রাত পোহালেই কর্নাটকের বিজেপি সরকারের ভাগ্য নির্ধারণ!

0
Yeddyurappa and siddaramaiah

ওয়েবডেস্ক: কর্নাটকে বি এস ইয়েদিউরাপ্পা নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারের ভাগ্য নির্ধারণ হতে চলেছে আগামী সোমবার। ১৫টি বিধানসভা কেন্দ্রের গুরুত্বপূর্ণ উপ-নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার মধ্যে দিয়েই চার মাসের বিজেপি সরকারের ভবিষ্যৎ নির্দিষ্ট হতে চলেছে। কারণ, সরকার টিকিয়ে রাখার জন্য মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদ্দির কমপক্ষে ছ’জন বিধায়কের প্রয়োজন।

নির্বাচন আধিকারিকরা জানিয়েছেন, গত ৫ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণের পর সোমবার ভোট গণনা শুরু হবে সকাল ৮টায়। সব মিলিয়ে ১১টি কেন্দ্রে ভোটগণনা চলবে এবং সমস্ত কেন্দ্রের ফলাফল সম্ভবত বিকেলের মধ্যেই স্পষ্ট হয়ে যাবে।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে ১৭ জন ‘বিদ্রোহী’ কংগ্রেস এবং জেডি (এস) বিধায়ক যোগ্যতা হারানোর কারণে শূন্যপদ পূরণের জন্য এই উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ওই বিধায়কদের ইস্তফার জেরেই গত জুলাই মাসে এইচ ডি কুমারস্বামীর নেতৃত্বাধীন কংগ্রেস-জেডি (এস) জোট সরকার ভেঙে যায়। তার পরই বিজেপি ক্ষমতায় আসার পথ প্রশস্ত করে।

উপনির্বাচন হওয়া ১৫টি আসনের মধ্যে ১২টি কংগ্রেসের এবং তিনটি জেডি (এস)-এর দখলে ছিল। যদিও উপনির্বাচন শেষে বিভিন্ন বুথফেরত সমীক্ষায় বলা হয়েছে, ১৫টির মধ্যে বিজেপির দখলে যেতে পারে কমপক্ষে ৯টি আসন।

২২৪ সদস্যের কর্নাটক বিধানসভায় বর্তমানে সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকা সত্ত্বেও ১০৬ জন বিধায়ক নিয়ে ক্ষমতায় রয়েছে। আরও ১০ জন বিধায়ককে সমর্থন তাদের সঙ্গে রয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। অন্য দিকে কংগ্রেস-জেডিএসের হাতে রয়েছে ১০১টি আসন। স্বাভাবিক ভাবেই উপনির্বাচন হতে যাওয়া ১৫টি আসনের মধ্যে কমপক্ষে ছ’টিতে জিততে হবে বিজেপিকে। তবেই তাদের পক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখা সম্ভব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.