জিয়ামেন: ব্রিক্স সম্মেলনের আগে কূটনৈতিক দিক থেকে বিরাট জয় পেল ভারত। জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈবা এবং জৈশ-ই-মহম্মদকে আইএসের সঙ্গে এক তালিকায় রেখেই বিবৃতি প্রকাশ করল ব্রিক্স।

এই প্রথম এই দুই সংগঠনকে আইএসের সঙ্গে তুলনা করল পাঁচ দেশের এই সংগঠন ব্রিক্স। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “ব্রিক্সের সদস্যভুক্ত দেশগুলি ছাড়াও সন্ত্রাসবাদ বাকি বিশ্বে যে প্রভাব ফেলেছে, আমরা তার গভীর নিন্দা করছি।”

উল্লেখ্য, জৈশ জঙ্গি মাসুদ আজাহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার জন্য রাষ্ট্রপুঞ্জে ভারত বারবার দরবার করলেও, সব সময়েই বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে চিন। তাদের বাধা দেওয়ার ফলেই আজহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা যায়নি।

সোমবার ব্রিক্সের পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মোদীকে দেখেই এগিয়ে এসে তাঁর সঙ্গে করমর্দন করেন চিনা প্রেসিডেন্ট ঝি জিংপিং। এই অধিবেশনে ভাষণ দিতে গিয়ে ব্রিক্সের সদস্য দেশগুলির জনগণের মধ্যে যোগাযোগ আরও বাড়ানোর ওপর জোর দেন মোদী। কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কগুলির ক্ষমতা আরও বাড়ানোর কথা বলেন তিনি।

এর পাশাপাশি স্বাস্থ্যব্যবস্থা, খাদ্য সুরক্ষা, লিঙ্গ সমতা, বিদ্যুৎ ও শিক্ষাব্যবস্থায় উন্নতির ব্যাপারে এই ফোরামের গুরুত্বের কথা উল্লেখ করেন।

সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে আয়োজক দেশ চিনের প্রেসিডেন্ট জি জিনপিং বলেন, “শান্তি এবং উন্নয়নের জন্য ব্রিক্সের দেশগুলিকে এক সুরে কথা বলতে হবে। সব সমস্যার সমাধানে এক সঙ্গে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।” এর পাশাপাশি নিউ ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্ক প্রকল্পের জন্য ব্রিক্স ব্যাঙ্কে চার লক্ষ মার্কিন ডলার দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেন চিনা প্রেসিডেন্ট।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here