মাদক মামলায় ফেঁসে কিডনি দানের অঙ্গীকার, সুপ্রিম কোর্টে স্বস্তি অভিযুক্তের

0
Supreme Court
সুপ্রিম কোর্ট। প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: মাদক মামলায় এক অভিযুক্তকে বিশেষ শর্তে স্বস্তি দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। অভিযুক্ত নিজের অসুস্থ বাবাকে কিডনি দানের ইচ্ছা প্রকাশ করলে তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসা এবং পরীক্ষার জন্য জেল থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার এবং হাইকোর্টে জামিন আবেদন দাখিলের অনুমতি দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

আবেদন খারিজ হাইকোর্টে

সর্বোচ্চ আদালত বলেছে, যদি অভিযুক্তকে কিডনি দান করার উপযুক্ত মনে হয় এবং সংশ্লিষ্ট সরকারি মেডিক্যাল কলেজের কমিটি প্রতিস্থাপন প্রক্রিয়ার অনুমোদন দেয়, তা হলে তিনি মধ্যপ্রদেশ হাইকোর্টে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের আবেদন করতে পারেন। তার আবেদন “সহানুভূতির সঙ্গেই বিবেচিত হবে”।

এই মামলায় অভিযুক্তের জামিন আবেদন খারিজ করেছিল মধ্যপ্রদেশ হাইকোর্ট। গত জুন মাসে হাইকোর্টে জামিন আবেদন খারিজ হওয়ার পর সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় অভিযুক্ত। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিচারপতি জেকে মাহেশ্বরীর একটি বেঞ্চ ওই ব্যক্তির দায়ের করা আবেদনের শুনানিতে এই নির্দেশ দেয়।

আবেদনকারীর আইনজীবী সর্বোচ্চ আদালতকে বলেন, অভিযুক্তের বাবার কিডনি নষ্ট হয়ে গিয়েছে এবং তার প্রতিস্থাপন প্রয়োজন। আবেদনকারী নিজের অসুস্থ বাবার জন্য তার কিডনি দান করতে চায়।

উল্লেখ্য, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাস থেকে জেলে রয়েছে অভিযুক্ত। নারকোটিক ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্স অ্যাক্ট, ১৯৮৫-র অধীনে দায়ের একটি মামলায় চলছে তার বিরুদ্ধে।

বিরোধিতা সরকারি আইনজীবীর

অপরাধের তীব্রতার প্রেক্ষিতে অভিযুক্তের জামিন আবেদনের বিরোধিতা করেন সরকারি আইনজীবী। তিনি জানান, আবেদনকারীর অন্য ভাই-বোনও রয়েছেন, যাঁরা তাঁদের বাবার দেখাশোনা করতে পারেন।

আগের নির্দেশ উল্লেখ করে বেঞ্চ বলে, “বাবা-মায়ের দেখাশোনা করা একটা বিষয় এবং মা-বাবাকে একটি কিডনি দান করা অন্য বিষয়। যেটা সব সন্তান না করতেই পারেন। বিশেষ করে শিশু অথবা বিবাহিতদের ক্ষেত্রে তাদের স্ত্রী এবং সন্তানরা এক মত না-ও হতে পারে”।

আদালত বলেছে, মেডিক্যাল রিপোর্ট অনুযায়ী, আবেদনকারীর বাবার বেঁচে থাকার জন্য রেনাল ট্রান্সপ্ল্যান্ট সার্জারি প্রয়োজন। বলা হয়েছে, “যেহেতু আবেদনকারী তার বাবার জন্য তার কিডনি দান করতে চায়, তাই তাকে প্রয়োজনীয় পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া যেতে পারে। কমিটির অনুমোদনের জন্য সরকারি মেডিক্যাল কলেজে জমা দিতে হবে ওই রিপোর্ট”।

সর্বোচ্চ আদালত জানায়, “সরকারি মেডিক্যাল কলেজের কমিটি যদি কিডনি প্রতিস্থাপন প্রক্রিয়ার অনুমোদন দেয়, সে ক্ষেত্রে আবেদনকারী অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের জন্য উচ্চ আদালতে আবেদন করতে পারে”। একই সঙ্গে এই মামলার বিচার প্রক্রিয়া দ্রুততর করার এবং ছ’মাসের মধ্যে তা নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

আজকের আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়ুন এখানে:

‘অপরাধীদের কোনো ধর্ম হয় না’, বাংলাদেশের পুজো মণ্ডপে দুষ্কৃতী আক্রমণ নিয়ে আব্বাস সিদ্দিকির লিখিত বিবৃতি

কোভিড টিকা নিলে টেলিভিশন, মোবাইল ফোন, কম্বল জেতার সুযোগ, অভিনব উদ্যোগ মণিপুরে

মহাকাশে এই প্রথম কোনো ছবির শ্যুটিং সেরে ১২ দিন পর পৃথিবীতে প্রত্যাবর্তন, দেখুন ভিডিয়োয়

বৃষ্টি বিপর্যস্ত কেরলে মৃত কমপক্ষে ১৫, উদ্ধারে নেমেছে সেনা

মঙ্গলবার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিচ্ছেন বাবুল সুপ্রিয়

আগামী তিন দিন উত্তরবঙ্গে অতি ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা, জারি সতর্কতা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন