বেঙ্গালুরু: তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পে অন্যতম অগ্রণী সংস্থা কগনিজ্যান্ট টেকনোলজি সল্যুশনস তার মোট কর্মীর ৫ শতাংশকে ছাঁটাই করতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে। সংখ্যাটা ১০ হাজারেরও বেশি। এই ছাঁটাইয়ের যুক্তি হিসাবে বলা হচ্ছে, হয় কর্মীরা ঠিকমতো পারফরম্যান্স করতে পারছেন না কিংবা তাঁদের দক্ষতা ঠিকমতো ম্যাচ করছে না। এ ছাড়া ডিজিটাইজেশন আর অটোমেশনের প্রভাব তো আছেই। ৩১ মার্চ নাগাদ কোম্পানির কর্মীদের কাজের মূল্যায়ন (অ্যাপ্রাইজাল) সম্পূর্ণ হয়ে গেলে বোঝা যাবে ঠিক কত কর্মীকে বসিয়ে দেওয়া হবে।

বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড পত্রিকার খবর, সাধারণত মার্চের শেষে অ্যাপ্রাইজালের পর প্রতিটি আইটি কোম্পানিই তার নীচের দিককার কর্মীদের ১ শতাংশকে নন-পারফর্মেন্সের কারণ দেখিয়ে বসিয়ে দেয়। কিন্তু কগনিজ্যান্ট এখন ঐতিহ্যগত আইটি পরিষেবা ছেড়ে ডিজিটাল পরিষেবার দিকে পা বাড়াচ্ছে। ফলে প্রচুর কাজ এ বার অর্থহীন হয়ে যাবে। ফলে নিজের কর্মীসম্পদের অপ্রয়োজনীয় অংশ ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটছে কোম্পানি।      

কোম্পানির এক কর্মকর্তা বলেছেন, ” খদ্দেরদের প্রয়োজন মেটানো এবং ব্যবসার লক্ষ্যে পৌঁছোনো কোম্পানিকে সুনিশ্চিত করতে হয়। তার জন্য কর্মী পরিচালনার কৌশল হিসাবে কোম্পানিকে নিয়মিত পর্যালোচনা করে দেখতে হয় যথাযথ দক্ষতার মাপকাঠি অনুসারে কর্মীরা পারফর্ম করছেন কিনা।” বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এরই পাশাপাশি বিভিন্ন ভূমিকায় উপযুক্ত লোক নিয়ে কোম্পানি সব সময়েই কর্মক্ষমতা বাড়ানোর চেষ্টা করে। 

২০১৬-এর ডিসেম্বরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই কোম্পানিটির বিশ্ব জুড়ে কর্মীসংখ্যা ছিল ২ লক্ষ ৬০ হাজার। এর মধ্যে ৭৫ শতাংশ ছিল ভারতে। ২০১৫-য় এই কোম্পানিটি ১ শতাংশ কর্মীকে বসিয়ে দেয় এবং ২০১৬-য় ২ শতাংশ কর্মীকে ছাঁটাই করে বলে ‘দ্য হিন্দু বিজনেস লাইন’ জানিয়েছে। 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন