supreme court

নয়াদিল্লি: সুপ্রিম কোর্ট বলেছিল প্রো-টেম স্পিকার বদলের আবেদন যদি গ্রহণ করতে হয়, তা হলে পিছিয়ে যাবে আস্থাভোটের দিন। এর পরেই স্পিকার বদলের দাবি ছাড়ল কংগ্রেস এবং জেডিএস। পাশাপাশি কোনো রকম কারচুপি রুখতে স্থানীয় চ্যানেলে আস্থাভোট সরকারি সম্প্রচারের নির্দেশ দিল আদালত।

শুক্রবার বিধায়ক কেজি বোপাইয়াকে প্রো-টেম স্পিকার হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। তাঁর তত্ত্বাবধানে আস্থা ভোট হলে দুর্নীতির সম্ভাবনা অনেক বেশি, এই কারণ দেখিয়ে ফের সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ হয় কংগ্রেস-জেডিএস। শনিবার সকাল সাড়ে দশটা থেকে সেই মামলার শুনানি ছিল।

যথারীতি স্পিকার বদলের আবেদনের বিরোধিতা করেন কেন্দ্রের সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা এবং কর্নাটক সরকারের আইনজীবী মুকুল রোহতগি। এর পরেই বিচারপতি এসএ বোবডে বলেন, “এই ব্যাপারে রায় দিতে গেলে বোপাইয়ার কথাও আমাদের শুনতে হবে। তবে তার জন্য আস্থা ভোট পিছিয়ে দিতে হবে।”

আস্থা ভোট এখন সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ, এই যুক্তি দিয়েই স্পিকারের বদলের দাবি থেকে সরে আসে কংগ্রেস-জেডিএস। অন্যদিকে আদালত আরও জানায়, “স্বচ্ছতা বজায় রাখার জন্য আস্থা ভোটের সরাসরি সম্প্রচার জরুরি।”

এ দিকে শনিবার সকাল থেকেই কর্নাটক বিধানসভায় পৌঁছতে শুরু করেছেন সব বিধায়করা। ইতিমধ্যেই বিধায়ক হিসেবে শপথ নিয়ে নিয়েছেন সিদ্দারামাইয়া এবং ইয়েদিয়ুরাপ্পা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here