প্রিয়ঙ্কা গান্ধী বঢরার নেতৃত্বেই উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা ভোটে লড়বে কংগ্রেস

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: মহাজোটের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছে সমাজবাদী পার্টি (SP) এবং বহুজন সমাজ পার্টি (BSP)। উত্তরপ্রদেশের আসন্ন বিধানসভা ভোটে একা লড়ার কথা জানিয়ে দিল কংগ্রেস-ও। রবিবার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অজয়কুমার লাল্লু বলেন, কোনো জোট ছাড়াই দল বিধানসভা ভোটে জিতে পরবর্তী সরকার গঠনে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী।

বছর ঘুরলেই উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা ভোট। ২০১৭-র পুনরাবৃত্তি ঘটাতে রণকৌশল সাজাচ্ছে বিজেপি। অন্য দিকে অখিলেশ যাদবের এসপি এবং মায়াবতীর বিএসপি নিজের নিজের মতো করে লড়াইয়ের কথা জানিয়ে দিয়েছে। এ দিকে কংগ্রেসও দীর্ঘ ৩০ বছরের বেশি ব্যবধানে উত্তরপ্রদেশে সরকার গঠনে নিজেদের আত্মবিশ্বাসের কথা জানাচ্ছে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই-এর কাছে এক সাক্ষাৎকারে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, “আমরা প্রিয়ঙ্কা গান্ধী বঢরার (Priyanka Gandhi Vadra) তদারকি এবং নেতৃত্বে আগামী বছরের বিধানসভা ভোটে লড়তে চলেছি। তিন দশক পরে রাজ্যে ফের কংগ্রেস সরকার গঠিত হতে চলেছে”।

তাঁর কথায়, হাওয়া ঘুরে গিয়েছে। প্রিয়ঙ্কার নেতৃত্বে রাজ্যের বিভিন্ন স্তরে কংগ্রেসের সংগঠন আগের তুলনায় আরও শক্তিশালী হয়ে উঠেছে। তিনি স্লোগান তুলেছেন, “বদলাব কি আঁধি হ্যায়, জিসকা নাম প্রিয়ঙ্কা গান্ধী হ্যায় (পরিবর্তনের ঝড় উঠেছে, এর নাম প্রিয়ঙ্কা গান্ধী)”।

[প্রিয়ঙ্কা গান্ধী বঢরা]

তিনি দাবি করেন,” শাসক দল বিজেপির প্রধান প্রতিপক্ষ হিসেবে উঠে এসেছে কংগ্রেস। এটা প্রমাণিত যে, ৪০৩ আসনের বিধানসভায় এসপির ৪৯ জন বিধায়ক থাকলেও মূল বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করছে কংগ্রেস”। তা হলে কি প্রিয়ঙ্কাকেই মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে তুলে ধরবে কংগ্রেস?

এমন প্রশ্নের উত্তরে লাল্লু বলেন, “প্রিয়ঙ্কা এখন রাজ্যে কংগ্রেস মুখ। তিনিই এখন দলের দায়িত্বে রয়েছেন। তাঁর নেতৃত্বেই আমরা ভোটে লড়ব। উত্তরপ্রদেশের মানুষ তাঁর কাছ থেকে অনেক কিছুই প্রত্যাশা করছেন। তাঁর নেতৃত্বেই উত্তরপ্রদেশে ফের সরকার গড়বে কংগ্রেস”।

আরও পড়তে পারেন: বড়ো জয় বিজেপির, উত্তরপ্রদেশের পঞ্চায়েত নির্বাচনে অনেকটাই পিছিয়ে পড়লেন অখিলেশ যাদব!

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন