বারানসী: প্রিয়ঙ্কা গান্ধীকে নিয়ে যাবতীয় জল্পনার অবসান ঘটাল কংগ্রেস। গান্ধী পরিবারের মেয়ে নয়, স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তির ওপরেই ভরসা রাখল গ্র্যান্ড ওল্ড পার্টি। বারাণসী কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে প্রার্থী করা হল অজয় রাইকে।

গত জানুয়ারিতে প্রিয়ঙ্কা গান্ধী রাজনীতিতে সরাসরি যোগ দেওয়ার পর থেকেই জল্পনা শুরু হয়ে যায় মোদীর বিরুদ্ধে তাঁর প্রার্থী হওয়া নিয়ে। প্রিয়ঙ্কার রোড-শোয়ে ভিড় দেখে সেই জল্পনা আরও বাড়তে শুরু করে। এই বিষয়ে স্বয়ং প্রিয়ঙ্কাই ধোঁয়াশা জিইয়ে রেখেছিলেন। কিন্তু ‘বহিরাগত’ প্রিয়ঙ্কার ওপরে ভরসা না করে স্থানীয় অজয় রাইয়ের ওপরেই ভরসা রেখেছেন কংগ্রেস।

অজয় রাই

আরও পড়ুন ফলপ্রকাশের একমাস আগেই কংগ্রেসকে হারিয়ে দিল বিজেপি!

অজয় রাইকে দলবদলু আখ্যা দেওয়া যেতে পারে। ছাত্ররাজনীতির সময়ে থেকে বিজেপির সঙ্গে সখ্যতা তাঁর। ১৯৯৬ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত বিজেপির টিকিটে টানা তিন বার বিধায়ক হয়েছেন। এর পর ২০০৯ সালে লোকসভায় টিকিট না পেয়ে দল ছাড়েন তিনি। যোগ দেন সমাজবাদী পার্টিতে। এর কয়েক মাসের মধ্যে নির্দল প্রার্থী হিসেবে বিধানসভা উপনির্বাচন জিতে, কংগ্রেসে যোগ দেন তিনি। এর পর কংগ্রেসের টিকিটে ২০১২ সালে ফের একবার বিধায়ক হন তিনি।

তবে পাঁচ বছর আগের স্মৃতি তাঁর সুখকর নয়। সে বারও বারাণসীতে মোদীর বিরুদ্ধে কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছিলেন তিনি। মাত্র ৭.৩৪ শতাংশ ভোট পেয়ে শেষ করেছিলেন তিন নম্বরে। দ্বিতীয় হয়েছিলেন আপের অরবিন্দ কেজরিওয়াল। এ বার কি মোদীকে হারাতে পারবেন তিনি? সে তো ২৩ মে-’ই জানা যাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here