arun jaitely

নয়াদিল্লি: বিমুদ্রাকরণের সাফল্য সে ভাবে দেখা যাচ্ছে না। তাই কি বর্ষপূর্তির আগের দিন কিছুটা বেসুরো কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি।  এক বছর আগে যখন বিমুদ্রাকরণ ঘোষণা করা হয়েছিল তখন প্রধানমন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রী ঘটা করে বলেছিলেন এর ফলে নাকি দুর্নীতি একদম বন্ধ হয়ে যাবে। কিন্তু বছর ঘুরতেই অর্থমন্ত্রী বললেন, বিমুদ্রাকরণ দুর্নীতি বন্ধ করার একমাত্র উপায় নয়।

তবে নগদহীন অর্থনীতিতেও যে দুর্নীতি পুরোপুরি বন্ধ করা যাবে না তা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

মঙ্গলবার জেটলি বলেন, বিমুদ্রাকরণের ফলে ভারতীয় অর্থনীতি নতুন দিশা পেয়েছে। তাঁর কথায়, “দুর্নীতি দমনে বিমুদ্রাকরণ কখনোই একমাত্র পন্থা হতে পারে না। তবে এর ফলে দিশা বদলেছে। নগদহীন অর্থনীতিতে এগিয়ে যেতে সাহায্য করেছে। করদাতার সংখ্যা বেড়েছে, ডিজিটাল লেনদেন বেড়েছে, সেই সঙ্গে জঙ্গি কার্যকলাপে অর্থ জোগানও কমেছে।” এই সবের জন্য তিনি সন্তুষ্ট বলে জানান অর্থমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, “আমরা বিজেপি কর্মীরা সব সময় ভেবেছিলাম ভারতের অর্থনীতির স্বার্থে স্থিতাবস্থা ভাঙা জরুরি ছিল। যখন বড়ো সংখ্যার নোটে ৮৬ শতাংশ লেনদেন হয়, তখন কর ফাঁকি দেওয়ার তালিকাটা অনেক বড়ো হয়ে যায়। সেটাই বদল করা অত্যন্ত জরুরি ছিল।”

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here