Narendra Modi and rahul Gandhi and D Raja
বাঁ দিক থেকে রাহুল গান্ধী, নরেন্দ্র মোদী এবং ডি রাজা (গ্রাফিক্স ছবি)।

নয়াদিল্লি: ভারতের সঙ্গে ফ্রান্সের রাফাল চুক্তি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জবাব চাইল সিপিআই। রবিবার দলের রাজ্যসভার নেতা ডি রাজা সংবাদ মাধ্যমের সামনে বলেন, রাফাল চুক্তি আর কয়েকটা বাণিজ্য চুক্তির থেকে পৃথক। এর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে দেশের সার্বভৌমত্ব এবং সুরক্ষার প্রশ্ন। ফলে এমন একটি চুক্তিকে কেন্দ্র করে তৈরি হওয়া বিতর্কের অবসানে প্রধানমন্ত্রীর মুখ খোলা একান্ত আবশ্যক।

গত শনিবার ফ্রান্সের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ওঁলাদের বিতর্কের মন্তব্যের জেরে রাফাল চুক্তি নিয়ে কেন্দ্রেকে আক্রমণের সুর ক্রমশ উঁচুতে নিয়ে গিয়েছে জাতীয় কংগ্রেস। দলের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী প্রকাশ্যে মন্তব্য করেন, ফ্রান্সের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রী মোদীকে চোর বলেছেন। সাহস থাকলে জবাব দিন মোদী। রাহুলের এমন বক্তব্যের পরই সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি পরোক্ষে কংগ্রেস-সহ বিরোধীদের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন। তিনি বলেছেন, প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে হইচই করে প্রতিবেশীদেশগুলিকে সাহায্য করা হচ্ছে।

জেটলির কথার রেশ ধরেই সিপিআইয়ের প্রবীণ নেতা রাজা বলেছেন, “রাফাল চুক্তি একটি গুরুত্বপূর্ণ এবং গম্ভীর বিষয়। এর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে দেশের সার্বভৌমত্ব এবং সুরক্ষার প্রশ্ন। যে কারণে অবিলম্বে প্রধানমন্ত্রীকে এ বিষয়ে মুখ খুলতে হবে। সরকারে প্রধান হিসাবে মোদীকে সাধারণ মানুষের কাছে ভারত-ফ্রান্সের চুক্তি নিয়ে প্রকৃত সত্য তুলে ধরতে হবে”।

রাহুলের মন্তব্য প্রসঙ্গে রাজা বলেন, “রাহুল গান্ধী টুইটারে কী লিখেছেন, সেটা সম্বন্ধে তিনি নিশ্চয় ভালো করেই জানেন। তাঁর কাছে এর ব্যাখ্যা থাকতে পারে। কিন্তু দেশের সাধারণ মানুষ জানতে চায় ওই চুক্তির প্রকৃত ব্যাখ্যা। হ্যালের হাত থেকে ওই বরাত ফিরিয়ে নিয়ে কেন বেসরকারি একটি সংস্থাকে তা দেওয়া হল, সে সবের ব্যাখ্যাও দাবি করা হচ্ছে জনগণের স্বার্থে”।


আরও পড়ুন: দু’দেশের বিরোধী নেতার এক সুর কাকতালীয় হতে পারে না: রাফালে নিয়ে মুখ খুললেন জেটলি

অন্য দিকে পরোক্ষ ভাবে রাহুলকে সমর্থন করে তিনি বলেন, “এই চুক্তিকে কেন্দ্র করে রাহুল সংসদে আলোচনা চেয়েছিলেন। কিন্তু বিজেপির অন্যান্য নেতৃত্বের মতোই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী সেই প্রসঙ্গ এড়িয়ে গিয়ে রাহুলকে ‘পাপ্পু’ নামে সম্বোধন করেছেন। এটা কোনো রাজনৈতিক ঝগড়ার বিষয় নয়, সেটাই বুঝতে চাইছে না বিজেপি”।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন