লকডাউন নয়, তবে দূষণ ঠেকাতে দিল্লিতে ফিরল করোনাকালীন বিধিনিষেধ

0
Pollution in Delhi

নয়াদিল্লি: রোগ হরেকরকম, কিন্তু দাওয়াই একটাই! লকডাউন বা বিধিনিষেধ। যাতে মানুষ রাস্তায় বেরোতে না পারেন।

দিল্লির অসহনীয় দূষণ পরিস্থিতি থেকে মুক্তির জন্য শনিবার লকডাউনের নিদান দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। এখনও পর্যন্ত পুরো লকডাউন ঘোষণা না করলেও করোনাকালীন বিধিনিষেধ ফিরিয়ে আনল দিল্লির অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকার।

রাজধানীতে আগামী সাত দিনের জন্য স্কুল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। পাশাপাশি, সরকারি কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে দিল্লিতে সমস্ত নির্মাণ কাজ আপাতত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

দিপাবলি-পরবর্তী সময়ে দিল্লি ধোঁয়াশায় ঢেকে যাওয়ার কারণেই এই নির্দেশ, জানিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। আপাতত সোমবার অর্থাৎ ১৫ তারিখ থেকে পরবর্তী সাত দিনের জন্য এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে নির্মাণ কাজ, যেগুলি থেকে প্রবল ধুলো ছড়ায়, সে গুলি আপাতত ১৪ তারিখ থেকে বন্ধ রাখতে বলেছে দিল্লি সরকার।

দিল্লির দূষণ পরিস্থিতি নিয়ে শনিবার রাজ্য সরকারকে কড়া কথা শুনিয়েছিল শীর্ষ আদালত। জরুরি ভিত্তিতে এই দূষণ নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ করতেও বলেন প্রধান বিচারপতি এনভি রমণা।

তার পরেই সাংবাদিকদের কাছে কেজরিওয়াল বলেন, ‘‘১৫ তারিখ থেকে আগামী সাত দিনের জন্য স্কুল বন্ধ থাকবে। ক্লাস হবে ভার্চুয়াল মাধ্যমে। এই সাত দিন সরকারি দফতরের কর্মীদেরও কাজ করতে হবে বাড়ি থেকে। সব কর্মীরাই বাড়ি থেকে কাজ করবেন। প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বার হবেন না। বেসরকারি দফতরগুলির ক্ষেত্রেও এই নির্দেশ যাতে কার্যকর করা যায়, সেই মর্মে অনুরোধ করা হচ্ছে। এ ছাড়া ১৪ থেকে ১৭ নভেম্বর বন্ধ থাকবে নির্মাণ কাজ। তবে এই গোটা ঘটনাটিকে ‘লকডাউন’ বলা যাবে না।’’

দিল্লি ও দিল্লির উপকণ্ঠের অঞ্চলগুলি, যেমন গুরুগ্রাম, নয়ডা, গাজিয়াবাদ দূষণের তীব্র দাপটে ঢাকা পড়ে গিয়েছে। দিপাবলির কারণেই এমন পরিস্থিতির তৈরি হচ্ছে প্রায় প্রতি বছরই। বছর বছর এই নিয়ে আদালতের নির্দেশও আসছে। তবু রাজধানীর চেহারা পাল্টায়নি। এ বছর শত নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও শেষ পর্যন্ত সেই ধোঁয়াশায় ঢেকে গিয়েছে দিল্লি শহর।

আরও পড়তে পারেন

সাহসিকতার মাশুল! অপহরণের চার দিন পর উদ্ধার হল বিহারের সাংবাদিকের দগ্ধ দেহ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন