Connect with us

দেশ

Corona Update: ফের সংক্রমণে রেকর্ড, দৈনিক সুস্থতাতেও রেকর্ড, আরও কমল মৃত্যুহার

সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় এক লক্ষের কম বৃদ্ধি।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দেশের কোভিড পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। শুক্রবারের সংক্রমণ অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে গিয়েছে। কিন্তু এর মধ্যে কিছু আশার কথাও রয়েছে। সব থেকে স্বস্তির ব্যাপার হল মৃত্যুহার আরও কিছুটা কমে গিয়েছে। অন্য দিকে দৈনিক সুস্থতাও ব্যাপক ভাবে বেড়েছে।

সক্রিয় রোগীর বৃদ্ধি এক লক্ষের কম

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) তথ্য অনুযায়ী শুক্রবার ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ কোটি ৪২ লক্ষ ৯১ হাজার ৯২০। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লক্ষ ১৭ হাজার ৩৫৩ জন।

Loading videos...

এ দিন ভারতে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১৫ লক্ষ ৬৯ হাজার ৭৪৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সক্রিয় রোগী বেড়েছে ৯৭ হাজার ৭৪৩ জন। তিন পর সক্রিয় রোগীর বৃদ্ধির সংখ্যা ১ লক্ষের নীচে নামল। বর্তমানে দেশে ১০.৪৬ শতাংশ কোভিডরোগী চিকিৎসাধীন।

দৈনিক সংক্রমণের হার অপরিবর্তিত

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে টেস্ট হয়েছে ১৪ লক্ষ ৭৩ হাজার ২১০টি। এর বিপরীতে সংক্রমণের হার ছিল ১৪.৭৫ শতাংশ। এই মুহূর্তে মহারাষ্ট্রে সংক্রমণের হার ২৫ শতাংশ রয়েছে। ছত্তীসগঢ়ে সংক্রমণের হার ২৮ শতাংশের আশেপাশে। এ ছাড়াও, দেশের বেশ কিছু অংশে সংক্রমণের হার ভয়াবহ ভাবে বাড়ছে।

এর পরেও একটা কথা বলতেই হয়। গত বছর জুলাই-আগস্টে একটা সময় ভারতের দৈনিক সংক্রমণের হার ১৭ শতাংশে উঠে গিয়েছিল। সংক্রমণের চলতি ঢেউ কিন্তু এখনও সেই জায়গায় চলে যায়নি। তবে অতি দ্রুত সংক্রমণ না কমলে, সেই পরিস্থিতিও চলে আসবে।

সংক্রমণ কোথায় কেমন

মহারাষ্ট্রে সংক্রমণ সম্ভবত থিতু হচ্ছে। সেটা তাদের গত কয়েক দিনের সংক্রমণের গ্রাফটা দেখেই বোঝা যাচ্ছে। একটা জায়গায় পৌঁছে গিয়ে সংক্রমণ আর বাড়ছে না মহারাষ্ট্রে। কিন্তু দেশের অন্যান্য রাজ্যে সংক্রমণের বৃদ্ধিতে কোনো লাগাম নেই। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ২১ রাজ্যে সংক্রমণ ছিল এক হাজারের ওপরে। দেখে নিন সেগুলিঃ-

১) মহারাষ্ট্র – ৬১,৬৯৫

২) উত্তরপ্রদেশ – ২২,৩৩৯

৩) দিল্লি – ১৬,৬৯৯

৪) ছত্তীসগঢ় – ১৫,২৫৬

৫) কর্নাটক – ১৪,৭৩৮

৬) মধ্যপ্রদেশ – ১০,১৬৬

৭) গুজরাত – ৮,১৫২

৮) কেরল – ৮,১২৬

৯) তামিলনাড়ু – ৭,৯৮৭

১০) পশ্চিমবঙ্গ – ৬,৭৬৯

১১) রাজস্থান – ৬,৬৫৮

১২) বিহার– ৬,১৩৩

১৩) হরিয়ানা – ৫,৮৫৮

১৪) অন্ধ্রপ্রদেশ – ৫,০৮৬

১৫) পঞ্জাব৪,৩১১

১৬) ঝাড়খণ্ড ৩,৪৮০

১৭) তেলঙ্গানা – ৩,৩০৭

১৮) ওড়িশা – ২,৯৮৯

১৯) উত্তরাখণ্ড– ২,২২০

২০) জম্মু-কাশ্মীর – ১,১৪১

২১) হিমাচল প্রদেশ – ১,০৩৪

সুস্থতার সংখ্যায় রেকর্ড

দৈনিক সংক্রমণ যে দিন রেকর্ড করল, সে দিন এক লক্ষের গণ্ডি পেরিয়ে গিয়ে রেকর্ড করে ফেলল দৈনিক সুস্থতার সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সুস্থ হয়েছেন ১ লক্ষ ১৮ হাজার ৩০২ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত ভারতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ কোটি ২৫ লক্ষ ৪৭ হাজার ৮৬৬ জন। ভারতে সুস্থতার হার বর্তমানে ৮৮.৩১ শতাংশ রয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার নিরিখে সবার ওপরে যে পাঁচটি রাজ্য ছিল সেগুলি হল মহারাষ্ট্র (৬১,৬৯৫), দিল্লি (১৩,০১৪), ছত্তীসগঢ় (১১,৯৮৮), তামিলনাড়ু (৪,১৭৬) এবং উত্তরপ্রদেশ (৪,২২২)।

মৃত্যুহারে আরও পতন

সংক্রমণ ক্রমশ রেকর্ড তৈরি করলেও দৈনিক মৃত্যুহার প্রথম ঢেউয়ের থেকে অনেকটাই কম রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে কোভিডের কারণে মারা গিয়েছেন ১,১৮৫। সংখ্যার বিচারে এটা অনেকটা বেশি হলেও সংক্রমণের নিরিখে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর হার ছিল ০.৫৬ শতাংশ। দেশে এখনও পর্যন্ত মোট মারা গিয়েছেন ১ লক্ষ ৭৪ হাজার ৩০৮ জন। সামগ্রিক ভাবে দেশের মৃত্যুহার বর্তমানে কমে হয়েছে ১.২৩ শতাংশ।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

Kumbh Mela 2021: গঙ্গায় ডুব দিলেও কোভিড হয়! হরিদ্বারে আক্রান্ত ৩০ সাধু, একজনের মৃত্যু

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দেশ

Coronavirus Second Wave: টিকা নেওয়ার পরেও কি কোভিড হতে পারে? ব্যাখ্যা দিল সরকার

পিআইবি বলেছে, টিকা নেওয়ার পরেও মাত্র ০.০৩%-০.০৪% লোকের কোভিড ১৯ হয়েছে। আর যাঁদের হয়েছে, তাঁদের উপসর্গও খুব মৃদু।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে জেরবার গোটা দেশ। ভ্যাকসিন নেওয়ার পরেও কেউ কেউ কোভিডে আক্রান্ত হচ্ছেন বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। তাই সাধারণ মানুষের মনে এই প্রশ্ন ঘুরেফিরে আসছে – টিকা নেওয়ার পরেও কি কেউ কোভিডে আক্রান্ত হতে পারে? এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা দিয়েছে সরকার।

টিকা (Covid vaccine) নেওয়ার পরে কোভিড ১৯-এ (Covid 19) আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কতটা?

Loading videos...

ভারত সরকারের সংস্থা প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো টুইটারে এই বিষয়টি পরিষ্কার করে ব্যাখ্যা করেছে। সরকারের বক্তব্য, হ্যাঁ, টিকা নেওয়ার পরেও মানুষ কোভিডে আক্রান্ত হতে পারেন। তবে সেই সংখ্যাটি খুব কম। শতাংশের হিসাবে খুব সামান্য। আর রিপোর্ট পজিটিভ এলেও, উপসর্গ মৃদুই থাকে। পিআইবি (PIB) বলেছে, “কোভিড ১৯ আটকাতে টিকাকরণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। টিকা নেওয়ার পরেও মাত্র ০.০৩%-০.০৪% লোকের কোভিড ১৯ হয়েছে। আর যাঁদের হয়েছে, তাঁদের উপসর্গও খুব মৃদু।”

সরকার আরও বলেছে, “টিকা ভাইরাসকে পুনরাবৃত্তি করতে দেয় না আর রোগ মারাত্মকও হতে দেয় না। তবে এই সময় আরটি-পিসিআর রিপোর্ট পজিটিভ আসতে পারে এবং অন্যকে সংক্রমিতও করতে পারে। তাই টিকা নেওয়ার পরেও কোভিড স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা দরকার।”

এ ব্যাপারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) কী বলছে?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, “কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন মানুষকে কোভিড ১৯-এ অসুস্থ করে দিচ্ছে বলে উদ্বেগ সৃষ্টি হচ্ছে। কিন্তু স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কোনো কোভিড টিকাতেই জীবন্ত ভাইরাস নেই, যাতে করে কোভিড ১৯ হতে পারে। এর অর্থ কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন মানুষকে কোভিড ১৯-এ অসুস্থ করে না।”

হু বলেছে, “যে ভাইরাস কোভিড ১৯ রোগের কারণ টিকা নেওয়ার পরে সেই সার্স-কোভ-২ (SARS-CoV-2)-এর বিরুদ্ধে শরীরে প্রতিরোধক্ষমতা গড়ে উঠতে সাধারণত কয়েক সপ্তাহ সময় লাগে। তাই টিকা নেওয়ার ঠিক আগে বা পরে মানুষ সার্স-কোভ-২-এ সংক্রমিত হতেই পারে এবং কোভিড ১৯-এ অসুস্থ হতে পারে। এর অর্থ হল ওই টিকা শরীরকে রক্ষা করার ব্যাপারে যথেষ্ট সময় পায়নি।”

আরও পড়ুন: Bengal Corona Update: সম্পূর্ণ লকডাউনের সম্ভাবনা আপাতত উড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়   

Continue Reading

দেশ

CWC Meet: “দলকে নতুন শৃঙ্খলায় সঙ্ঘবদ্ধ করতে হবে”, ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে বললেন সনিয়া গান্ধী

করোনা অতিমারির কারণে ২৩ জুনে নির্ধারিত কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচনের প্রক্রিয়াটি পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ডিএমকের শরিক হওয়ায় কংগ্রেসের কিছুটা হলেও মুখরক্ষা করেছে তামিলনাড়ু। বাকি সব রাজ্যে ভরাডুবি হয়েছে। বাংলায় বিরোধী থেকে এক্কেবারে শূন্যে নেমে গিয়েছে। অন্য দিকে ট্র্যাডিশনের উলটো দিকে গিয়ে কেরলও দখল করতে পারেনি তারা। এমন পরিস্থিতিতে কংগ্রেসের ভবিষ্যৎ নিয়ে এ বার উদ্বেগ প্রকাশ করলেন সনিয়া গাঁধী। তাঁর মতে, পর পর ধাক্কা থেকে এ বার শিক্ষা নেওয়া উচিত। নতুন শৃঙ্খলায় দলকে সঙ্ঘবদ্ধ করার সময় এসেছে।

সোমবার কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির (সিডব্লিউসি) বৈঠকে যোগ দেন দলের অন্তর্বর্তী সভাপতি সনিয়া। সেখানে তিনি বলেন, ‘‘পর পর এই ধাক্কা থেকে শিক্ষা নিতে হবে আমাদের। এই মুহূর্তে দলের অবস্থা দেখে হতাশ বললে কম বলা হবে। ভোটের ফলাফল বলে দিচ্ছে, দলকে নতুন শৃঙ্খলায় সঙ্ঘবদ্ধ করতে হবে আমাদের। যত শীঘ্র সম্ভব ছন্দে ফিরতে হবে।’’

Loading videos...

সনিয়া আরও জানিয়েছেন, দলকে পুনরুজ্জীবিত করতে ছোটো ছোটো কমিটি তৈরি করবেন তিনি। কোথায় কী খামতি থেকে যাচ্ছে, তা পর্যবেক্ষণ করে রিপোর্ট জমা দেবে তারা। সেই মতো এগোবে দল। তবে এই প্রচেষ্টা কতটা ফলপ্রসূ হবে, তা নিয়ে সন্দিহান দলেরই অনেকে। কারণ এখনও পর্যন্ত সভাপতি নির্বাচনই করে উঠতে পারেননি কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব।

উল্লেখ্য, আগামী ২৩ জুন কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাস অতিমারির অবস্থা খারাপ হওয়ায় সেই নির্বাচনটা পিছিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব করেন অনেক সদস্যই। সেই প্রস্তাবে সায় দিয়েই সভাপতি নির্বাচন পর্বটি ফের পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন ‘গঠনমূলক কাজে সহযোগিতা করব সরকারকে’, বিরোধী দলনেতা হয়েই বললেন শুভেন্দু অধিকারী

Continue Reading

দেশ

গণ বিজ্ঞান আন্দোলনের পুরোধা মহাবীর নারওয়াল প্রয়াত, বাবার শেষকৃত্যে যোগ দেওয়ার জন্য তিহাড়ে বন্দি সমাজকর্মী নাতাশার জামিন

বাবাকে দেখার জন্য নাতাশা জামিনের আবেদন করেছিলেন। সেই আবেদন সোমবার ১০ মে শুনানির জন্য আদালতে ওঠে। ততক্ষণে নাতাশার বাবার মৃত্যুর খবর চলে এসেছে।

Published

on

কন্যা নাতাশা ও বাবা মহাবীরের ছবি সিপিআইএম-এর টুইট করা।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: অসুস্থ বাবাকে দেখার জন্য জামিনের আবেদন করেছিলেন। কিন্তু সেই আবেদন যখন বিচারের জন্য আদালতে উঠল ততক্ষণে বাবার মৃত্যু হয়েছে। বাবার শেষকৃত্যে যোগ দেওয়ার জন্য কন্যার জামিনের আবেদন মঞ্জুর করল আদালত।

কন্যা সমাজকর্মী নাতাশা নারওয়াল (Natasha Narwal) অবৈধ কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইনে (Unlawful Activities (Prevention) Act, UAPA, ইউএপিএ) গ্রেফতার হয়ে তিহাড় জেলে বন্দি। গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে উত্তরপূর্ব দিল্লিতে দাঙ্গা লাগানোর ষড়যন্ত্রের অভিযোগে মে মাসে গ্রেফতার করা হয় ‘পিঁজরা টোড’ (Pinjra Tod) সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা-সদস্য জেএনইউ-এর রিসার্চ স্কলার নাতাশাকে।

Loading videos...

বাবা মহাবীর নারওয়াল (Mahavir Narwal) সিপিআইএম-এর প্রবীণ সদস্য এবং হরিয়ানার হিসারে অবস্থিত সিসিএস হরিয়ানা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত বিজ্ঞানী। হরিয়ানায় যে দিন থেকে গণ বিজ্ঞান আন্দোলন ও জ্ঞান-বিজ্ঞান আন্দোলনের সূচনা হয়েছে, সে দিন থেকে সেই আন্দোলনে যুক্ত ছিলেন মহাবীর নারওয়াল। হরিয়ানা বিজ্ঞান মঞ্চ ও ভারত জ্ঞান-বিজ্ঞান মঞ্চের হরিয়ানা শাখার প্রেসিডেন্ট ছিলেন তিনি।

রোহতকে ছেলে আকাশের সঙ্গে থাকতেন মহাবীর নারওয়াল। মেয়ে এত মাস জেলে থাকাকালীন বাবার সঙ্গে একটি বারও কথা হয়নি বলে পরিবার সূত্রে জানা যায়।

‘পিঁজরা টোড’ হল দিল্লির কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের একটি সংগঠন, যারা হস্টেলে কার্ফু-টাইমিং সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে মেয়েদের প্রতি বৈষম্যমূলক নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন করে। অল্প বয়সে মা-হারানো নাতাশা বাবার সক্রিয়তায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সমাজকর্মী হয়ে উঠেছেন। গত বছর নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিসিএ, CCA) এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জী (এনআরসি, NRC) রূপায়ণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ আন্দোলনে যোগ দিয়ে গ্রেফতার হন নাতাশা।

ডায়াবেটিসের রোগী মহাবীর নারওয়াল গত ৩ মে কোভিডে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভরতি হন।  বাবাকে দেখার জন্য নাতাশা জামিনের আবেদন করেছিলেন। সেই আবেদন সোমবার ১০ মে শুনানির জন্য আদালতে ওঠে। ততক্ষণে নাতাশার বাবার মৃত্যুর খবর চলে এসেছে। ৯ মে মহাবীর নারওয়ালের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে ভেন্টিলেটরে দেওয়া হয় এবং কয়েক ঘণ্টা পরেই তাঁর মৃত্যু হয়।   

বিচারপতি সিদ্ধার্থ মৃদুল ও বিচারপতি অনুপ জয়রাম ভমভনিকে নিয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ তিন সপ্তাহের জন্য নাতাশার অন্তর্বর্তী জামিন মঞ্জুর করে।

শুনানির সময় বিচারপতি মৃদুল বলেন, “মামলার তথ্যাদি যা রয়েছে এবং মামলার যা অবস্থা তাতে বেদনা ও ব্যক্তিগত ক্ষতির এই মুহূর্তে আবেদনকারীর মুক্তি একান্ত প্রয়োজন।”

মহাবীর নারওয়ালের মৃত্যুতে ‘পিঁজরা টোড’ এক বিবৃতি প্রকাশ করে বলে, “শান্তিপূর্ণ ভাবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদ জানানোর জন্য নাতাশাকে কারারুদ্ধ করা হয়। নাতাশা যে নির্দোষ তা প্রমাণের জন্য মহাবীর নারওয়াল আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়েছেন। তবে জেল নিয়ে এটাই যে তাঁর প্রথম অভিজ্ঞতা তা নয়, তিনি নিজে জরুরি অবস্থার সময় প্রতিবাদ আন্দোলনে যোগ দিয়ে জেল খেটেছিলেন।”

গত নভেম্বরে এক সাক্ষাৎকারে মহাবীর নারওয়াল বলেছিলেন, “হয়তো আমার মেয়েকে দীর্ঘদিন জেলে থাকতে হবে। হয়তো এমন একটা সময় আসবে, সে আর আমাকে দেখতেই পাবে না। আমি বুড়ো হচ্ছি। আমি তাকে আর দেখতে পাব না। এই সব চিন্তা এখন আমার মাথায় আসে।” আশ্চর্য, মহাবীর নারওয়ালের সেই আশঙ্কাই সত্যি হয়ে গেল।   

মহাবীর নারওয়ালের মৃত্যুতে নাতাশা ও আকাশের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন সিপিএম পলিটব্যুরোর সদস্য বৃন্দা কারাট। এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, “এই ব্যবস্থায় এমন এক ভয়ংকর অবিচার চলছে যে এক বছরের বেশি সময় ধরে অন্যায় ভাবে বন্দি মেয়ে তার বাবাকে দেখার সুযোগ পেল না।”

আরও পড়ুন: লালের হাল! দলীয় লাইন থেকে শুধুই কি কান্তি-তন্ময়রা পিছলে যাচ্ছেন?     

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বাংলাদেশ4 hours ago

Bangladesh Covid Situation: স্বাস্থ্যবিধি না মেনে বেপরোয়া চলাচল সুইসাইডের শামিল, মনে করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশ4 hours ago

Bangladesh-China relation: বিরোধী জোটে যুক্ত হলে সম্পর্কের অবনতি হবে, বাংলাদেশকে হুঁশিয়ারি চিনের

Coronavirus west bengal
রাজ্য8 hours ago

Bengal Corona Update: রাজ্যের সংক্রমণচিত্রে স্থিতাবস্থা অব্যাহত, সুস্থতার হারে বৃদ্ধি, ৮ জেলায় কমল সক্রিয় রোগী

দেশ9 hours ago

Coronavirus Second Wave: টিকা নেওয়ার পরেও কি কোভিড হতে পারে? ব্যাখ্যা দিল সরকার

রাজ্য10 hours ago

Coronavirus Second Wave: সংসদের বিশেষ অধিবেশন ডাকতে রাষ্ট্রপতিকে চিঠি দিলেন অধীররঞ্জন চৌধুরী

দেশ10 hours ago

CWC Meet: “দলকে নতুন শৃঙ্খলায় সঙ্ঘবদ্ধ করতে হবে”, ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে বললেন সনিয়া গান্ধী

প্রোনিং
শরীরস্বাস্থ্য11 hours ago

বাড়িতে কোভিড রোগীর হঠাৎ শ্বাসকষ্ট হলে কেন প্রোনিং করাবেন?

রাজ্য11 hours ago

‘গঠনমূলক কাজে সহযোগিতা করব সরকারকে’, বিরোধী দলনেতা হয়েই বললেন শুভেন্দু অধিকারী

ক্রিকেট3 days ago

IPL 2021: বাকি ম্যাচগুলি আয়োজন করতে চেয়ে বিসিসিআইকে আবেদন জানাল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড

রাজ্য3 days ago

Bengal Corona Update: রাজ্যের ১৫ জেলায় মৃত্যুহার ১ শতাংশের কম

দেশ3 days ago

Corona Update: দৈনিক সংক্রমণ কিছুটা কমলেও মৃতের সংখ্যায় রেকর্ড, তবুও মৃত্যুহার নিম্নমুখী

দেশ2 days ago

Covid Crisis: জলে গুলে খেতে হবে, করোনারোধী ওষুধে ছাড়পত্র দিল ডিজিসিআই

রাজ্য2 days ago

Bengal Corona Update: সংক্রমণের হার ফের ৩০ শতাংশ পার, বাড়ল মৃতের সংখ্যাও, তবে কলকাতা-সহ ৯ জেলায় কমল সক্রিয় রোগী

রাজ্য1 day ago

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃতীয় মন্ত্রীসভায় একাধিক নতুন মুখ

রাজ্য1 day ago

Bengal Corona Update: নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় একই, রাজ্যে বাড়ল সুস্থতা

দেশ1 day ago

ভ্যাকসিন এবং কোভিডের চিকিৎসা সরঞ্জামে ট্যাক্স কেন? মমতার চিঠির পর ১৬টা টুইট কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা4 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে