deepak mishra
দীপক মিশ্র। ছবি: পিটিআই

নয়াদিল্লি: অবসরের আগে আর হাতে রয়েছে বড়ো জোর দিন কুড়ি। তার আগে অন্তত পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে রায় দেওয়ার কথা বর্তমান প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের। এর মধ্যে রয়েছে অযোধ্যা বিতর্কের সঙ্গে সম্পর্কিত একটি মামলা, আধারের সাংবিধানিক বৈধতার মতো বিষয়ও।

এর মধ্যে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ অবশ্য আধারের সাংবিধানিক বৈধতা। গত এপ্রিল-মে মাসে টানা ৩৮ দিনের শুনানির পর রায়দান আপাতত স্থগিত রেখেছে সুপ্রিম কোর্ট। আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই এর রায় বেরোতে পারে। এই রায়ের ওপরে নজর থাকবে সরকার, বিরোধী সব পক্ষেরই। যদি আধার-রায় বিরোধীদের পক্ষে যায়, তা হলে লোকসভা নির্বাচনের আগে বড়ো অস্ত্র পেয়ে যাবে বিরোধীরা। অন্য দিকে সরকারের পক্ষে গেলে বিরোধীদের আক্রমণ করতে আরও বেশি সুবিধা হবে।

আরও পড়ুন শিক্ষা, পর্যটনের প্রসারে দার্জিলিং-এ একাধিক প্রকল্পের ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

রায় বেরোতে পারে অযোধ্যা বিতর্কের সঙ্গে সম্পর্কিত একটি মামলারও। মসজিদ, ইসলাম ধর্মের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ কি না, সেই ব্যাপারে রায় বেরোনোর কথা। উল্লেখ্য, ১৯৯৪ সালে এম ইসমাইল ফারুকীর বেঞ্চের রায় ছিল মসজিদ ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ নয়। তার বিরুদ্ধে একাধিক আবেদন জমা পড়ে সুপ্রিম কোর্টে। সেই মামলার শুনানি হয়ে গিয়েছে। এর রায়দানের ওপরেই নির্ভর করবে কোন পথে এগোবে রামজন্মভুমি-বাবরি মসজিদ মামলা।

অন্য দিকে সমকামিতা সম্পর্কিত সংবিধানের ৩৭৭ ধারা নিয়েও রায় দিতে পারেন দীপক মিশ্র। সমকামিতা অপরাধ কি অপরাধ নয়, সেই ব্যাপারে রায় দেওয়া হবে। এ ছাড়াও কেরলের সাবারিমালা মন্দিরে মহিলাদের প্রবেশাধিকার নিয়েও রায় দিতে পারেন দীপক মিশ্র। তফশিলি জাতি/উপজাতিদের নিয়েও একটি গুরুত্বপূর্ণ মামলার রায়দান করে ফেলতে পারেন বর্তমান প্রধান বিচারপতি।

আগামী ২ অক্টোবর অবসর নেবেন বিচারপতি দীপক মিশ্র। তাঁর বদলে দায়িত্ব নেবেন বিচারপতি রঞ্জন গগৈ।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন