নয়াদিল্লি: গুরমিত রাম রহিমের রায়কে কেন্দ্র করে অশান্তি সৃষ্টির জন্য অর্থ জুগিয়েছিল ডেরা সচা সৌদা।

রায়কে কেন্দ্র করে হরিয়ানা ও পঞ্জাবের কিছু অঞ্চল জুড়ে যে হিংসার সৃষ্টি হয়েছিল, তা নিয়ে তদন্ত করছে পুলিশের বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট)। সেই সিটের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যে অশান্তির ফলে ৩৯ জনের প্রাণ গেল সেই অশান্তি সৃষ্টির জন্য পাঁচ কোটি টাকা খরচ করেছিল ডেরা। এ ব্যাপারে আদিত্য ইনসান, হানিপ্রীত ইনসান এবং সুরেন্দর ধীমান ইনসানের ভূমিকা নিয়ে তদন্ত করছে সিট।

সিটের রিপোর্টে বলা হয়েছে, জনতা জড়ো করার মূল দায়িত্ব ছিল ডেরার পাঁচকুলা শাখার প্রধান চমকৌর সিং-এর ওপরে। ডেরার পরিচালন কর্তৃপক্ষ তাঁকেই ওই টাকা দিয়েছিল। তা ছাড়া পঞ্জাবের বিভিন্ন জায়গায় টাকা পাঠানো হয়েছিল বলে সিট-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। অনুগামীদের নাকি এই বলে আশ্বস্তও করা হয়েছিল যে হিংসায় যদি জীবনহানি হয় তা হলে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। একটি নামী সংবাদপত্রে উল্লিখিত সূত্র উদ্ধৃত করে এ কথা জানানো হয়েছে।

জানা গিয়েছে, চমকৌর সিং-এর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে মামলা দায়ের করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। এর পর থেকেই চমকৌর সিং সপরিবার গা ঢাকা দিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, চমকৌর সিং-কে গ্রেফতার করতে পারলে আরও অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে। পুলিশের ডিজি বি এস সন্ধু জানিয়েছেন, চমকৌর সিং-এর লুকিয়ে থাকার সম্ভাব্য জায়গাগুলো খুঁজে দেখতে পুলিশের অনেকগুলো দল কাজ করছে।

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন