Connect with us

দেশ

এই প্রথম, দৈনিক কোভিড সংক্রমণে পশ্চিমবঙ্গের নীচে নেমে গেল মহারাষ্ট্র

তবে সব কিছুই আশঙ্কার নয়, কিছু স্বস্তির আশাও করাই যায়।

Published

on

coronavirus

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ভারতে করোনার (Coronavirus) আঁতুড়ঘর নিঃসন্দেহে মহারাষ্ট্র (Coronavirus)। গত মার্চ থেকেই সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা কার্যত লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছিল। তবে গত এক মাসে সেই পরিস্থিতি অনেকটাই বদলাতে শুরু করেছে। কিন্তু সোমবার যেটা ঘটেছে, সেটা পশ্চিমবঙ্গের পক্ষে কিছুটা চিন্তার হলেও, মহারাষ্ট্রের পক্ষে তা অনেকটাই স্বস্তির।

এই প্রথম, দৈনিক সংক্রমণে মহারাষ্ট্র নেমে গেল পশ্চিমবঙ্গের নীচে। গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে যেখানে ৪,১২১ জন নতুন করে কোভিডে (Covid 19) আক্রান্ত হয়েছেন, সেখানে মহারাষ্ট্রে হয়েছেন ৩,৬৪৫ জন। গত চার মাসের মধ্যে সব থেকে কম দৈনিক সংক্রমণ রেকর্ড করল মহারাষ্ট্র।

শুধু রাজ্য হিসেবে মহারাষ্ট্রই নয়, শহর হিসেবে মুম্বইয়েও কলকাতার থেকে কম মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। সোমবার কলকাতায় যেখানে নতুন করে কোভিড পজিটিভ হয়েছেন ৮৯২ জন, সেখানে মুম্বইয়ে আক্রান্ত হয়েছেন মাত্র ৮০৮ জন। দিন পনেরো আগেও মুম্বইয়ের দৈনিক ২২০০ করে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছিলেন।

Loading videos...

তবে এর পেছনে আরও একটি কারণও রয়েছে। মহারাষ্ট্র-সহ দেশের বেশ কিছু রাজ্যে সোমবার সাধারণ ভাবে খুব কম কোভিড টেস্ট হয়। অন্যান্য দিন যেখানে মহারাষ্ট্রে দৈনিক ৮০ থেকে ৯০ হাজারের বেশি টেস্ট হয়, সেখানে সোমবার হয়েছে মাত্র ৩৬ হাজার টেস্ট। অর্থাৎ মহারাষ্ট্রে দৈনিক সংক্রমণের হার ছিল দশ শতাংশের ওপরে।

অন্য দিকে পুজো চললেও পশ্চিমবঙ্গে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বিশেষ কমেনি। এখনও রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার দশ শতাংশের নীচে রয়েছে।

তবে মহারাষ্ট্রের পরিসংখ্যান থেকে একটা ব্যাপারে পশ্চিমবঙ্গবাসীরা স্বস্তি পেতে পারেন। গণেশ উৎসবের সময়ে মুম্বইয়ে নিয়ন্ত্রণ থাকলেও পুনে-সহ রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় মানুষ জমায়েত করেছিলেন বিভিন্ন গণেশ মণ্ডপে। তার জেরে গণেশপুজোর দু’সপ্তাহের মধ্যে রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ ২৫ হাজারের কাছাকাছি চলে গিয়েছিল। সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি থেকেই তা ব্যাপক ভাবে কমতে শুরু করে।

পশ্চিমবঙ্গে যেটা নিয়ে সব থেকে বেশি ভয় ছিল, সেই দুর্গাপুজো শেষ হয়েছে। আর সার্বিক পরিস্থিতি দেখে বোঝা গিয়েছে যে সতর্কতার বার্তায় কাজ হয়েছে। কলকাতার রাস্তায় পুজোর চেনা ছবি এক্কেবারেই উধাও হয়ে গিয়েছিল।পুজোয় এত্ত ফাঁকা কলকাতাকে আগে কখনও দেখা যায়নি।

ফলে আগামী কয়েক সপ্তাহে রাজ্যে সংক্রমণ বাড়লেও, নভেম্বরের মাঝামাঝি থেকে তা কমতে শুরু করবে, সেই আশা করাই যায়।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

২ নভেম্বর থেকে সাধারণের ওপরে অক্সফোর্ডের কোভিড-টিকার প্রয়োগ শুরু, ব্রিটেনের হাসপাতালকে তৈরি থাকার নির্দেশ

দেশ

১৪৫ কিলোমিটার বেগে আছড়ে পড়তে পারে ‘নীবর’, তামিলনাড়ু-পুদুচেরিতে বুধবার সরকারি ছুটি

শুক্রবার ‘নীবর’-এর পরোক্ষ প্রভাব পড়তে পারে দক্ষিণবঙ্গে। কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বঙ্গোপসাগরে (Bay of Bengal) অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি মঙ্গলবার সকালেই ঘূর্ণিঝড়ের পরিণত হয়েছে। তার নাম হয়েছে ‘নীবর’ (Cyclone Nivar)। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস এটি আগামী ২৪ ঘণ্টায় আরও দু’ দফায় শক্তি বাড়িয়ে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিতে পারে।

বুধবার বিকেল পাঁচটা নাগাদ পুদুচেরি উপকূল অতিক্রম করতে পারে। উপকূল অতিক্রম করার সময়ে তাঁর সর্বোচ্চ গতিবেগ থাকতে পারে ঘণ্টায় ১৪৫ কিলোমিটার।

গত বছর নভেম্বরে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ যে শক্তি নিয়ে বকখালি ও সন্নিহিত অঞ্চলে আছড়ে পড়েছিল, ঠিক সেই রকম শক্তি থাকতে পারে ‘নীবর’-এর। এই ঝড় মোকাবিলায় এখন চূড়ান্ত সতর্কতা তামিলনাড়ু আর পুদুচেরিতে। দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশের ঝড়ের ডানার ঝাপ্টা পড়তে পারে, তাই সেখানেও সতর্কতা অবলম্বন করা হয়েছে।

Loading videos...

বুধবার নিজেদের অঞ্চলে সরকারি ছুটি ঘোষণা করে দিয়েছে তামিলনাড়ু এবং পুদুচেরির সরকার। জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত নয়, এমন মানুষদের বাড়ির বাইরে বেরোতে বারণ করা হয়েছে। গোটা পুদুচেরি জুড়ে মঙ্গলবার রাত ন’টা থেকে ১৪৪ ধারা লাগু হয়ে যাবে। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত এটা বহাল থাকবে।

পুদুচেরি প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, বুধবার শুধুমাত্র পেট্রোল পাম্প, দুধ এবং ওষুধের দোকান খোলা থাকবে। অর্থাৎ মুদির দোকানও খুলতে দেওয়া হবে না।

জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী জানিয়েছে তামিলনাড়ু, পুদুচেরি আর অন্ধ্রপ্রদেশ জুড়ে ৩০ কোম্পানি বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। সাধারণ মানুষকে উপকূলবর্তী অঞ্চল থেকে নিরাপদে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যেই উপকূল জুড়ে জোর বৃষ্টি এবং ঝোড়ো হাওয়া শুরু হয়ে গিয়েছে।

আবহাওয়া দফতরের সর্বশেষ বুলেটিন অনুযায়ী বুধবার বিকেল পাঁচটা নাগাদ ‘নীবর’ পুদুচেরি উপকূল অতিক্রম করতে পারে। পুদুচেরির অন্তর্গত পুদুচেরি শহর এবং করাইকল ছাড়াও ঝড়টির সব থেকে বেশি প্রভাব থাকতে পারে, নাগাপট্টিনম, মাইলাথুদুরাই, কাডলোর, বিল্লুপুরম এবং চেঙ্গালপট্টু জেলাগুলিতে।

চেন্নাই এবং সন্নিহিত অঞ্চলের ঝড়ের গতিবাগ থাকতে পারে ঘণ্টায় ৯০ থেকে ১০০ কিলোমিটার। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় গোটা রাজ্যেই ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি এবং বেশ কিছু জায়গায় অতি ভারী বৃষ্টিরও আশঙ্কা রয়েছে। বৃহস্পতিবার থেকে এই ঝড়ের প্রভাবে দক্ষিণ অন্ধ্রপ্রদেশ এবং দক্ষিণ কর্নাটকেও অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

শুক্রবার ‘নীবর’-এর পরোক্ষ প্রভাব পড়তে পারে দক্ষিণবঙ্গে। কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। ইতিমধ্যেই দক্ষিণবঙ্গের বায়ুমণ্ডলে মেঘ ঢোকাচ্ছে এই ঘূর্ণিঝড়টি।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

৫০০তম ‘ওয়ার্ল্ড অব টাইটান’ স্টোর খুলল কলকাতায়

Continue Reading

দেশ

ফেনী-বিলোনিয়া রেলপথের কাজ শুরু হচ্ছে শিগগিরই, দাউদকান্দি-সোনামুড়া জলপথ খননে হাত লাগাবে বাংলাদেশ

তা ছাড়া চট্টগ্রাম থেকে রামগড়-সাব্রুম মৈত্রী সেতু পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণ করা হবে।

Published

on

Feni Railway Station

ঋদি হক: চট্টগ্রাম থেকে

উত্তর-পূর্ব ভারতের (North East India) ত্রিপুরার (Tripura) বিলোনিয়া থেকে ফেনী রেলপথ (Belonia-Feni Rail Connectivity) নির্মাণে হাত লাগাতে যাচ্ছে বাংলাদেশ (Bangladesh)। মাত্র ২৭ কিলোমিটার রেলপথ তৈরি হলেই সরাসরি পণ্যবাহী ট্রেন যাতায়াত শুরু করবে উত্তর-পূর্ব ভারতে। তার ফলে সড়ক পথের চেয়ে তুলনায় কম খরচে পণ্য পরিবাহিত হবে।

তা ছাড়া চট্টগ্রাম থেকে রামগড়-সাব্রুম মৈত্রী সেতু পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণ করা হবে। তাতে চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহার করে ভারত তার উত্তরপূর্ব প্রান্তিক রাজ্যগুলোতে পণ্য পাঠাতে পারবে সাশ্রয়ী মূল্যে।

Loading videos...

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ তথা বিআইডব্লিউটিএ-র (BIWTA)  সূত্র বলছে, অচিরেই দাউদকান্দি-সোনামুড়া (Daudkandi-Sonamura) জলপথটিতে খনন কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। এরই মধ্যে এই প্রকল্পের আর্থিক বাজেট পাশ হয়ে গিয়েছে।

বাংলাদেশের চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরটি মূলত প্রাকৃতিক। ১৭০০ খ্রিস্টাব্দে এর স্থিতিশীলতা এসেছে। এর আগে অনেক সুবিধাভোগী বন্দরটি ব্যবহার করলেও উন্নয়নের কাজে তেমন একটা হাত লাগায়নি।

তবে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চেষ্টায় বন্দরের পরিস্থিতি পালটাতে শুরু করে। শেখ হাসিনার হাত ধরে এই বন্দরটি অর্থনৈতিক ভাবে মজবুত হয় এবং ক্রমশ আলোচনায় উঠে আসে। তিনিই ধারাবাহিক দেশ পরিচালনার পাশাপাশি কানেক্টিভিটির ওপর জোর দিয়েছেন। বিশ্বায়নের পথে হাঁটতে হলে কানেক্টিভিটি তথা সংযোগসাধনের বিকল্প নেই। সংযোগসাধনই সভ্যতার প্রতীক।

চট্টগ্রাম বে-টার্মিনাল।

এরই মধ্যে মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর এবং চট্টগ্রাম নগর-সংলগ্ন সাগর উপকূলে নির্মিত হচ্ছে বে-টার্মিনাল (Chattagram Bay Terminal), যার অবস্থান চট্টগ্রাম বন্দরের কাছাকাছি। এই দু’টো গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাকে কেন্দ্র করে সড়ক ও রেলপথ উন্নয়নের কাজ চলছে। 

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান তথা প্রসাশক খোরশেদ আলম সুজন বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর থেকে সাগরতীর বরাবর বিশাল চওড়া কংক্রিটের দৃষ্টিনন্দন সড়কটি প্রায় ৭৫ কিলোমিটার দীর্ঘ। চার লেনের এই সড়কটি যুক্ত হবে মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের সঙ্গে।

তিনি আরও জানালেন, চট্টগ্রাম থেকে রেলপথ যুক্ত হবে খাগড়াছড়ির রামগড়ে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু পর্যন্ত, যার দূরত্ব ১২০ কিলোমিটার। রামগড় সেতু প্রান্ত থেকে বাংলাদেশের বারইয়ারহাট পর্যন্ত সড়কটি প্রশস্ত করার কাজ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে।

মেরিনড্রাইভ থেকে সীতাকুণ্ডর আংশিক পর্যন্ত ৩০ কিলোমিটার জুড়ে রয়েছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন। চট্টগ্রাম বন্দর থেকে কমপক্ষে ৩০/৪০ মেট্রিক টন পণ্যবাহী বড়ো আকারের ট্রেলর ত্রিপুরা-সহ ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলোতে যাতায়াত করবে। এই বিষয়টি মাথায় রেখেই সড়ক প্রশস্ত করার কাজে হাত লাগানো হয়েছে। 

মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্রবন্দর এবং বে-টার্মিনাল নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম অর্থনৈতিক হাবে পরিণত হবে বাংলাদেশ।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান তথা প্রশাসক মো. খোরশেদ আলম সুজন।

রামগড়-সাব্রুম মৈত্রী সেতু এবং ফেনী-বিলোনিয়া রেলপথের ওপর জোর দিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান তথা প্রশাসক মো. খোরশেদ আলম সুজন। তিনি বলেন, অতি দ্রুত এই কাজগুলো তাঁরা সম্পন্ন করতে চান। তাঁর ভাষায়, “‘থাকবো নাকো বদ্ধ ঘরে…’। আমরা সব কিছু উন্মুক্ত করে দিয়েছি। আমাদের চাওয়া কেবল উন্নয়ন। আর সুবিধা না দিলে তো কেউ আমাদের এখানে আসবেন না।”

পতেঙ্গা সমুদ্রসৈকত সংলগ্ন বিশাল এলাকা নিয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে  বে-টার্মিনাল নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলছে। পতেঙ্গায় সাগরে দেখা গেল শ’ শ’ পণ্যবাহী জাহাজ খালাসের অপেক্ষায়। বন্দর থেকে নির্দেশনা এলেই এ সব জাহাজে পাইলট আসবে এবং জাহাজ নিয়ে বন্দরের নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছোবে।

পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতের পাশে পণ্য খালাসের অপেক্ষায় শ শ জাহাজ।

মূলত ফেনী-বিলোনিয়া রেলপথ এবং রামগড়-সাব্রুম মৈত্রী সেতুর কাজ শুরু হয়ে যাবে ২০২১ সালে। তখন দিনে দিনে পণ্যবাহী ট্রেলর ও ট্রেন পৌঁছে যাবে ত্রিপুরা, অসম ও আশপাশের রাজ্যগুলোয়।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর উত্তরপূর্ব ভারতের কাছে আশীর্বাদ, সুবিধা পাবে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা-হলদিয়াও

Continue Reading

দেশ

দুর্ভাগ্য! ভ্যাকসিন নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে, বৈঠকে বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

“ভ্যাকসিন কবে আসবে, তা বিজ্ঞানীরা ঠিক করবেন”, বললেন প্রধানমন্ত্রী!

Published

on

নয়াদিল্লি: মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে কোভিড-১৯ মোকাবিলা এবং টিকাকরণ পরিকল্পনা নিয়ে নিজের বিস্তৃত বক্তব্য পেশ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “ভ্যাকসিন কবে আসবে, তা বিজ্ঞানীরা ঠিক করবেন। ভ্যাকসিন নিয়ে অনেক প্রশ্নের উত্তর এখনও মেলেনি। ভ্যাকসিনের ডোজ অথবা দাম কত হবে, তা স্থির হয়নি। তবে টিকাকরণ নিয়ে আগে থেকেই প্রস্তুত থাকতে হবে”।

ভারতে এখনও পর্যন্ত বেশ কয়েকটি ভ্য়াকসিনের ট্রায়াল ভালো অবস্থানে রয়েছে বলে দাবি করে প্রধানমন্ত্রী জানান, “টিকাকরণ অভিযান অনেক লম্বা। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করতে সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। ভ্যাকসিনের বিতরণ সমস্ত রাজ্যের সঙ্গে কথা বলেই করা হবে। প্রত্যেক রাজ্যকে একটি স্টিয়ারিং কমিটি তৈরি করতে হবে। কী ভাবে দেশের সর্বত্র টিকা পৌঁছাবে, তা নিয়ে সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। তবে ভ্যাকসিন আসার আগে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই পুরোদমে চালিয়ে যেতে হবে”।

Loading videos...

করোনার বিরুদ্ধে কোনো রকমের ঢিলেমি দেওয়া যাবে না বলে পরামর্শ দিয়ে মোদী বলেন, “সাহসের সঙ্গে করোনা মোকাবিলা করছে ভারত। অন্য দেশের থেকে আমাদের দেশে সুস্থতার হার বেশি। কিন্তু করোনায় মৃত্যুহার আরও কমাতে হবে। যা ১ শতাংশের নীচে নামিয়ে নিয়ে আসাই প্রথম লক্ষ্য হওয়া উচিত। কয়েকটি রাজ্যের পরিস্থিতি এখনও সংকট জনক। এই পরিস্থিতির মোড় ঘোরাতে হবে। সতর্কতায় কোনো রকম ঢিলেমি চলবে না”।

তিনি বলেন, “সুস্থতার হার বেড়ে যাওয়ায় কেউ কেউ মনে করছেন, ভাইরাস দুর্বল হয়ে গিয়েছে। এর ফলে ব্যাপক উদাসীনতা দেখা যাচ্ছে। ভ্যাকসিন নিয়ে যাঁরা কাজ করছেন, তাঁরা কাজ চালিয়ে যান, কিন্তু সংক্রমণ ঠেকাতে আমাদের উদাসীনতা বিপদ ঢেকে আনতে পারে। এখন আমাদের দেশে সংক্রমণের হারকে ৫ শতাংশের নীচে নিয়ে আসতে হবে”।

অক্সিজেন এবং ভেন্টিলেটর সরবরাহ প্রসঙ্গে মোদী বলেন, “আমরা আরও বেশি করে অক্সিজেন এবং ভেন্টিলেটর সরবরাহে মনোনিবেশ করেছি। মেডিক্যাল কলেজ এবং জেলা হাসপাতালগুলিকে অক্সিজেনের ক্ষেত্রে স্বাবলম্বী করার চেষ্টা করছি। দেশে ১৬০টিরও বেশি অক্সিজেন উৎপাদনের প্লান্ট স্থাপনের প্রচেষ্টা চলছে”।

 প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এটা কি দুর্ভাগ্যের বিষয় নয়, যে কেউ কেউ কোভিড ভ্যাকসিন নিয়ে রাজনীতি করছে? তবে আমরা এই ধরনের লোকেদের বাধা দিতে কী-ই বা করতে পারি”!

আরও পড়তে পারেন: কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, উপস্থিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Continue Reading
Advertisement
দঃ ২৪ পরগনা26 mins ago

কৈলাস বিজয়বর্গীয়র ‘হরি বোল’, এক গুচ্ছ প্রতিশ্রুতি

virat kohli
ক্রিকেট1 hour ago

দশকের সেরা ক্রিকেটার হওয়ার দৌড়ে বিরাট কোহলি ও আরও এক ভারতীয়

ফুটবল1 hour ago

পিকে-চুণী স্মরণে ডার্বি শুরুর আগে নীরবতা পালন হোক, আইএসএল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাল ইস্টবেঙ্গল

প্রযুক্তি1 hour ago

আরও ৪৩টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করল ভারত

পূর্ব মেদিনীপুর2 hours ago

খেজুরি থেকে ‘এক সঙ্গে ভালো থাকা’র বার্তা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

দেশ2 hours ago

১৪৫ কিলোমিটার বেগে আছড়ে পড়তে পারে ‘নীবর’, তামিলনাড়ু-পুদুচেরিতে বুধবার সরকারি ছুটি

শিল্প-বাণিজ্য2 hours ago

৫০০তম ‘ওয়ার্ল্ড অব টাইটান’ স্টোর খুলল কলকাতায়

ফুটবল2 hours ago

জীবনের প্রথম ডার্বিতে নামার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন সন্দেশ জিঙ্ঘান

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 days ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা6 days ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা3 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা2 months ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা2 months ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

নজরে