খবরঅনলাইন ডেস্ক: সপ্তাহ দুয়েক ধরে অক্সিজেনের সংকটে নাজেহাল অবস্থা হয়েছিল দিল্লির হাসপাতালগুলির। সেই সংকট শেষ হয়ে গিয়েছে। শুক্রবার এমনই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সেই সঙ্গে তাঁর দাবি, আগামী তিন মাসের মধ্যেই গোটা দিল্লির টিকাকরণ করিয়ে ফেলতে পারবে তাঁর সরকার।

শুক্রবার বিকেলে দিল্লির মন্ত্রীসভার সদস্য এবং প্রশাসনিক সঙ্গে উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে বসেন কেজরি। দিল্লির সাতটি জেলার জেলাশাসকরা ছাড়াও এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী মনীশ সিসৌদিয়া, স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনরা। বৈঠক শেষে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “দিল্লি অক্সিজেনের কোনো সংকট আর নেই। সব হাসপাতালে যথেষ্ট পরিমাণে অক্সিজেন শয্যার ব্যবস্থা হয়েছে।”

Loading videos...

মুখ্যমন্ত্রী আরও জানান যে টিকার সরবরাহ ঠিকঠাক থাকলে আগামী তিন মাসের মধ্যেই ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সকল দিল্লিবাসীর টিকাকরণ করিয়ে ফেলতে পারবে তাঁর সরকার। এর মধ্যে দিয়ে করোনার তৃতীয় ঢেউ এড়িয়ে যাওয়া যাবে বলে মনে করেন তিনি।

দিল্লিতে ৪৫ বছরের ঊর্ধ্বদের পাশাপাশি ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সিদের টিকাকরণও জোরকদমে শুরু হয়ে গিয়েছে। জেলাশাসকদের কেজরি নির্দেশ দিয়েছেন তাঁরা যেন প্রতিদিন দুটো থেকে চারটে টিকাকরণ কেন্দ্র ঘুরে দেখে সমস্ত প্রক্রিয়ার ওপরে নজর দেন।

উল্লেখ্য, গত দশ দিনে দিল্লির কোভিড পরিস্থিতির অনেকটাই উন্নতি হয়েছে। একটা সময়ে ৩৬ শতাংশে উঠে যাওয়া দিল্লির সংক্রমণের হার এখন ২৪ শতাংশের ঘরে নেমে এসেছে। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা এখন ২০ হাজারের নীচে রেকর্ড করা হচ্ছে। সক্রিয় রোগীর সংখ্যা যেটা এপ্রিলের শেষে প্রায় ১ লক্ষের দোরগোড়ায় চলে গিয়েছিল, সেটা এখন ৯১ হাজারে নেমে এসেছে।

লকডাউনের কারণেই দিল্লিতে সংক্রমণের দাপট ক্রমশ কমছে। ফলে সেটি আর বাড়ানো হবে কি না, সেই ব্যাপারে এখন গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে হবে মুখ্যমন্ত্রীকে।

আরও পড়তে পারেন Assam CM Dilema: ফলাফলের ছ’দিন পরেও মুখ্যমন্ত্রীর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারল না বিজেপি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.