প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক:দিল্লিকে প্লাস্টিক-মুক্ত করার পদক্ষেপ হিসাবে দক্ষিণ দিল্লি পুরনিগমের (এসডিএমসি) উদ্যোগে প্রথম ‘গারবেজ ক্যাফে’ খোলা হল। দ্বারকা সেক্টর ২১-এর সিটি সেন্টার মলে অবস্থিত এই দোকানে যে কেউ ‘বিনামূল্যে’ খাবার পেতে পারেন, তবে তার জন্য প্লাস্টিকের বর্জ্য বিনিময় করতে হবে। মলের অন্যান্য খাবারের দোকানগুলি থেকেও প্লাস্টিক বর্জ্যের বিনিময়ে ক্রেতারা ছাড়ের কুপন সংগ্রহ করতে পারবেন।

ক্যাফেটি ২৫০ গ্রাম প্লাস্টিক বর্জ্যের বিনিময়ে স্ন্যাকস এবং ১ কেজি প্লাস্টিকের বর্জ্যের বিনিময়ে একটি পূর্ণ আহার (ফুল মিল) সরবরাহ করছে। এই উদ্যোগ সম্পর্কে আরও বেশি সংখ্যক মানুষকে অবহিত করার জন্য মলের চারপাশে পোস্টার সাঁটানো হয়েছে এবং যাতে সাধারণ মানুষ প্লাস্টিকটিকে বর্জ্য হিসাবে ফেলে না দিয়ে খাবার নিতে পারেন, সে বিষয়ে বিস্তারিত প্রচার করা হয়েছে।

Loading videos...
দিল্লি

এ প্রসঙ্গে গারবেজ ব্যাঙ্কের ব্যবস্থাপক কুলদীপ রাঠী দাবি করেছেন, আউটলেটটির স্বতন্ত্রতা এটি মলের অভ্যন্তরে অবস্থিত। যে কারণে খাবারের মানের দিকে বিশেষ মনোযোগ দেওয়া হয়েছে।

রাঠী বলেন, “স্ন্যাক্স হিসাবে আমরা সিঙাড়া, চা, বার্গার, স্যান্ডউইচ, পরোটা এবং পূর্ণ আহারের জন্য ভাত, তরকারি এবং ডাল, সঙ্গে মাখনের রুটি দিচ্ছি। প্লাস্টিকের বর্জ্যের বিনিময়ে আমরা অন্যান্য ভাবে ছাড়ের সুবিধাও দিচ্ছি। এই ছাড় পাওয়ার জন্য মলের ভিতরে খাবারের আউটলেটগুলিতে কুপন দেওয়ার ব্যবস্থাও রয়েছে”।

ছত্তীসগঢ়

এসডিএমসির স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান ভূপিন্দর গুপ্তা জানিয়েছেন, “দেশের প্রথম গারবেজ ক্যাফে তৈরি হয়েছিল ছত্তীসগঢ়ে। দ্বিতীয়টি হল দিল্লিতে। এ ধরনের আরও বেশ কয়েকটি ক্যাফে খোলার পর কর্মসূচিটি পূর্ণাঙ্গ রূপ পাবে। এ ভাবেই দিল্লিকে প্লাস্টিক-মুক্ত শহর গড়ে তোলার লক্ষ্যপূরণ কয়েক ধাপ এগিয়ে যাবে”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.