saji cherian
ত্রাণের কাজে চেরিয়ান। ছবি: বিধায়কের ফেসবুক থেকে

ওয়েবডেস্ক: “নরেন্দ্র মোদীকে বলুন এখানে হেলিকপ্টার পাঠাতে, দয়া করে। না হলে ৫,০০০ মানুষ মারা যাবে।” এ ভাবেই দুর্দশার কথা বলতে গিয়ে লাইভ টিভিতে কান্নায় ভেঙে পড়লেন সিপিআইএমের বিধায়ক সাজি চেরিয়ান।

মনোরমা নিউজে একটি সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে চেঙ্গানুরের বিয়াধায়ক চেরিয়ান বলেন, “চার দিন ধরে নৌসেনার হস্তক্ষেপ দাবি করে যাচ্ছি। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কেউ আসেনি। এখনও পর্যন্ত কোনো সাহায্য আমরা পাইনি। দুর্গত মানুষকে আকাশপথে উদ্ধার করাই একমাত্র উপায়।”

চেঙ্গানুর অঞ্চলে ৫০টি মৃতদেহ পড়ে রয়েছে বলে দাবি করেন চেরিয়ান। সাহায্য না এলে বাকিরাও মারা যাবে বলে দাবি করেন তিনি। একমাত্র মৎস্যজীবীদের ১০-১৫টা নৌকা ব্যবহার করে মানুষকে উদ্ধার করা হচ্ছে বলে জানান তিনি। তবে তাতে কাজের কাজ খুব একটা হচ্ছে না।

আরও পড়ুন কেরল বন্যা লাইভ: কুড়ি হাজার কোটি টাকার ক্ষতি, কেন্দ্রের বরাদ্দ ৫০০ কোটি

চেঙ্গানুর যে জেলায় অবস্থিত সে পথনমথিট্টা জেলার অবস্থা সব থেকে করুণ। জেলার সব নদীই দু’কুল ছাপিয়ে ভাসিয়ে দিয়েছে গ্রামের পর গ্রাম। সব বাড়িরই একতলা জলের তলায়। চেঙ্গানুরে ত্রাণসামগ্রী পাঠাতে দেরি হচ্ছে বলে শুক্রবারই স্বীকার করে নিয়েছিলেন পিনারাই বিজয়ন। উদ্ধারকারী দলকে পরতে পরতে বাধার মুখে পড়তে হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি।

করুণ গলায় চেরিয়ানের দাবি, “এখানে একটাও হেলিকপ্টার আসেনি। আপনারা হেলিকপ্টার পাঠালে তার জন্য আমরা টাকা দিয়ে দেব।”

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন