Bailadila

ওয়েবডেস্ক: ছত্তীসগঢ়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল মঙ্গলবার দান্তেওয়াড়ার বাইলাডিলা পাহাড়ে লোহার আকরিক খনি উৎপাদন সম্পর্কিত সমস্ত রকমের কাজ বন্ধের আদেশ দিলেন। রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ন্যাশনাল মিনারেল ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (এনএমডিসি) এবং ছত্তীসগঢ়ের রাজ্য মিনারেল ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (সিএমডিসি)-র যৌথ উদ্যোগে এই প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গত পাঁচ দিন ধরে আদিবাসীদের অনির্দিষ্টকালীন অবস্থান বিক্ষোভের জেরে পিছু হঠতে হল সরকারকে।

স্থানীয় আদিবাসীরা প্রথম থেকেই দাবি করে এসেছেন, বাইলাডিলা পাহাড়ের উপর তাদের আরাধ্য দেবীর মন্দিরটি অবস্থিত এবং স্থানটি উপজাতিদের বিশ্বাসের সঙ্গে ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে রয়েছে। ফলে ওই জায়গায় খননকাজ তারা কোনো মতেই করতে দেবে না।

আদিবাসীদের প্রতিনিধি হিসাবে বস্তারের কংগ্রেস সাংসদ দীপক বৈইজের সঙ্গে এ দিন বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল। এর পরই সরকারি নির্দেশিকা জারি করে প্রকল্পের কাজ বন্ধের কথা জানানো হয়।

ছত্তীসগঢ় সরকারের জনসংযোগ আধিকারিক তরণপ্রকাশ সিনহা জানান, অবিলম্বে গাছ কাটা বন্ধ করতে হবে। একই সঙ্গে এলাকায় অবৈধ গাছ কাটার তদন্ত করা হবে। একই সঙ্গে ২০১৪ সালে গ্রামসভায় গৃহীত অভিযোগগুলিও খতিয়ে দেখা হবে। কেন্দ্রের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রক এবং বিভাগের কাছে এই এলাকায় খননের অনুমতি দেওয়ার বিষয়েও জানতে চাওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, গত পাঁচ দিন ধরে অনির্দিষ্টকালীন অবস্থানে বসেছিলেন আদিবাসীরা। সংযুক্ত পঞ্চায়েত সমিতির ব্যানারে আদিবাসীদের সেই প্রতিবাদ আন্দোলনের মুখেই পিছু হঠল সরকার।

প্রসঙ্গত, গত বছর এনএমডিসি এবং সিএমডিসির যৌথ উদ্যোগ এনসিএল এই বাইলাডিলার এই খননকাজের বরাত দেয় আদানি এন্টারপ্রাইজ লিমিটেডকে। তখন রাজ্যে ছিল বিজেপি সরকার।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here