খবরঅনলাইন ডেস্ক: অসমের পরে এ বার কর্নাটকে চিকিৎসককে মারধর করার অভিযোগ উঠল রোগীর আত্মীয়দের বিরুদ্ধে। ঘটনার ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যেতেই জড়িত সন্দেহে ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে শিবমোগা শহরে। জেলার পুলিশ সুপার এমএইচ অক্ষয় বলেন, ‘‘৬ বছরের ডেঙ্গি-আক্রান্ত শিশুর চিকিৎসা করছিলেন এক চিকিৎসক। ওই শিশুটিকে শিবমোগার একটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানেই মৃত্যু হয় তার। এর পরেই চিকিৎসককে মারধর করে শিশুটির পরিবারের লোকেরা।” এই মুহূর্তে গুরুতর আহত অবস্থায় শিবমোগায় চিকিৎসা চলছে ওই চিকিৎসকের।

এই ঘটনার পরেই কর্নাটকের রেসিডেন্ট ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পাকে চিঠি লিখেছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, “কর্নাটকের কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলায় চিকিৎসকরা দিনরাত পরিশ্রম করছেন। কিন্তু এটা দুর্ভাগ্যজনক যে, গত ৮-১০ মাসে চিকিৎসকদের উপর হামলার ১২টি ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে। এ ছাড়া আরও অনেক ঘটনা রয়েছে, যেগুলি নথিভুক্ত নয়। এই ধরনের হামলার ঘটনার বিরুদ্ধে আমরা পদক্ষেপ করার আবেদন জানাচ্ছি।”

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার অসমের হোজাইয়ে এক কোভিড-আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর পরে তাঁর পরিবারের লোকেরা চিকিৎসককে বেধড়ক মারধর করেন। এই ঘটনায় ২৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। স্বাস্থ্যকর্মীদের বিরুদ্ধে হামলার ঘটনায় কড়া আইন নিয়ে আসার আবেদন জানিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি লিখেছে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনও।

আরও পড়তে পারেন দায়িত্বে থাকাকালীন পুলিশের হাতে মোবাইল ফোন অথবা সোশ্যাল মিডিয়া নয়, নির্দেশ বিহারে

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন