mayawati yogi adityanath
মায়াবতী এবং যোগী আদিত্যনাথ।

ওয়েবডেস্ক: সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক মন্তব্যের জেরে নির্বাচন কমিশনের কোপের মুখে উত্তরপ্রদেশের দুই হেভিওয়েট, মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এবং প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মায়াবতী।

ভোটের প্রচারে বেরিয়ে ঘৃণা-ভাষণের জন্য যোগী এবং মায়াবতীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে প্রচারে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা বসাল কমিশন। ১৬ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ৭২ ঘণ্টার জন্য যোগী আদিত্যনাথের প্রচারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কমিশন। ওই একই সময় থেকে মায়াবতীর উপর নিষেধাজ্ঞা বসেছে ৪৮ ঘণ্টার। ওই নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন কোনো জনসভা ও পথসভা করতে পারবেন না তাঁরা। সাক্ষাৎকার দিতে পারবেন না সংবাদমাধ্যমে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও কোনো মন্তব্য করতে পারবেন না।

আরও পড়ুন বিজেপির প্রতি পক্ষপাতিত্ব, দূরদর্শনের ওপরে ক্ষুব্ধ কমিশন

ভোটের মরসুমে রাজনীতিকদের ঘৃণা ভাষণ নিয়ে সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেন হরপ্রীত মনসুখানি নামের এক প্রবাসী ভারতীয়। তাতে ধর্ম ও জাতি বিদ্বেষপূর্ণ মন্তব্যের জন্য রাজনৈতিক দল ও নেতাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের আর্জি জানান তিনি। সেই মামলার শুনানিতে সোমবার নির্বাচন কমিশনকে তিরস্কার করে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ। না ঘুমিয়ে তাদের কর্তব্য পালন করার কথা বলে শীর্ষ আদালত।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, সুপ্রিম কোর্টের কাছে এই ভাবে তিরস্কৃত হওয়ার পরেই তড়িঘড়ি নড়েচড়ে বসে কমিশন। সঙ্গে সঙ্গে এই শাস্তির ঘোষণা করে তারা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here