Connect with us

দেশ

Corona Update: সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় ফের লক্ষাধিক বৃদ্ধি, তবে সুস্থতার সংখ্যায় বৃদ্ধি আরও বেশি, মৃত্যুহার আরও কমল

সংক্রমণ কমবে কবে? সেটাই এখন প্রশ্ন।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: টেস্ট বেশি হয়েছে, তাই স্বাভাবিক ভাবেই সংক্রমণ অনেক বেশি রেকর্ড হতই। সেটাই হল শনিবার। সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় ফের লক্ষাধিক বৃদ্ধি এসেছে। তবে দৈনিক সুস্থতার সংখ্যায় বৃদ্ধির পরিমাণ আরও বেশি। নতুন সংক্রমণ এবং সুস্থতার সংখ্যা, অতীতের রেকর্ড ভেঙেই চলেছে। মৃতের সংখ্যা অনেকটা বাড়লেও, তার হার কিন্তু কমে যাচ্ছে যা খুব স্বস্তির বিষয়।

সক্রিয় রোগীর বৃদ্ধি এক লক্ষের অনেক বেশি

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) তথ্য অনুযায়ী শনিবার ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ কোটি ৪৫ লক্ষ ২৬ হাজার ৬০৯। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লক্ষ ৩৪ হাজার ৬৯২ জন।

Loading videos...

এ দিন ভারতে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১৬ লক্ষ ৬৭ হাজার ৭৪০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সক্রিয় রোগী বেড়েছে ১ লক্ষ ৯ হাজার ৯৯৭ জন।বর্তমানে দেশে ১১.৫৬ শতাংশ কোভিডরোগী চিকিৎসাধীন।

দৈনিক সংক্রমণের হার বাড়ল

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে টেস্ট হয়েছে ১৪ লক্ষ ৯৫ হাজার ৩৯৭টি। এর বিপরীতে সংক্রমণের হার ছিল ১৫.৯৭ শতাংশ। এই মুহূর্তে মহারাষ্ট্রে সংক্রমণের হার ২৩ শতাংশ রয়েছে। ছত্তীসগঢ়ে সংক্রমণের হার ২৮ শতাংশের আশেপাশে। এ ছাড়াও, দেশের বেশ কিছু অংশে সংক্রমণের হার ভয়াবহ ভাবে বাড়ছে।

এর পরেও একটা কথা বলতেই হয়। গত বছর জুলাই-আগস্টে একটা সময় ভারতের দৈনিক সংক্রমণের হার ১৭ শতাংশে উঠে গিয়েছিল। সংক্রমণের চলতি ঢেউ কিন্তু এখনও সেই জায়গায় চলে যায়নি। তবে অতি দ্রুত সংক্রমণ না কমলে, সেই পরিস্থিতিও চলে আসবে।

সংক্রমণ কোথায় কেমন

মহারাষ্ট্রে সংক্রমণ সম্ভবত থিতু হচ্ছে। সেটা তাদের গত কয়েক দিনের সংক্রমণের গ্রাফটা দেখেই বোঝা যাচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে দৈনিক সংক্রমণ রেকর্ড করেছে ঠিকই, কিন্তু টেস্টও হয়েছিল রেকর্ড পরিমাণে। এর ফলে সে রাজ্যে সংক্রমণের হার ছিল ২৩ শতাংশ। দিন দশেক আগে মহারাষ্ট্রেই এই হার ২৮ শতাংশে চলে গিয়েছিল। বলাই যায় আপাতদৃষ্টিতে একটা জায়গায় পৌঁছে গিয়ে সংক্রমণ আর বাড়ছে না মহারাষ্ট্রে।

কিন্তু দেশের অন্যান্য রাজ্যে সংক্রমণের বৃদ্ধিতে কোনো লাগাম নেই। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ২১ রাজ্যে সংক্রমণ ছিল এক হাজারের ওপরে। দেখে নিন সেগুলিঃ-

১) মহারাষ্ট্র – ৬৩,৭২৯

২) উত্তরপ্রদেশ – ২৭,৩৬০

৩) দিল্লি – ১৯,৪৮৬

৪) ছত্তীসগঢ় – ১৪,৯১৯

৫) কর্নাটক – ১৪,৮৫৯

৬) মধ্যপ্রদেশ – ১১,০৪৫

৭) কেরল – ১০,০৩১

৮) গুজরাত – ৮,৯২০

১০) তামিলনাড়ু – ৮,৪৪৯

১১) রাজস্থান – ৭,৩৫৯

১২) পশ্চিমবঙ্গ – ৬,৯১০

১৩) হরিয়ানা – ৬,২৭৭

১৪) বিহার– ৬,২৫৩

১৫) অন্ধ্রপ্রদেশ – ৬,০৯৬

১৬) পঞ্জাব৩,৮৯১

১৭) ঝাড়খণ্ড ৩,৮৪৩

১৮) তেলঙ্গানা – ৩,৮৪০

১৯) ওড়িশা – ৩,১০৮

২০) উত্তরাখণ্ড– ২,৪০২

২১) জম্মু-কাশ্মীর – ১,১৪৪

সুস্থতার সংখ্যা আরও বাড়ল

দৈনিক সংক্রমণ যে দিন রেকর্ড করল, সে দিন নতুন করে রেকর্ড করে ফেলল দৈনিক সুস্থতার সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সুস্থ হয়েছেন ১ লক্ষ ২৩ হাজার ৩৫৪ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত ভারতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ কোটি ২৬ লক্ষ ৭১ হাজার ২২০ জন। ভারতে সুস্থতার হার বর্তমানে ৮৭.২৩ শতাংশ রয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার নিরিখে সবার ওপরে যে পাঁচটি রাজ্য ছিল সেগুলি হল মহারাষ্ট্র (৪৫,৪৪৫), দিল্লি (১২,৬৪৯), ছত্তীসগঢ় (১২,২৪০), মধ্যপ্রদেশ (৭,৪৯৬), এবং উত্তরপ্রদেশ (৬,৪২৯)।

মৃত্যুহারে আরও পতন

সংক্রমণ ক্রমশ রেকর্ড তৈরি করলেও দৈনিক মৃত্যুহার প্রথম ঢেউয়ের থেকে অনেকটাই কম রয়েছে। তবে এটাও ঠিক গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে যত জনের মৃত্যু হয়েছে সেটা এই এক বছরের করোনাকালে সর্বোচ্চ।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে কোভিডের কারণে মারা গিয়েছেন ১,৩৪১। সংখ্যার বিচারে এটা অনেকটা বেশি হলেও সংক্রমণের নিরিখে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর হার ছিল ০.৫৭ শতাংশ। দেশে এখনও পর্যন্ত মোট মারা গিয়েছেন ১ লক্ষ ৭৫ হাজার ৬৪৯ জন। সামগ্রিক ভাবে দেশের মৃত্যুহার বর্তমানে কমে হয়েছে ১.২১ শতাংশ।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

Coronavirus Second Wave: কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন রাজ্যের আরও এক প্রার্থী

দেশ

Covid Crisis: জলে গুলে খেতে হবে, করোনারোধী ওষুধে ছাড়পত্র দিল ডিজিসিআই

গত বছর মে থেকে অক্টোবর পর্যন্ত এই ওষুধের ট্রায়াল চলেছে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: করোনা চিকিৎসায় একটি ওষুধে ছাড়পত্র দিল ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (DRDO)। হায়দরাবাদের ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা ডঃ রেড্ডিজের সঙ্গে হাত মিলিয়ে যৌথভাবে ওই ওষুধটি তৈরি করেছে ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (DRDO)। এই ওষুধটির নাম দেওয়া হয়েছে ২-ডিজি (2-DG)।

ডিসিজিআই জানিয়েছে, ওষুধটির ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চলেছে গত বছর মে থেকে অক্টোবর পর্যন্ত। ৩ ধাপে দেশের মোট ১১টি হাসপাতালে পরীক্ষানিরীক্ষা চলেছে। তাতে দেখা গিয়েছে, কোভিডে আক্রান্ত রোগীদের সুস্থ করে তুলতে দ্রুত কাজ করছে সেটি।

Loading videos...

এর পাশাপাশি, যাঁদের আলাদা করে অক্সিজেনের প্রয়োজন পড়ছে, তাঁদের ক্ষেত্রে দারুণ কাজ করছে ডিআরডিও-র তৈরি এই ওষুধ। যাঁদেরই এই ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা করা হয়েছে, করোনা পরীক্ষায় তাঁদের অধিকাংশের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

তবে এই ওষুধটির খাওয়ার পদ্ধতি একটু আলাদা। ট্যাবলেট বা সিরাপের মতো নয়। জানা গিয়েছে, পাউডার হিসেবে স্যাচেতে পাওয়া যাবে ওষুধটি। খাওয়ার সময়ে তা জলে গুলে খেতে হবে।

আরও পড়তে পারেন Coronavirus Second Wave: ১২ দিনে ১২ শতাংশ কমল সংক্রমণের হার, স্বস্তি ফিরছে দিল্লিতে

Continue Reading

দেশ

Coronavirus Second Wave: ১২ দিনে ১২ শতাংশ কমল সংক্রমণের হার, স্বস্তি ফিরছে দিল্লিতে

লাগাম পড়েছে দৈনিক মৃত্যুতেও।

Published

on

Coronavirus Delhi

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত ১৯ এপ্রিল দিল্লিতে লকডাউন জারি করার সময় মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেছিলেন, তিনি আক্রান্তের সংখ্যার থেকেও বেশি ভয় পাচ্ছেন সংক্রমণের হারকে। সেটা অতি দ্রুততায় কমাতে না পারলে হাসপাতালগুলিতে হাহাকার আরও বাড়বে। তার পর কেটে গিয়েছে প্রায় তিনটে সপ্তাহ, অবশেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে শুরু করেছে রাজধানী।

দিল্লিতে যে দিন লকডাউন জারি হয়, তখন সেখানে সংক্রমণের হার ছিল ৩০ শতাংশের কাছাকাছি। অর্থাৎ প্রতি ১০০টি টেস্টে কোভিড পজিটিভ হচ্ছিলেন ৩০ জন। এর পরের এক সপ্তাহ সংক্রমণের হার ক্রমেই বাড়তে থাকে। গত ২৬ এপ্রিল সেটা পৌঁছে যায় ৩৫ শতাংশে।

Loading videos...

এটাই ছিল চরম সীমা। তার পর থেকেই কমতে শুরু করেছে সংক্রমণের হার। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীতে সংক্রমণের হার নেমে এসেছে ২৩ শতাংশের ঘরে। অর্থাৎ, গত বারো দিনে দিল্লিতে সংক্রমণের হারকে ১২ শতাংশ কমানো সম্ভব হয়েছে। ২৩ শতাংশ সংক্রমণের হার যদিও খুবই বেশি, কিন্তু মাত্র কয়েকটা দিনে এই হারটা যে ভাবে কমেছে সেটা খুবই ভালো ব্যাপার।

গত ২৬ এপ্রিল রাজধানীতে ৫৭ হাজার ৬০২টি টেস্টের বিপরীতে আক্রান্ত হয়েছিলেন ২০ হাজার ২০১ জন। শনিবারের রিপোর্ট বলছে ৭৪ হাজার ৩৮৪টি টেস্টের বিপরীতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ৩৬৪ জন। সংক্রমণের হারের পাশাপাশি আক্রান্তের সংখ্যাও বেশ ভালো ভাবেই কমছে।

গত ১৪ এপ্রিলের পর এই প্রথম বার দিল্লিতে দৈনিক সংক্রমণ ১৭ হাজারের ঘরে নেমে এসেছে। আরও একটি স্বস্তির বিষয় হল, এ দিন সুস্থ হয়েছেন ২০ হাজার ১৬০ জন। এর ফলে রাজধানীর সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও অনেকটাই কমেছে। ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে দৈনিক মৃতের সংখ্যাও। ২৬ এপ্রিল রাজধানীতে মারা গিয়েছিলেন ৩৮০ জন। সেটা আরও কিছুটা বেড়ে চারশো অতিক্রম করে ফেলেছিল কয়েক দিন পরেই। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছেন ৩৩২ জন।

আর এর ফলে দিল্লিতে হাসপাতালে ফাঁকা শয্যার সংখ্যাও বাড়ছে। গত ২৬ এপ্রিল যেখানে দিল্লির হাসপাতালগুলিতে ফাঁকা শয্যার সংখ্যা ছিল ১,৬৫৬টি, সেটা শনিবার বেড়ে হয়েছে ২,৪৫১।

দিল্লির পরিস্থিতির এই উন্নতির ব্যাপারে এখনও মুখ ফুটে কিছু বলেননি মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল। হয়তো তিনি আরও কয়েকটা দিন দেখে এই সংক্রমণের হারের ১৫ শতাংশের নীচে চলে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করছেন। তবে আপাতত গত ১২ দিনের ছবিটা যে ভাবে উন্নতি করেছে, তাতে রাজধানী দ্বিতীয় ঢেউয়ের কবল থেকে তাড়াতাড়িই মুক্তি পাবে বলে আশা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়তে পারেন Vaccination Drive: শীঘ্রই চতুর্থ কোভিড-টিকা পেয়ে যেতে পারে ভারত

Continue Reading

দেশ

Vaccination Drive: শীঘ্রই চতুর্থ কোভিড-টিকা পেয়ে যেতে পারে ভারত

জুন মাসের মধ্যেই কেন্দ্রের অনুমোদন পাওয়া যাবে বলে আশাবাদী সংস্থাটি।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: তাদের টিকার জরুরি ব্যবহারের অনুমোদনের জন্য এ বার কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন করতে চলেছে ভারতীয় সংস্থা জাইডাস ক্যাডিলা (Zydus cadilla)। জাইকোভ-ডি ( ZyCoV-D) নামে কোভিড টিকার উৎপাদন করেছে অমদাবাদ ভিত্তিক এই ওষুধ প্রস্তুতকারি সংস্থাটি।

টিকাটির জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন পেতে এই মাসেই তারা আবেদন জমা করতে পারে বলে জানা গিয়েছে সংস্থার তরফে। সংস্থাটি আত্মবিশ্বাসী যে তাদের টিকা জুনের মধ্যেই জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য অনুমোদিত হবে। প্রতি মাসে জাইকোভ-ডি-র ১ কোটি ডোজ উৎপাদন করার পরিকল্পনা করেছে সংস্থা।

Loading videos...

ভারতে ইতিমধ্যেই সেরামের কোভিশিল্ড, ভারত বায়োটেকের কোভ্যাক্সিন ও রাশিয়ার স্পুটনিক ফাইভ টিকা ব্যবহারে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তবে স্পুটনিক টিকা এখনও ব্যবহার করা শুরু হয়নি। আশা করা যায়, কিছু দিনের মধ্যেই এই টিকাটি সাধারণ মানুষের ওপরে প্রয়োগ করা শুরু হবে।

এর পাশাপাশি জাইকোভ-ডি অনুমোদিত হলে সেটি হবে চতুর্থ কোভিড টিকা। প্রাথমিক ভাবে মাসে ১ কোটি ডোজ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নিলেও সংস্থাটি জানিয়েছে আগামী দিনে তা বাড়িয়ে ৩-৪ কোটি ডোজ করা হবে।

সাধারণত ভ্যাকসিন ২-8 ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে সংরক্ষণ করা উচিত। তবে জাইডাসের ভ্যাকসিন ঘরের তাপমাত্রায় (২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস) ঠিক থাকে।

আরও পড়তে পারেন শেষ সাত দিনে ১৮০টি জেলায় নতুন করে কোভিড আক্রান্ত নেই, জানালেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
রাজ্য11 mins ago

Covid Crisis: রাজ্যকে সাহায্য করুক কেন্দ্র, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিলেন অধীররঞ্জন চৌধুরী

দেশ52 mins ago

Covid Crisis: জলে গুলে খেতে হবে, করোনারোধী ওষুধে ছাড়পত্র দিল ডিজিসিআই

Coronavirus Delhi
দেশ1 hour ago

Coronavirus Second Wave: ১২ দিনে ১২ শতাংশ কমল সংক্রমণের হার, স্বস্তি ফিরছে দিল্লিতে

দেশ1 hour ago

Vaccination Drive: শীঘ্রই চতুর্থ কোভিড-টিকা পেয়ে যেতে পারে ভারত

দঃ ২৪ পরগনা2 hours ago

সুন্দরবনের পিঁপড়েখালি সেতু ভেঙে গুরুতর জখম ১

দেশ2 hours ago

শেষ সাত দিনে ১৮০টি জেলায় নতুন করে কোভিড আক্রান্ত নেই, জানালেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রবন্ধ2 hours ago

নরেন্দ্র মোদী আবার কবে বাংলায় আসবেন?

দেশ2 hours ago

হাসপাতালে ভরতির জন্য রোগীর কোভিড পজিটিভ রিপোর্টের দরকার নেই, নতুন নির্দেশিকা

রাজ্য3 days ago

কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে পুনর্গণনার দাবিতে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি শুভেন্দু অধিকারীর

sourav ganguly
ক্রিকেট2 days ago

Covid Crisis in IPL: জৈব সুরক্ষা বলয়ে কোনো ফাঁক ছিল বলে মনে করেন না সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

দেশ2 days ago

Corona Update: দু’তিনটে রাজ্যে সংক্রমণবৃদ্ধির জের, ভারতের দৈনিক সংক্রমণ ভেঙে দিল অতীতের রেকর্ড

রাজ্য2 days ago

Post-Poll Violence: ইন্ডিয়া টুডে-র সাংবাদিকের ছবি পোস্ট করে হিংসায় মৃত হিসেবে বর্ণনা বিজেপির

রাজ্য3 days ago

Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণ ১৮ হাজারের গণ্ডি পেরোলেও কমল সংক্রমণের হার, পর পর ৪ দিন সুস্থতার হারে বৃদ্ধি

রাজ্য2 days ago

সুখবর! রাজ্য সরকারি কর্মীরা পাচ্ছেন অ্যাড-হক বোনাস

পরিবেশ3 days ago

২০ বছরে বাংলাদেশের সুন্দরবনে ২৫ বার আগুন, পুড়ে গেছে প্রায় ৮১ একর বনভূমি

রাজ্য1 day ago

‘যা বলার পরে ডেকে বলব’, জল্পনা বাড়ালেন মুকুল রায়

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা3 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে