হিংসায় উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে জেএনইউ-র প্রাক্তনীর বিরুদ্ধে এফআইআর

0
Sharjeel Imam

নয়াদিল্লি: শাহিনবাগের বিক্ষোভে বক্তৃতা করে প্রচারের আলোয় উঠে এসেছিলেন শার্জিল ইমাম। রবিবার তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে বলে জানাল দিল্লি পুলিশ। কী কারণে?

শাহিনবাগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) বিরোধী বিক্ষোভে অংশ নিয়ে শার্জিল হিংসায় উস্কানিমূলক বক্তৃতা দিয়েছিলেন বলে পুলিশের অভিযোগ। নতুন নাগরিকত্ব আইন এবং বিতর্কিত জাতীয় নাগরিকপঞ্জী (এনআরসি) নিয়ে তিনি যে ধরনের বক্তব্য রেখেছিলেন, তা দেশদ্রোহিতার শামিল বলে ধারণা করছে পুলিশ। কে এই শার্জিল ইমাম?

শার্জিল বিহারের বাসিন্দা। তিনি দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় (জেএনউই)-র প্রাক্তন ছাত্র। গত ১৩ ডিসেম্বর দিল্লির জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়েও তিনি বক্তৃতা করেন। পুলিশের অভিযোগ, সেখানে উত্তেজক বক্তব্য পেশের পর পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ওই বক্তব্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই তা ভাইরাল হয়। তাঁর বিরুদ্ধে কী অভিযোগ পুলিশের?

পুলিশের অভিযোগ, শার্জিলের বক্তব্য ধর্মীয় সম্প্রতী নষ্ট করার জন্য সহায়ক। একই সঙ্গে ভারতের ঐক্য এবং সংহতির ক্ষেত্রেও ক্ষতিকর। এই কারণেই তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। কী বলেছিলেন শার্জিল?

ইমামকে একটি অডিও ক্লিপে বলতে শোনা গিয়েছিল, “অসমকে ভারতের অন্যান্য অঞ্চল থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া উচিত এবং একটি শিক্ষা দেওয়া উচিত। কারণ হিন্দু ও মুসলমান বাঙালিদের নির্বিশেষে হত্যা করা হয়েছে বা ক্যাম্পে আটকে রাখা হয়েছে”।

আরও পড়ুন: সিএএ-র প্রতিবাদে কলকাতায় সুদীর্ঘ মানববন্ধন

তাঁকে আরও বলতে শোনা যায়, তিনি যদি পাঁচ লক্ষ মানুষকে সংগঠিত করতে পারেন, তা হলে অসমকে গোটা ভারতের থেকে বিচ্ছিন্ন করে দিতেন। যদি স্থায়ী ভাবে তা সম্ভব না হয়, তা হলে কয়েক মাসের জন্য তো বটেই।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.