নয়াদিল্লি: সিপিআই (মাওবাদী) দলের নেতৃত্বে ব্যাপক রদবদলের সম্ভাবনা। তরুণ নেতৃত্বকে জায়গা করে দিতে সাধারণ সম্পাদকের পদ ছেড়ে দিতে পারেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মুপ্পালা লক্ষ্মণ রাও ওরফে গণপতি। কিছুদিনের মধ্যেই ভারত রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে গেরিলা যুদ্ধ চালানো দেশের একমাত্র কমিউনিস্ট পার্টিটির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বৈঠক হবে বলে খবর পেয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাগুলি। ওই বৈঠকে রণনীতি-রণকৌশল সংক্রান্ত আলোচনার পাশাপাশি এই নেতৃত্ব বদলের বিষয়টি নিয়েও সিদ্ধান্ত হবে বলে জানা গেছে।

গত শতকের নয়ের দশকের শুরুর দিকে সাবেক সিপিআই(এমএল)(জনযুদ্ধ) পার্টির সাধারণ সম্পাদক হন গণপতি। পরে ওই দলের সঙ্গে এমসিসিসি(আই) যুক্ত হয়ে গঠিত হয় সিপিআই (মাওবাদী)। এই নতুন দলেরও সাধারণ সম্পাদক থেকে যান তিনি।

গণপতি

বিশেষ কোনো শারীরিক কারণে গণপতি পদ থেকে সরে যাচ্ছেন নাকি, মাওবাদী পার্টির সর্বস্তরে দ্বিতীয় স্তরের নেতৃত্ব তুলে আনার প্রক্রিয়া চলছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়। কারণ কিছুদিন আগেই খবর এসেছিল দণ্ডকারণ্য থেকে মধ্য তিরিশের এক আদাইবাসী নেতাকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে নেওয়া হয়েছে। তাঁর নাম হিদমা। অবুঝমাড় থেকে এই প্রথম কেউ দলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে এলেন।

এখন প্রশ্ন হল, গণপতি পদ ছাড়লে, কে হবেন সাধারণ সম্পাদক? শোনা গেছে, নাম্বালা কেশব রাও বা বাসবরাজ আসতে পারেন ওই দায়িত্বে। দীর্ঘদিন দলের কেন্দ্রীয় মিলিটারি কমিশনের দায়িত্ব সামলেছেন বাসবরাজ। তাঁর বয়স গণপতির চেয়ে প্রায় ১০ বছর কম।

সৌজন্য: টাইমস অফ ইন্ডিয়া

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here