ছত্তিসগড় : এখনও পর্যন্ত তামিলনাড়ু আর রাজস্থানেই কেবলমাত্র তৃতীয় লিঙ্গের কর্মী পুলিশবাহিনীতে নিয়োগ করা হয়েছে। এ বার তালিকায় নাম তুলতে চলেছে ছত্তীসগঢ়ও।

রাজ্য নিয়োগ পদ্ধতির অধীনে তৃতীয় লিঙ্গের কর্মী পুলিশবাহিনীতে নিয়োগ করা হবে। পরবর্তী দু’ মাসের মধ্যেই ছত্তিসগড় রাজ্য পুলিশে এই নিয়োগ পদ্ধতি সম্পন্ন হবে। এই নিয়োগ হবে সাধারণ নিয়োগ পদ্ধতি মেনেই। তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মৌলিক অধিকার দানের ক্ষেত্রে সুপ্রিমকোর্টের নির্দেশ মেনেই এই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

স্টেট অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর জেনারেল অব পুলিশ পবন দেও বলেন, বাধ্যতামূলক ভাবে লিখিত আর শারীরিক পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে তাঁদেরও। এই নিয়োগ করা হবে মাওবাদী মোকাবিলার জন্য। মাওবাদীদের সঙ্গে লড়াইয়ের সময়ে প্রয়োজন অনুযায়ী তাঁদের নামানো হবে।  ছত্তীসগঢ়ের ২৭টি জেলা থেকে মোট ৩৫ হাজার কনস্টেবল নিয়োগ করা হবে। এর মধ্যে ১৭টি জেলাই মাও অধ্যুষিত এলাকায়।

পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই কনস্টেবলদেরও মাওবাদীদের সঙ্গে লড়তে হতে পারে। তাঁদের জন্য শারীরিক মাপঝোখ, উচ্চতা, ওজন নির্দিষ্ট করা হয়েছে। বয়সসীমা নির্ধারত হয়েছে ২৮ বছর।

এই রাজ্যের তৃতীয় লিঙ্গ সম্প্রদায় প্রথম থেকেই অন্যান্য পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায় (ওবিসি)-এর অন্তর্ভুক্ত। তাঁদের জন্য শিক্ষা আর চাকরির ক্ষেত্রে ১৫% আসন সংরক্ষিত।

সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই নিয়োগে ওই সম্প্রদায়ের জন্য আশার আলো। তাদের আর নিজের পরিচয় লুকিয়ে রাখতে হবে না। তারাও মাথা উঁচু করে বাঁচবেন। মাওবাদী ঘেরা এই সব জায়গায় এই সম্প্রদায়ের মানুষের অবস্থা খুবই খারাপ। ফলে এই সুযোগ তাঁদের কাছে আশীর্বাদের মতো।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here