pollution

নয়াদিল্লি: ক্রমশ ভয়াবহ আকার ধারণ করছে দিল্লি এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের দূষণের মাত্রা। দূষণের মাত্রা ঠেকাতে ফের জোড়-বেজোড়েফিরতে চলেছে দিল্লি সরকার। দূষণ এবং ধোঁয়াশার কোপে পড়েছে ট্রেন এবং বিমান পরিষেবাও।

মঙ্গলবার সকাল থেকে দূষণের দাপট দেখানো শুরু হয় দিল্লিতে, বুধবার পেরিয়ে বৃহস্পতিবার সেটা চরম আকার ধারণ করেছে। বাতাসের মান সংক্রান্ত সূচক (একিউআই) মঙ্গলবার ছিল ৪১১, বৃহস্পতিবার সেটা পৌঁছেছে ৪৬৮-এ। একিউআই দু’শো পেরিয়ে গেলে সেটাকে বিপজ্জনক বলে মনে করা হয়।

দূষণ ঠেকাতে ১৩ নভেম্বর থেকে পাঁচ দিনের জন্য জোড়-বেজোড় পরিকল্পনায় ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দিল্লি সরকার। উল্লেখ্য, গত বছর জানুয়ারিতে দিল্লির দূষণের মাত্রা যখন চরম আকার ধারণ করেছিল তখন এই পরিকল্পনা করেছিল দিল্লি সরকার। পরিকল্পনা অনুযায়ী মাসের বেজোড় তারিখে বেজোড় সংখ্যার গাড়ির নম্বর রাস্তায় বেরোবে, উলটোটা হবে জোড় সংখ্যার দিন। এই প্রকল্পে কিছুটা সাফল্য পাওয়া গিয়েছিল।

এ সবের মধ্যে পঞ্জাব এবং হরিয়ানার উদ্দেশে ফের নাড়া পোড়ানো বন্ধ রাখার আবেদন করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। এ ব্যাপারে পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংহের সঙ্গে বৈঠকে বসার আবেদন করেছেন কেজরি।

দিল্লি এবং উত্তর ভারতের দূষণ এবং ধোঁয়াশার জন্য দেরিতে চলছে বহু ট্রেন। কলকাতা থেকে দিল্লিগামী বহু ট্রেনই ১ থেকে ৫ ঘন্টা করে দেরিতে চলছে। তবে আশার কথা এই রুটের কোনো ট্রেনকে এখন বাতিল করতে হয়নি।

আবহাওয়া দফতরও কিছুটা স্বস্তির খবর শোনাচ্ছে দিল্লিবাসীর জন্য। শুক্রবার থেকে দাপট কমতে পারে ধোঁয়াশার। পরিষ্কার আকাশে দেখা যেতে পারে সূর্যের।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here