fastag

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ১ জানুয়ারি নয়, ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে বাধ্যতামূলক করা হবে ফাসট্যাগ। করোনার আবহে গাড়ির মালিকদের কিছুটা হলেও স্বস্তি দিল কেন্দ্র। ফলে গাড়িতে ফাসট্যাগ (FASTag) রেজিস্ট্রেশন করাতে আরও প্রায় দেড় মাস সময়সীমা বাড়ানো হল।

কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণ মন্ত্রকের তরফে বৃহস্পতিবার একটি বিবৃতিতে এই খবর দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে বলা হয়েছে, বর্তমানে ন্যাশনাল হাইওয়ে অথরিটি অব ইন্ডিয়া (NHAI) ৭৫–৮০ শতাংশ অর্থ FASTag থেকে অর্জন করে। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে তা ১০০ শতাংশে নিয়ে যাওয়া হবে। মূলত নগদহীন লেনদেনে উৎসাহ দিতেই কেন্দ্রীয় পরিবহণ মন্ত্রকের এই উদ্যোগ।

২০১৬-এ ফাসট্যাগের আত্মপ্রকাশ

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে প্রথম বার ফাসট্যাগের (FASTag) আত্মপ্রকাশ ঘটে। প্রথম বছরে এক লক্ষ গাড়িতে এই ফাসট্যাগ ইস্যু করা হয়। পরের বছরই সেই সংখ্যা বেড়ে সাত লক্ষে পৌঁছে যায়। ২০১৮ সালে ৩৪ লক্ষেরও বেশি ফ্যাসট্যাগ ইস্যু করা হয়।

কিন্তু আগেই কেন্দ্র জানিয়ে দেয় যে আগামী বছর ১ জানুয়ারি থেকে প্রতিটি চার-চাকা গাড়িতে ফাসট্যাগের স্টিকারটি থাকতেই হবে। ২০১৭ সালের পয়লা ডিসেম্বরের আগে বিক্রি হওয়া গাড়িও এই তালিকার আওতাভুক্ত বলে স্পষ্ট করে দেন কেন্দ্রীয় পরিবহণ মন্ত্রী নীতিন গড়কড়ি। সেই মেয়াদই এ বার বাড়িয়ে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত করা হল।

ফাসট্যাগ সম্পর্কে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

একটি ফাসট্যাগের মেয়াদ পাঁচ বছর। কেনার সময় এককালীন খরচ ২০০ টাকা। এর পর প্রয়োজন মতো এটা রিচার্জ করা যায়। প্রতিটি চার চাকার গাড়ির জন্য ফাসট্যাগ বাধ্যতামূলক।

গাড়ির সামনের দিকে কাচে ফাসট্যাগ স্টিকারটি লাগাতে হয়। সাধারণত, গাড়ির ভিতর থেকে উইন্ডশিল্ডের উপরের দিকে মাঝখানে স্টিকারটি আটকাতে হয় (রিয়ার-ভিউ মিরর-এর ঠিক পিছনে)।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

১ জানুয়ারি থেকে সমস্ত গাড়িতে বাধ্যতামূলক ‘ফাসট্যাগ’, না থাকলে দ্বিগুণ টোল ট্যাক্স?

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন