‘কংগ্রেস, জওহরলাল, পাকিস্তান নিয়ে বললেও মূল বিষয়টি এল না প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতায়’

0
Narendra Modi

নয়াদিল্লি: বৃহস্পতিবার লোকসভায় রাষ্ট্রপতির ভাষণের উপর জবাবি ভাষণ দিতে গিয়ে জাতীয় কংগ্রেস, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু, পাকিস্তান ইত্যাদি বিষয় নিয়ে সরব হলেও মূল বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী মোদী এড়িয়ে গিয়েছেন বলে দাবি করলেন রাহুল গান্ধী।

এ দিন লোকসভায় প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে ঘুরেফিরে আসে অনুচ্ছেদ ২৭০ প্রত্যাহার, জম্মু ও কাশ্মীর প্রসঙ্গ, ৭০ বছরের কংগ্রেস জমানা, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত জওহরলাল নেহরুর বেশ কিছু সিদ্ধান্ত, সাম্প্রতিক সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন-সহ বেশ কিছু বিষয়। প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতার কিছুক্ষণের মধ্যেই কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বলেন, “তিনি এত কিছু বললেও মূল বিষয়টিকে এড়িয়ে গিয়েছেন”।

রাহুল বলেন, “বর্তমান সময়ের সব থেকে বড়ো ইস্যু বেকারত্ব এবং কর্মসংস্থান। আমরা প্রধানমন্ত্রীকে একাধিক বার এ বিষয়ে জিঞ্জাসা করেছি, কিন্তু তিনি একটি শব্দও খরচ করেননি। এর আগে অর্থমন্ত্রীও লম্বা বাজেট বক্তৃতা করেছেন, তিনিই এ বিষয়ে কিছু বলেননি”।

রাহুলের অভিযোগ, “প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যই হল দেশের মূল সমস্যা নিয়ে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করা। যে কারণে তিনি কংগ্রেস, জওহরলাল অথবা পাকিস্তান-সহ একাধিক বিষয়ে বক্তব্য রাখলেও মূল ইস্যুটি নিয়ে কিছু বলেননি”।

অধীর চৌধুরীর শারীরিক ভঙ্গি নিয়ে ‘ব্যঙ্গ’ প্রধানমন্ত্রীর

প্রধানমন্ত্রী এ দিন বলেন, অনেকে বলছে, “সিএএ লাগু করতে এত তাড়াহুড়ো কেন? দেশকে যাঁরা টুকরো টুকরো করার চেষ্টা করছে, তাঁদের সঙ্গে ছবি তোলেন। ভারতের মুসলমানদের উস্কানোর চেষ্টা করছে পাকিস্তান। কংগ্রেসের চোখে মুসলমানরা শুধুই মুসলিম, আমাদের চোখে এঁরা ভারতীয়। সিএএ-র বিরোধিতা না করলে, কংগ্রেসের আসল রূপ দেখতে পেত না দেশ। দলের জন্য কারা আর দেশের জন্য কারা, সবাই দেখতে পাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার ইচ্ছা অনেকেরই থাকে, কিন্তু কেউ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য দেশকে বিভক্ত করেছেন”।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন