পাঞ্জিম: মহারাষ্ট্রের শিবসেনার মতোই অবস্থা হতে পারত গোয়ার কংগ্রেসের। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বিজেপির ‘কৌশল’ কংগ্রেস নেতৃত্ব বানচাল করে দিয়েছেন বলে দাবি করছেন সে দলের একাংশ। সূত্রের খবর, এ যাত্রায় গোয়ায় কংগ্রেসের দুর্গ বেঁচে গেলেও ‘বিক্ষুব্ধ’দের সঙ্গে বিজেপির যোগাযোগ এখনও বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়নি।

গত রবিবার জানা যায় যে কংগ্রেসের ১১ জন বিধায়কের মধ্যে কমপক্ষে আট জন বিজেপিতে যোগ দিতে চান। সূত্রের দাবি, এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের কাজ চলছে। এ জন্য বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দিগম্বর কামাত।

কংগ্রেস সূত্রের দাবি, গোয়ায় তাদের ছয় বিধায়ককে নেওয়ার ছক কষেছিল বিজেপি। এই বিধায়কদের সঙ্গে ব্যক্তিগত ভাবে যোগাযোগ রেখেছিলেন বিজেপির এক শীর্ষ নেতা। এমনকি, বিধায়ক পিছু ১৫ থেকে ২০ কোটি টাকার প্রস্তাবও দিয়েছিলেন তিনি। তবে শেষ মুহূর্তে দলবদলের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন কয়েক জন বিধায়ক। আর এর জেরেই ওই পরিকল্পনা ভেস্তে যায়।

মাইকেল লোবো ও দিগম্বর কামাতের সঙ্গে বিজেপির আঁতাঁতের অভিযোগ তুলে তাঁদের বিধায়কপদ বাতিল করতে স্পিকারের কাছে আর্জি জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতৃত্ব। যদিও ওই দুই বিধায়ক দাবি করেছেন যে, তাঁরা কংগ্রেসেই রয়েছেন। কংগ্রেস সূত্রে খবর, কয়েক জন বিধায়ককে ‘চোখে চোখে রাখা হচ্ছে’।

অন্য দিকে, কংগ্রেসের অন্দরে অসন্তোষে বিজেপির কোনো ভূমিকা নেই বলে দাবি করেছেন গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সবন্ত।

আরও পড়তে পারেন:

দেশ ছেড়ে পালাতে যাচ্ছিলেন রাজাপক্ষেদের ছোটোভাই, আটকে গেলেন বিমানবন্দরে

ঘুরেফিরে সেই বিজেপি-কেই সমর্থন উদ্ধবেরও, এ বার সাংসদদের চাপ!

সকলের তথ্য দেখতে চায় সিবিআই, ৪৩ হাজার প্রাথমিক শিক্ষককে নথি জমা দেওয়ার নির্দেশ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের

শ্মশান দুর্নীতিতে গ্রেফতার কাঁথির প্রাক্তন পুরপ্রধান সৌমেন্দু অধিকারীর গাড়িচালক

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন