সংসদের অচলাবস্থায় ক্ষতি করদাতাদের দেওয়া ১৩৩ কোটি টাকা, চাঞ্চল্যকর পরিসংখ্যান

0
সংসদ। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: এ বারের বাদল অধিবেশনের শুরু থেকেই পেগাসাস নজরদারি, কৃষি আইন-সহ একাধিক ইস্যুতে উত্তাল হয়েছে সংসদের দুই কক্ষ। অচলাবস্থার কারণে করদাতাদের দেওয়া প্রায় ১৩৩ কোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে শনিবার জানা গেল সরকারি সূত্রে।

কাজ হয়েছে মাত্র ১৮ ঘণ্টা!

এ বারের বাদল অধিবেশন শুরু হয়েছিল গত ১৯ জুলাই। সূত্রের খবর, তার পর থেকে মোট ১০৭ ঘণ্টা কার্যসময়ের মধ্যে মাত্র ১৮ ঘণ্টা পেয়েছে সংসদ। বাকি সময়টা গিয়েছে অধিবেশন মুলতুবি এবং অন্যান্য কারণে।

Shyamsundar

একাধিক ইস্যুতে কেন্দ্রের উপর চাপ বাড়িয়েছে বিরোধী দলগুলি। বিতর্কে জড়িয়েছেন শাসক দলের সংসদ সদস্যরাও। লোকসভা এবং রাজ্যসভা, সংসদের উভয় কক্ষেই ব্যাঘাত ঘটেছে যার জেরে।

কোথায় কত ঘণ্টার কার্যক্রম

সরকারি সূত্র বলছে, লোকসভায় কাজের সময় ছিল ৫৪ ঘণ্টা, কিন্তু সেই জায়গায় হয়েছে মাত্র ৭ ঘণ্টা। অন্য দিকে রাজ্যসভায় কাজ হয়েছে ১১ ঘণ্টা, যা হতে পারত ৫৩ ঘণ্টা।

সব মিলিয়ে ১০৭ ঘণ্টার মধ্যে মাত্র ১৮ ঘণ্টা কাজ হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই সরকারি বিবৃতিতে। একই সঙ্গে দাবি করা হয়েছে, এর ফলে সাধারণ মানুষের করের ১৩৩ কোটি টাকার ক্ষতিও হয়েছে।

কংগ্রেসকে কাঠগড়ায় তুলেছেন মোদী

ক’দিন আগেই সংসদের অধিবেশন স্বাভাবিক ভাবে চলতে না দেওয়ার অভিযোগ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর নিশানায় ছিল কংগ্রেস। সংসদে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্য কংগ্রেসকে দায়ী করে তিনি বিজেপি সাংসদদের বলেন, “জনসাধারণ এবং মিডিয়ার সামনে কংগ্রেসের স্বরূপ প্রকাশ করতে”। প্রধানমন্ত্রীর সেই আক্রমণের চার দিন পরই এই সরকারি বিবৃতি।

বিজেপির সংসদীয় দলের এক বৈঠকে মোদী কংগ্রেসের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন, পেগাসাস নজরদারি, কৃষি আইন-সহ অন্য় ইস্যুগুলি নিয়ে সংসদে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে কংগ্রেস। অধিবেশনে ব্যাঘাত ঘটাতে কংগ্রেস ইচ্ছাকৃত ভাবে এই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

স্বাভাবিক ভাবেই বিরোধীদের কোণঠাসা করতে সংসদের অচলাবস্থা, তার জেরে আর্থিক ক্ষতি এবং তার সঙ্গে সাধারণ মানুষের দেওয়া করের টাকার উল্লেখ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই ধারণা রাজনৈতিক মহলের।

আরও পড়তে পারেন: বাবুলের বুকে তখন আগুন, ‘ঘি’ ঢেলেছিল মমতার ‘সহানুভূতি’র বার্তা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন