খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত বছরের শেষ দিকে করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রথম ঢেউ স্তিমিত হয়ে যাওয়ার পর যে ভুলটা হয়েছিল তার পুনরাবৃত্তি করতে চায় না কেউ। সে কারণে এখন থেকেই সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউয়ের ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক করে দিতে চাইছে কেন্দ্র।

দেশে করোনা সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউয়ের ব্যাপারে বুধবার আশঙ্কা প্রকাশ করেছে কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় বিশেষজ্ঞদের মত, করোনাভাইরাসের নতুন প্রকারভেদ যে হারে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে, তাতে তৃতীয় ঢেউ কোনো মতেই আটকানো যাবে না। যদিও কখন এই তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়বে, সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত নন বিশেষজ্ঞেরা।

Loading videos...

সরকারকে এ বিষয়ে পরামর্শ দেয় যে উপদেষ্টা কমিটি, তারা বুধবার জানিয়েছে, করোনার এই তৃতীয় ঢেউ অপ্রতিরোধ্য। টিকায় বদল ঘটিয়ে, তাকে আরও উন্নত করে করোনার নতুন প্রকারভেদকে সামলানো যেতে পারে। তবে সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউকে আটকানো যাবে না কোনো মতেই।

চিকিৎসক এবং বিজ্ঞানী কে বিজয়রাঘবন এ সংক্রান্ত একটি সরকারি বিবৃতি প্রকাশ করেছেন। বুধবার সেই বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, “এই মুহূর্তে ভাইরাস যে হারে ছড়াচ্ছে, তাতে স্পষ্ট সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ আসতে আর বেশি দেরি নেই। তবে কবে এবং কী ভাবে এই ঢেউ আছড়ে পড়বে— তা এখনও স্পষ্ট নয়।”

রাঘবন বলেন, ‘‘ভাইরাসের যে নতুন প্রকারভেদ দ্রুত সংক্রমণ ছড়াচ্ছে, তাকে আটকাতে হলে টিকা আরও উন্নত করতে হবে।’’ যদিও তাতে তৃতীয় ঢেউ ঠেকানো যাবে কি না সে বিষয়ে কেন্দ্রীয় বিশেষজ্ঞেরা নিশ্চিত নন।

বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে এ বছর দুর্গাপুজোর সময় অর্থাৎ অক্টোবর-নভেম্বরে তৃতীয় ঢেউ আসতে পারে। জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত করোনার এই দ্বিতীয় ঢেউটি স্তিমিত হয়ে যেতে পারে। তার পরেই হানা দিতে পারে তৃতীয় ঢেউ।

আরও পড়তে পারেন Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণ ১৮ হাজারের গণ্ডি পেরোলেও কমল সংক্রমণের হার, পর পর ৪ দিন সুস্থতার হারে বৃদ্ধি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.