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে দেশে।

Continue Reading

দেশ

কেরল সোনা পাচারকাণ্ড: এনআইএ-র হাতে গ্রেফতার স্বপ্না সুরেশ, উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

টানা ছ’দিন ধরে চলে ‘লুকোচুরি’ খেলা।

ওয়েবডেস্ক: বেঙ্গালুরু থেকে কেরল সোনা পাচারের ঘটনায় মূল দুই অভিযুক্ত স্বপ্না সুরেশ (Swapna Suresh) ও তাঁর সঙ্গী সন্দীপ নায়ারকে গ্রেফতার করেছে এনআইএ (National Investigation Agency)। শনিবার রাতে তাঁদের আটক করার পর এ দিন কোচিতে তাঁদের হেফাজতে নেয় তদন্তকারী সংস্থা।

গত শুক্রবার তদন্তভার হাতে নেওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই গত শনিবার রাতে স্বপ্না এবং সন্দীপ নায়ারকে (Sandeep Nair) আটক করে এনআইএ। এই দু’জন ছাড়াও কেরল সোনা পাচারের ঘটনায় (Kerala gold smuggling case) সরিৎ কুমার (আগেই গ্রেফতার) এবং ফজিল ফরিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এনআইএ তাঁদের বিরুদ্ধে ১৯৬৭ সালের বেআইনি কার্যকলাপ (প্রতিরোধ) আইনের ১৬, ১৭ এবং ১৮ ধারায় মামলা দায়ের করেছে। তাঁদের মারফত মোটা অঙ্কের অর্থ সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে ব্যবহার করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে ইতিমধ্যেই।

তদন্তের সূত্রপাত

গত ৫ জুলাই কোচি (Kochi) শুল্ক দফতর বিমানবন্দর থেকে প্রায় ১৫ কোটি টাকা মূল্যের ৩০ কেজি সোনা (২৪ ক্যারাট) আটক করে। প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, সংযুক্ত আরব আমিরশাহি (UAE) থেকে কূটনীতিবিদদের জিনিসপত্রের সঙ্গে লুকিয়ে ওই সোনা নিয়ে আসা হয়।

তিরুঅনন্তপুরমে (Thiruvananthapuram) সংযুক্ত আরব আমিরশাহির কনস্যুলেটের এক প্রাক্তন আধিকারিকের ঠিকানায় ওই সোনা পাঠানো হয়েছিল। এই ঘটনায় স্বপ্নার নাম উঠে আসে।

সোনা পাচারের ঘটনায় স্বপ্নার নাম উঠে আসার পর থেকেই তিনি নিখোঁজ ছিলেন। হদিশ মিলছিল না সন্দীপেরও। বেঙ্গালুরু থেকে ধৃত দু’জনকে এ দিন কোচিতে এনআইএ-র কার্যালয়ে পেশ করা হয়। এর আগে টানা ছ’দিন ধরে চলে ‘লুকোচুরি’ খেলা।

কে এই স্বপ্না?

*খাতায়-কলমে জন্ম ৪ জুন, ১৯৮৪।

*ভারতীয় বংশোদ্ভূত আরব আমিরশাহির বাসিন্দা।

*শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতকস্তর পর্যন্ত। তবে বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের জাল ডিগ্রি রয়েছে বলে অভিযোগ।

*এয়ার ইন্ডিয়ান স্যাটস-এর এইচআর এগজিকিউটিভ হিবেসে যোগ দেন ২০১৩ সালে।

*আরবি ভাষা জানার সুবাদে ২০১৯ সালে যোগ দেন কনস্যুলেট-জেনারেলের অফিসে।

*বর্তমানে কনস্যুলেট-জেনারেল বিভাগের প্রাক্তন এগজিকিউটিভ সেক্রেটারি স্বপ্না।

*স্বপ্নার বিরুদ্ধে উপসাগরীয় দেশ থেকে সোনা নিয়ে আসার অভিযোগ রয়েছে।

*স্বপ্নার সঙ্গে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারই বিজয়নের প্রধান সচিব এম শিবশঙ্করের সঙ্গে যোগসূত্র পাওয়া গিয়েছে।

*কেরলের সরকারি দফতরে ছিল অবাধ বিচরণ। এমনকী মুখ্যমন্ত্রী পিনারই বিজয়নের (Pinarayi Vijayan) কার্যালয়েও তাঁর ঘনঘন যাতায়াত ছিল বলে জানা যায়।

*খাতায়-কলমে অবিবাহিত উল্লেখ করলেও সূত্রের খবর, দু’বার বিয়ে হয়েছে স্বপ্নার। একটি কন্যাসন্তানও রয়েছে।

রাজনৈতিক যোগসাজশের অভিযোগ

কেরলের বিরোধী দলগুলি অভিযোগ করেছে, মুখ্যমন্ত্রী কার্যালয়ের সঙ্গে স্বপ্নার যোগসাজশ রয়েছে। ফলে তাঁকে আত্মগোপনের জন্য সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। যদিও স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। বিরোধী দলের বিক্ষোভের মধ্যে একজন আইএএস কর্মকর্তাকে মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে সরিয়ে নিয়ে তথ্যপ্রযুক্তিসচিব পদে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

তবে এখানেই শেষ নয়, কেরল কংগ্রেস এবং বিজেপির তরফে অভিযোগ করা হয়েছে, করোনাভাইরাস লকডাউনের মধ্যেই স্বপ্নাকে কেরল থেকে বেঙ্গালুরু পালাতে সাহায্য করেছিলেন পুলিশের উপর মহল।

শুল্ক দফতরের চাঞ্চল্যকর তথ্য

শুল্ক দফতর বলেছে. এখন পর্যন্ত সংগৃহীত তথ্য থেকে প্রমাণিত হয়েছে যে স্বপ্না সুরেশ কূটনৈতিক সুরক্ষার মোড়ক ব্যবহার করে সরকারি সংস্থা এবং শুল্ক বিভাগের সঙ্গে প্রতারণা করে ভারতে প্রচুর পরিমাণে সোনা পাচারের কাজে জড়িত এক চক্রের মূল সদস্য। তিনি আরও বেশ কিছু ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। চোরাচালানের কাজটি সহজ করার জন্য নিজের প্রভাব খাটিয়ে সক্রিয় ভাবে অংশ নিয়েছিলেন।

Continue Reading

দেশ

ঘোড়া আস্তাবল থেকে পালালে তবেই কংগ্রেসের ঘুম ভাঙবে? সচিন পায়লট প্রসঙ্গে বিস্ফোরক মন্তব্য কপিল সিবালের

দল কখন জেগে উঠবে, তা নিয়েই কঠিন প্রশ্ন তুলে দিলেন সিব্বল।

ওয়েবডেস্ক: বিজেপির বিরুদ্ধে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌতের (Ashok Gehlot) সরকার ভেঙে দেওয়ার চক্রান্তের অভিযোগ তুলেছিলেন গত শনিবার। রবিবার কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতা কপিল সিবাল (Kapil Sibal) সেই মন্তব্যের রেশ ধরেই দলকে ‘খোঁচা’ দিলেন।

কংগ্রেস যদি সংকটের দ্রুত সমাধান চায়, তা হলে দল কখন জেগে উঠবে, তা নিয়েই কঠিন প্রশ্ন তুলে দিলেন সিব্বল।

টুইটারে বর্যীয়ান কংগ্রেস নেতা তথা সুপ্রিম কোর্টের দুঁদে আইনজীবী লিখেছেন, “আমাদের দলকে নিয়ে চিন্তিত। ঘোড়া আস্তাবল থেকে পালিয়ে যাওয়ার পরই কি আমাদের ঘুম ভাঙবে”।

সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ার কারণে উপ-মুখ্যমন্ত্রী সচিন পায়লট (Sachin Pilot) অনুগামী বিধায়কদের নিয়ে দল ছাড়তে পারেন।

গত শনিবার কংগ্রেস বিধায়কদের টাকার বিনিময়ে কেনার অভিযোগ তুলেছিলেন গহলৌত। এ ব্যাপারে স্পেশাল অপারেশন গ্রুপ ঘোড়া কেনাবেচায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে। তলব করা হয়েছে সচিনকেও। রাজ্যসভার ভোটের আগে বিধায়ক কেনাবেচা প্রসঙ্গে চিফ হুইপ মহেশ জোশীর অভিযোগের ভিত্তিতেই ওই তদন্ত চলছে বলে জানা যায়।

কিন্তু বিষয়টিতকে যে খোদ কংগ্রেস হাইকমান্ডও ভালো চোখে দেখছে না, তার ইঙ্গিত মিলেছে কংগ্রেসের দলীয় সূত্রে।

আরও পড়তে পারেন: কর্নাটক, মধ্যপ্রদেশের পর কংগ্রেসের হাতছাড়া হতে পারে আরও এক রাজ্য?

আরও পড়তে পারেন: সংকটে রাজস্থানের কংগ্রেস সরকার! জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার পথে সচিন পায়লট?

তবে রাজস্থান কংগ্রেসের তরফে দাবি করা হয়েছে, সাম্প্রতিক ঘটনায় সরকারের গায়ে আঁচড় পড়বে না। রবিবার রাত ৯টার সময় পরিষদীয় দলের বৈঠক ডেকেছেন মুখ্যমন্ত্রী। ওই বৈঠকে সচিনকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। দলের এক প্রথমসারির নেতা জানিয়েছেন, “মধ্যপ্রদেশের মতো পরিস্থিতি এখানে বরদাস্ত করা হবে না”।

Continue Reading
Advertisement
রাজ্য1 min ago

উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির দাপট কিছুটা কমলেও স্বস্তি দিচ্ছে না আগামী তিন দিনের পূর্বাভাস

দেশ33 mins ago

দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড, তবে মৃত্যুহারে উল্লেখযোগ্য পতন

বিদেশ58 mins ago

কমদামী ও সহজলভ্য দুই ওষুধের সংমিশ্রণেই কমছে করোনার মারণ ক্ষমতা?

বিদেশ2 hours ago

রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়াল সফল, দাবি বিজ্ঞানীদের

কলকাতা2 hours ago

রবিবার রাতের প্রবল বৃষ্টিতে কলকাতার বিস্তীর্ণ অঞ্চল জলমগ্ন

ক্রিকেট10 hours ago

ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তনে ঐতিহাসিক জয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের

বাংলাদেশ13 hours ago

জাল করোনা-শংসাপত্র চক্রের অন্যতম পাণ্ডা ধৃত ও চাকরি থেকে বরখাস্ত

রাজ্য14 hours ago

রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ হাজার পার, কমছে মৃত্যুহার

দেশ1 day ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৮৬৩৭, সুস্থ ১৯২৩৫

দুর্গা পার্বণ2 days ago

আজও ভিয়েন বসিয়ে হরেক রকম মিষ্টি তৈরি হয় চুঁচড়ার আঢ্যবাড়ির দুর্গাপুজোয়

ফুটবল3 days ago

এটিকে-মোহনবাগানের নতুন লোগো প্রকাশিত, জার্সির রঙ সবুজমেরুনই

কলকাতা2 days ago

সক্রিয় রোগীর নিরিখে এই মুহূর্তে কলকাতার অবস্থান কত নম্বরে?

শিক্ষা ও কেরিয়ার3 days ago

প্রকাশিত হল আইসিএসই এবং আইএসসি ফলাফল, মিলল না মেধা তালিকা!

atm
প্রযুক্তি3 days ago

এটিএম ব্যবহারের সময় কার্ড ক্লোনিং ডিভাইসগুলি থেকে সতর্ক থাকুন

দেশ3 days ago

শারীরিক দুরত্ব ভেঙে মানবিক দায়িত্ব পালন

Shaktikanta Das
দেশ2 days ago

কোভিড-১৯ স্বাস্থ্য এবং অর্থনীতির সামনে শেষ একশো বছরের সব থেকে বড়ো সংকট: আরবিআই গভর্নর

কেনাকাটা

কেনাকাটা4 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা6 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা7 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা1 week ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

নজরে