করোনাকে ‘করুণা’ দিয়ে প্রতিরোধ করা যেতে পারে: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

0

নয়াদিল্লি: নিজের সংসদীয় কেন্দ্র বারাণসীর সাধারণ মানুষের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে করোনাভাইরাস (Coronavirus) সংক্রমণ প্রতিরোধমূলক আলোচনায় অংশ নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। বুধবার এই আলোচনা চলাকালীন প্রধানমন্ত্রী বলেন, “করোনাকে ‘করুণা’ দিয়ে প্রতিরোধ করা যেতে পারে”।

মোদী বলেন, “আগামী ২১ দিন আমাদের সমস্ত সতর্কতা মূলক পদক্ষেপ মেনে চলতে হবে। একই সঙ্গে করোনার বিরুদ্ধে লড়তে করুণা অথবা সমবেদনাকেও হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করতে হবে”।

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মেনে চলতে হবে। তিনি বলেন, তার মানে এই নয় যে, আমরা মানবিক দিক থেকে দূরত্ব তৈরি করব। তাঁর কথায়, “আমাদের সংকল্প নিতে হবে আগামী ২১ দিন লকডাউন চলাকালীন প্রতিটা দিন ৯টি করে দরিদ্র পরিবারকে সাহায্য করব”।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, “অন্যান্য প্রাণীদের কথাও মাথায় রাখতে হবে। ইতিমধ্যেই তারা খাবারের অভাবে ভুগতে শুরু করেছে। পৃথিবী যখন এমন একটা সংকটের মুখোমুখি হয়, তখন আমরা আশা করতে পারি না, সব কিছু স্বাভাবিক চলবে। কিন্তু সবাইকে নিয়েই বাঁচতে হবে। পশুপ্রাণীদের খাবারের দিকটাও মাথায় রাখতে হবে।”

মোদী বলেন, “চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যপরিষেবা কর্মীরা দিনের ১৮ ঘণ্টা কাজ করছেন। খুব বড়োজোর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হয়তো ২-৩ ঘণ্টার জন্যে তাঁদের বিশ্রামের সময় মিলছে। তাঁদের প্রতি সর্বদা কৃতজ্ঞ থাকতে হবে। এক জন নাগরিক হিসাবে আমাদের কর্তব্য এই মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রশাসনের সঙ্গে সহযোগিতা করা”।

:আরও পড়ুন: কী কারণে করোনাভাইরাসের বেশির ভাগ বলি শুধুমাত্র বয়স্ক অথবা পুরুষরা?

করোনাভাইরাস সংক্রমণের চিকিৎসা পদ্ধতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “করোনাভাইরাসের প্রতিরোধে এখনও পর্যন্ত কোনো ওষুধ নেই। এ ছাড়া চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনো ওষুধ খাবেন না”।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.