মেঘালয়ে মুখ্যমন্ত্রীর পাশে থাকার বার্তা দিল কংগ্রেস, তৃণমূল বলল ‘মহা-বেইমানি’

0
মেঘালয়ের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, তথা বর্তমানে তৃণমূল নেতা মুকুল সাংমা।

শিলং: মেঘালয়ে মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমার পাশে থাকার বার্তা দিল কংগ্রেস। গোটা ঘটনাটিকে ‘মহা বেইমানি’ হিসেবে ব্যাখ্যা করেছে তৃণমূল। এমনকি কলকাতায় পুরসভা নির্বাচনে ভোট দেওয়ার পর তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও মেঘালয়ের ঘটনা নিয়ে মুখ খোলেন। তিনি বলেন, ‘‘মেঘালয়ে কংগ্রেস কী করল, সকলে দেখলেন।’’

মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমার সরকারের সমর্থক দলগুলির মধ্যে অন্যতম বিজেপি। কনরাডের দল এনপিপি দীর্ঘদিন ধরেই উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট ‘নর্থ-ইস্ট ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্স’ (নেডা)-এর শরিক।

এই পরিস্থিতিতে শনিবার মেঘালয় কংগ্রেস পরিষদীয় দলের বৈঠকে কনরাড সরকারকে ‘ইস্যুভিত্তিক সমর্থনের’ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পাঁচ কংগ্রেস বিধায়কের পাশাপাশি ওই বৈঠকে প্রদেশ কংগ্রেসের কার্যনির্বাহী সভাপতি আমপারিন লিংডোও হাজির ছিলেন। যদিও তাঁদের ওই সিদ্ধান্তের পিছনে কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বের অনুমোদন রয়েছে কি না, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

গত নভেম্বরে মেঘালয়ের ১৭ জন কংগ্রেস বিধায়কের মধ্যে ১২ জনকে নিয়ে তৃণমূলে যোগ দেন মুকুল। দলত্যাগী ১২ বিধায়কের সদস্যপদ খারিজের দাবিতে মেঘালয়ের স্পিকার মেটবা লিংডোর কাছে আবেদন জমা দেওয়া হয়েছে কংগ্রেসের তরফে। তার ভিত্তিতে দলত্যাগী বিধায়কদের কাছে জবাব তলব করে নোটিস পাঠিয়েছেন স্পিকার।

আরও পড়তে পারেন: 

জব্বর শীত কলকাতায়, এক ধাক্কায় ৪ ডিগ্রি পড়ে তাপমাত্রা নামল এগারোর ঘরে

রাজ্যে কোভিডজয়ীর সংখ্যা ১৬ লক্ষ ছুঁইছুঁই

সোমবার লোকসভায় নির্বাচনী সংস্কার বিল পেশ করবে মোদী সরকার, জানুন কী কী প্রস্তাব রয়েছে

সল্টলেকে শুভেন্দু অধিকারীর বাড়ি ঘেরাও পুলিশের, জানালেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর

পঞ্জাবে ফের ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগ, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গণপিটুনিতে মুত্যু আরও এক যুবকের

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন