chhattisgarh vote
ভোট চলছে ছত্তীসগঢ়ে। ছবি এএনআই।

রায়পুর: রক্তাক্ত হল ছত্তীসগঢ়ের প্রথম দফার নির্বাচন। নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হল পাঁচ মাওবাদী। ঘটনায় আহত হয়েছেন কোবরা বাহিনীর পাঁচ কমান্ডো। সব মিলিয়ে ভয়ের আবহেই শেষ হল ছত্তীসগঢ়ে প্রথম দফার নির্বাচন।

মোট ৫৮ শতাংশ ভোট পড়েছে প্রথম দফার এই নির্বাচনে। এর মধ্যে মাওবাদী অধ্যুষিত বস্তার এবং দান্তেওয়াড়ায় ভোট পড়েছে যথাক্রমে ৫৮ এবং ৪৯ শতাংশ।

কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যেই এ দিন ছত্তীসগঢ় বিধানসভা নির্বাচনে প্রথম দফায় মাওবাদী অধ্যুষিত ১৮টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ পর্ব শুরু হয়। তার আগে ভোরের দিকে দন্তেওয়াড়া অঞ্চলে নকশালরা বিস্ফোরণ ঘটায়। তবে তাতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

সোমবার সকাল ৭টায় ভোট নেওয়া শুরু হয় ১০টি কেন্দ্রে। বাদবাকি ৮টি ভোট নেওয়া শুরু হয় এক ঘণ্টা পরে। প্রথম দফার ভোটে ১৯০ জন প্রার্থী রয়েছেন। তার মধ্যে সব চেয়ে বেশি প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন রাজনন্দগাঁও কেন্দ্রে। এখানে লড়ছেন ৩০ জন। আর সব চেয়ে কম প্রার্থী লড়ছেন বস্তার আর কোন্ডাগাঁও কেন্দ্রে, ৫ জন করে।

আরও পড়ুন নীতীশ কুমারের বিরুদ্ধে বিহারে প্রধান মুখ কে? জানালেন কানহাইয়া কুমার

মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ও পি রাওয়াত জানান, নিরাপত্তা নিশ্ছিদ্র করতে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ৯০০ ভোটকর্মীকে হেলিকপ্টারে এবং ১৬৫০০ ভোটকর্মীকে সড়কপথে ভোটকেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

এ দিন ভোর সাড়ে ৫টা নাগাদ মাওবাদীরা নিরাপত্তাবাহিনী ও ভোটকর্মীদের লক্ষ করে টুমাকপল-নায়ানর রোডে বিস্ফোরণ ঘটায়। কিন্তু কেউ হতাহত হননি বলে এআইজি (অ্যান্টি-নকশাল অপারেশন) দেবনাথ জানান। তিনি বলেন বিস্ফোরণে কারও কোনো ক্ষতি হয়নি। নিরাপত্তাকর্মীরা ও ভোটকর্মীরা নিরাপদেই কাটেকল্যাণ থানার অধীন ১৮৩ নম্বর পোলিং বুথে পৌঁছে গিয়েছেন। তবে বিজাপুরের ঘটনায় পাঁচ কোবরা কমান্ডো আহত হয়েছেন বলে খবর। এই ঘটনায় পাঁচ জন মাওবাদীরও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here