সামনে মা পূজা, পেছনে পাইলটের পোশাকে মেয়ে অশ্রিতা। ছবি: ক্যারামেলউইংস

ওয়েবডেস্ক: সরকারি বিমানসংস্থা এয়ার ইন্ডিয়ায় বিমানসেবিকা হিসেবে ৩৮ বছরের কর্মজীবনে ইতি টানলেন পূজা চিনচারকর। সেই যাত্রা আরও স্মরণীয় হয়ে থাকল কারণ বিমানে পাইলটের আসনে বসেছিলেন তাঁর মেয়ে অশ্রিতা।

মঙ্গলবার মুম্বই-বেঙ্গালুরু-মুম্বই উড়ানে শেষ বারের মতো বিমানসেবিকা হয়ে নেমেছিলেন পূজা। অবতরণের ঠিক দশ মিনিট আগে প্যাসেঞ্জার অ্যানাউন্সমেন্ট সিস্টেম ব্যবহার করে বিমানের মূল পাইলট পূজাদেবীর অবসরের কথা ঘোষণা করেন। এর পরেই বিমানের মধ্যে হাঁটেন তিনি। তাঁকে হাততালি দিয়ে অভিবাদন জানান যাত্রীরা।

এই মুহূর্তের ভিডিও অন্য এক বিমানকর্মী নিজের ক্যামেরায় বন্দি করেন। পরে সেটি টুইট করেন অশ্রিতা। তিনি বলেন, “জীবনের এক অন্তত গুরুত্বপূর্ণ উড়ানে পাইলটের আসনে বসেছিলাম আমি। মায়ের স্বপ্ন ছিল যে আমি অন্তত একবার তাঁর উড়ানেই পাইলট হিসেবে থাকব। মায়ের এই উত্তরাধিকার আমি বহন করে চলব।”

১৯৮০-এর ডিসেম্বরে এয়ার ইন্ডিয়ায় যোগ দিয়েছিলেন পূজা। ১৯৮১-এর মার্চ থেকে মুম্বই থেকে উড়ানগুলিতে বিমানসেবিকার কাজ করছেন তিনি। ২০১৬ সালে পাইলট হিসেবে যোগদান করেন তাঁর মেয়ে।

বিমানসেবিকা হিসেবে মায়ের জীবনের শেষ উড়ানটির সহকারী পাইলট তাঁকে করার জন্য এয়ারইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছিলেন অশ্রিতা। বিমান কর্তৃপক্ষ কোনো দ্বিধা না করেই সেই আবেদন মঞ্জুর করে দেয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন