delhi pollution

নয়াদিল্লি: রবিবারের পর মঙ্গলবারও মাঠে মাস্ক পরে নামলেন শ্রীলঙ্কার ফিল্ডাররা। অনেকেই মনে করছেন একটু বেশি বাড়াবাড়িই করে ফেলছেন তাঁরা। কিন্তু কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের রেকর্ড দেখলে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের আদৌ কোনো দোষ দেওয়া যায় না।

কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ জানায়, মঙ্গলবার ভোরে দিল্লির বাতাসের মান সংক্রান্ত সূচক (একিউআই) ছিল ৩৭৮। একিউআইয়ের স্বাভাবিক সূচক ২০০। একিউআই যদি চারশোয় পৌঁছে যায় তা হলে দূষণ মাত্রা ‘চরম’-এ পৌঁছোয়। দিল্লির কাছে গাজিয়াবাদে পরিস্থিতি আরও খারাপ। সেখানে মঙ্গলবার ভোরে একিউআই ছিল ৪৬৭।

আবহাওয়া দফতরের কথায়, কম তাপমাত্রা এবং ঘূর্ণিঝড় ‘অক্ষি’র ফলে বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে দিল্লিতে। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, এই সপ্তাহের শেষের দিকে দিল্লির পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে।

এ দিকে দূষণের কথা মাথায় থাকলেও, কেন দিল্লিতে ভারত-শ্রীলঙ্কা টেস্ট ম্যাচ রাখা হয়েছিল, সে জন্য সোমবারই বিসিসিআই এবং দিল্লি সরকারকে ভর্ৎসনা করেছে পরিবেশ আদালত। চাপের মুখে বিসিসিআই জানিয়েছে, ভবিষ্যতে দিল্লিতে খেলা দেওয়ার ব্যাপারে ভাবনা চিন্তা করা হবে। বোর্ডের অস্থায়ী সচিব অমিতাভ চৌধুরী বলেন, “ভবিষ্যতে এই সময়ে দিল্লিতে খেলা দেওয়ার ব্যাপারে ভাবনা চিন্তা করা হবে।”

তবে তিনি পুরো বল ঠেলে দিয়েছেন শ্রীলঙ্কার কোর্টে। তাঁর কথায়, “সূচি নিয়ে শ্রীলঙ্কার যদি কোনো সমস্যা থাকতে, তা হলে আমাদের সঙ্গে কথা বললেই পারত।”

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here