ধর্ষণে অভিযুক্ত প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী চিন্ময়ানন্দ গ্রেফতার, জেল হেফাজতের নির্দেশ

ওয়েবডেস্ক: ১৪ দিনের জেল হেফাজতে পাঠানো হল ধর্ষণে অভিযুক্ত প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী চিন্ময়ানন্দকে। নির্যাতিতা তরুণীর আদালতে বয়ানের পর শুক্রবার সকালেই তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে তাঁর অভিযোগের সমর্থনে গত শনিবার তদন্তকারী দল সিটের কাছে ৪৩টি ভিডিও সংবলিত একটি পেনড্রাইভ পেশ করেন ওই তরুণী, তাঁর আইন কলেজের ছাত্রী। তাঁর আগের দিন ওই ছাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এবং চিন্ময়ানন্দের শোয়ার ঘর থেকে প্রমাণ সংগ্রহ করে।

উত্তরপ্রদেশের ওই নির্যাতিত ছাত্রী প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে দিল্লি পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করেছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগের পাশাপাশি ব্ল্যাক মেলের অভিযোগের প্রমাণ হিসাবেই সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে গঠিত বিশেষ তদন্তকারী দলের হাতে ওই পেন ড্রাইভটি তুলে দেন ছাত্রী। তাঁর অভিযোগ, স্নানের দৃশ্যের ভিডিও তুলে বিজেপি নেতা তাঁকে ব্ল্যাক মেল করে ধর্ষণ করতেন।

আরও পড়ুন ফেসবুক বিক্রি করে দিচ্ছেন? ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাতে কী বললেন জুকেরবার্গ

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত আগস্ট মাসে চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে অপহরণের অভিযোগ তুলেছিল নির্যাতিতার পরিবার। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের সাহায্য না পেয়ে সুপ্রিম কোর্টে দ্বারস্থ হয়েছিলেন ছাত্রীটির বাবা। পরে পুলিশ জানায়, রাজস্থানে তাঁর খোঁজ মিলেছে। তাঁকে অপহরণ করা হয়নি। ওই তরুণী তাঁর বন্ধুর সঙ্গেই ছিলেন।

গত ১২ সেপ্টেম্বর রাতে টানা সাত ঘণ্টা ধরে চিন্ময়ানন্দকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। তার এক সপ্তাহ পর উত্তরপ্রদেশ পুলিশ অটলবিহারী বাজপেয়ী সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রীকে গ্রেফতার করল।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.