মন্দিরে প্রবেশে বাধা দলিত মেয়েদের, পূজারির বিরুদ্ধে এফআইআর

0
158

গোধরা: যে দেশে ভাবী রাষ্ট্রপতি একজন দলিত, সে দেশে এখনও চলে দলিতদের ওপর অত্যাচার এবং বৈষম্যমূলক আচরণ। সর্বশেষ ঘটনাটি ঘটেছে গুজরাতের গোধরা অঞ্চলে। এখানে একটি মন্দিরে দলিত মেয়েদের ঢুকতে বাধা দেওয়ার অভিযোগে মন্দিরের পূজারি এবং তাঁর দুই ছেলের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।

গোধরার মেহলোল গ্রামে মহাদেব মন্দিরে গত দু’দিন ধরে বারবার ঢোকার চেষ্টা করছিলেন কয়েক জন যুবতী। কিন্তু অভিযোগ দলিত হওয়ার ‘অপরাধ’-এ তাদের মন্দিরে ঢুকতে বাধা দিচ্ছিলেন মন্দিরের পূজারি বাবু ভট্ট। গত শনিবারও গৌরীব্রত উপলক্ষে মন্দিরে প্রবেশের চেষ্টা করেন ওই যুবতীরা এবং তাঁদের বাধা দেন বাবু। কিন্তু সেই বাধা টপকেই মন্দিরে ঢুকে পড়েন এক যুবতী। তখন সেই পূজারি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এবং ওই যুবতীর উদ্দেশে জাতপাত তুলে গালিগালাজ করেন। ওই যুবতীকে ধাক্কা দিয়ে মন্দির থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগও উঠেছে ভট্টের বিরুদ্ধে।

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ওই পূজারির বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন এক যুবতীর বাবা গোপাল মুচি। তাঁর কথায়, “ব্যাপারটা মিটমাট করিয়ে নিতে মন্দিরে গিয়েছিলাম, কিন্তু তাঁর ছেলে নীলেশ আমাকে হুমকি দেয় এবং বলে পুলিশ ওদের কিছুই করতে পারবে না।”

তপশিলি জাতি/তপশিলি উপজাতি (নৃশংসতা প্রতিরোধ) আইনে এফআইআর করা হয়েছে। তবে এখনও কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বাবু ভট্ট। তাঁর দাবি, অন্য কয়েক জন যুবতীর সঙ্গে তিনি মন্দিরে প্রার্থনা করছিলেন, তাই তখন দলিত যুবতীদের মন্দিরে ঢুকতে বারন করেছিলেন। ধাক্কা দিয়ে বার করে দেওয়ার কথা অস্বীকার করেন তিনি।

 

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here