indo-sino

বেজিং: ফের ডোকলাম নিয়ে ভারতকে তোপ দাগল চিন। ডোকলামের সেই বিতর্কিত অঞ্চলকে নিজেদের বলে দাবি করে চিন জানিয়ে দিল সেখানে চিন যা করছে সব বৈধ। ডোকলাম নিয়ে ভারতের মন্তব্যও নিষ্প্রয়োজন বলে জানাল তারা।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম অনুযায়ী ডোকলামের সেই বিতর্কিত অঞ্চলের কাছেই একটা বড়োসড়ো সেনাঘাঁটি তৈরি করছে চিন। চিনের এই ‘প্ররোচনা’ সত্ত্বেও কেন্দ্র তাতে বিশেষ মাথা দিচ্ছে না, এই অভিযোগ তুলেছে কংগ্রেস-সহ দেশের বিরোধী দলগুলি।

চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র লু কাং বলেন, “ডংলং (ডোকলাম) নিয়ে আমাদের অবস্থান একেবারে স্পষ্ট। ডোকলাম চিনেরই অংশ ছিল, এখনও আছে। এই ব্যাপারে কারও কোনো দ্বিমত নেই। সীমান্ত পাহারা দেওয়া এবং ওখানকার স্থানীয় বাসিন্দাদের জন্য ওই অঞ্চলে রাস্তা তৈরি ছাড়াও আরও পরিকাঠামো তৈরি করা হচ্ছে।”

তিনি আরও বলেন, “নিজেদের অঞ্চলে নিজেদের ক্ষমতা প্রয়োগ করছে চিন। এতে অন্য কারও কিছু বলার অধিকার থাকতে পারে না। চিনও ভারতের সংবিধান নিয়ে কোনো প্রশ্ন তুলতে পারে না। ভারত নিজেদের অঞ্চলে কোথায় কী তৈরি করবে সেই দিকে নজর দেওয়ার কোনো এক্তিয়ার চিনের নেই। ঠিক তেমনই আমরা কী করছি সে ব্যাপারে ভারত যেন কিছু না বলে।”

উল্লেখ্য, এই ডোকলামেই গত বছর ৭৩ দিনের জন্য অচলাবস্থা তৈরি হয়েছিল ভারত এবং চিনের মধ্যে। পরিস্থিতি এমন জায়গায় চলে যায় যে এক সময় মনে হচ্ছিল দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ লেগে যেতে পারে। কিন্তু দু’দেশের কূটনৈতিক হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। ডোকলাম থেকে সেনা সরাতে রাজি হয় দু’পক্ষই।

তখনকার জন্য পরিস্থিতি শান্ত হলেও, ডোকলামকে কেন্দ্র করে ধিকিধিকি আগুন যে এখনও জ্বলছে সেটা ফের প্রমাণিত হল।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন